অবসরের জল্পনার অবসান ঘটাল ধোনি, বিশ্বকাপের পরেও খেলে যাওয়ার আভাস দিলেন 1
মহেন্দ্র সিংহ ধোনি

ভারতীয় জাতীয় ক্রিকেট দলের সীমিত ওভারের অধিনায়ক পদ থেকে কিছুদিন আগেই নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। তারপর থেকে দলে একজন অভিজ্ঞ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান হয়ে ভরপুর তার ফায়দা তুলেছেন। ইংল্যান্ডের সঙ্গে হয়ে যাওয়া সিরিজই তাঁর প্রমান। ভাল খেলার পাশাপাশি ধোনির অবসর নিয়েও বেশ জল্পণা শুরু হয়েছিল অনেকদিন ধরে। এবার নিজেই সেই জল্পনার অবসান ঘটালেন ভারতের সফলতম অধিনায়ক।

অনেকেই মনে করেছিলেন চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিই ধোনির জীবনের শেষ আন্তর্জাতিক স্তরে মাঠে নামা। এর পরই হয়ত অবসর ঘোষণা করতে চলেছেন তিনি। ধোনির শৈশবের কোচও এই বিষয় নিয়ে সন্দিহান ছিলেন। সেই সব জল্পনা নিজেই পরিষ্কার করে দিলেন ধোনি। মাহির বক্তব্য শরীর ঠিক থাকলে ২০১৯ বিশ্বকাপের পরেও খেলা চালিয়ে যেতে পারেন তিনি। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ধোনি বলেন, “বিশ্বকাপ আসতে এখনও দুবছর বাকি। এই দু’বছরে অনেক কিছুই বদলাতে পারে। বিশেষ করে ভারতের মত ব্যস্ত ক্রিকেট দলে যে দশ বছরেরও বেশি সময় কাটিয়েছে।”

ধোনির বয়স এখনই ৩৫ বছর। আরও দু’বছর পরে বিশ্বকাপে তিনি কতটা ফিট থাকবেন সে বিষয়ে সন্দেহ আছে। যদিও ধোনিকে এই ১০ বছরে খুব একটা চোটে ভুগতে দেখা যায়নি। বয়স বাড়লেই ফিটনেস কমেনা। এমনটাই মনে করেন তিনি। ধোনি বলেন, “বেশি ক্রিকেট খেলা মানে পুরনো গাড়ির মত হয়ে যাওয়া। একটু যত্ন নিতে হয় ঠিকই, তবে সেই গাড়ি দৌড়ালে অনেককেই পিছনে ফেলে দেয়। দেখা যাক নিজেকে কতটা ফিট রাখতে পারি।”

অধিনায়কত্ব ও উইকেটকিপিং একসঙ্গে বেশ কঠিন কাজ। ফলে ধোনি এতদিন এই চাপের জন্য নিজের খেলাকে চরম সীমায় নিয়ে যেতে পারেন নি। এবার তিনি শুধু খেলার দিকেই মন দিতে চান। সদ্য সমাপ্ত ইংল্যান্ড সিরিজে তাঁর দারুণ ফর্ম লক্ষ্য করা গিয়েছে। একটি শতরান ও টি টোয়েন্টিতে এই সিরিজেই প্রথম অর্ধশতরান পেয়েছেন তিনি। এভাবেই আগামী বিশ্বকাপের পরেও এগিয়ে যেতে চান তিনি। ধোনি বলেন, “আমি আজ যেমন আছি, এমনই থাকলে ২০১৯ বিশ্বকাপের পরেও নিজের খেলা চালিয়ে যাব।”

বিশ্বজয়ী এই অধিনায়কের ইতিবাচক প্রত্যয়ই তাঁকে মানসিকভাবে অনেকটা ফিট রেখেছে। শারীরিকভাবে আগামী দিনে তিনি কতটা ফিটে থাকবেন তা পরের কথা। তবে আপাতত চ্যাম্পিয়ন্স তকমা বজায় রাখতেই চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে মাঠে নামছে ভারত। দেখা যাক ধোনির ব্যাটিংয়ের ঝলকে এবারও ভারত চ্যাম্পিয়ন হতে পারে কিনা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *