চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতেই নিজের ভবিষ্যত নির্ধারণ করতে পারেন ধোনি 1

একটা নয়, দু’দুটো বিশ্বকাপ এসেছে তাঁর হাত ধরেই। প্রথমে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পরে মূল বিশ্বকাপ। পাশাপাশি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিও রয়েছে তাঁর ঝুলিতে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ইতিহাসে এমন সফলতা আর কোনো অধিনায়কের নেই, যিনি সমস্তরকম আইসিসি ট্রফি জিতেছেন। কিন্তু তাঁর এই সফলতার খতিয়ানে কিছুটা হলেও মরচে পড়েছে আজ। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অধিনায়ক পদ থেকে সরে যাওয়ার পরই ধোনির অবসর নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। সেই বিষয়েই মাহির পরিকল্পণার তথ্য ফাঁস করলেন, তাঁর কোচ কেশব বন্দ্যোপাধ্যায়।

কী বললেন তিনি? কেশব বাবুর কথায় চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ভাল খেলতে পারলে ধোনি ২০১৯ পর্যন্ত সীমিত ওভারের খেলাতে থাকবে। তিনি বলেন, “এখন ধোনি শুধু চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির দিকেই তাকিয়ে আছে। এই টুর্নামেন্টে ও সফল হলে তবেই আন্তর্জাতিক স্তরে সীমিত ওভারের খেলা চালিয়ে যাবে।”

বাইশগজ ছেড়ে নতুন ভূমিকায় দেখা যাবে ধোনিকে

বাল্যকালের এই কোচ বোধহয় মাহির চিন্তাভাবনার সঙ্গে অধিক পরিচিত। তাই চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে নিজের ফর্মে থাকাকালীনই মাহি অবসর ঘোষণা করেন কিনা, সে বিষয়ে জল্পনা থেকেই যাচ্ছে।

৩৫ বছর বয়স হয়ে গেলেও বাইশ গজে ধোনির ব্যাটের তেজ একেবারেই কমেনি। আজও ১০০ মিটারেরও বেশি লম্বা ছক্কা হাঁকাতে পারেন তিনি। অদম্য ইচ্ছা ও কঠিন পরিশ্রম ছাড়া হয়ত এ কাজ সম্ভব নয়। শুধুই কী পরিশ্রম, নাকি অন্য কোনও রহস্য! মাহির ছোটবেলার কোচ নিজেই এবিষয়টা সামনে আনেন। বলেন, “এটা কখনও সম্ভব নয় যে এই বয়সেও দাঁড়িয়ে, এধরনের স্ট্রাইক রেট বজায় রাখা। ধোনি বলেই এটা সম্ভব। দুটো ক্ষমতা ওকে এটা করতে সক্ষম রেখেছে। এক হল খেলার প্রতি অদম্য ইচ্ছা ও ম্যাচকে তৎক্ষণাৎ বিশ্লেষণ করার ক্ষমতা।”

তিনি আরও বলেন, “বিশ্বমানের ক্রিকেটার হলেও ওর মধ্যে এখনও জুনিয়র ক্রিকেটারদের মত সময়জ্ঞান বিদ্যমান। আজও কখনও ও অনুশীলনে আসতে দেরি করে না। এটাও ওর সাফল্যের অন্যতম চাবিকাঠি।”

তরুণীর জেদের সামনেই আটকে গেল ধোনির হামার গাড়ি! জানেন তারপর কী করলেন ধোনি?

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *