ওয়েস্টইন্ডিজ সিরিজের আগে ভারতীয় দলের তারকা খেলোয়াড় হলের আহত

একদিকে ভারতীয় ক্রিকেট দল বাংলাদেশের সঙ্গে টেস্ট সিরিজ খেলছে তো অন্যদিকে বেশকিছু খেলোয়াড় সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফিতে খেলছেন। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজ জেতার পর ওপেনার ব্যাটসম্যান শিখর নিজের ঘরোয়া দলের যোগ যুক্ত হয়ে গিয়েছেন। কিন্তু আজ সকালে মহারাষ্ট্রের বিরুদ্ধে খেলতে গিয়ে শিখর ধবন পড়ে যান আর তার হাঁটু দারুণভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হয়।

হাঁটুতে চোটের কারণে হাসপাতালে পৌঁছলেন শিখর ধবন

সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রিতে লাগা চোটের পর শিখর ধবনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ধবন নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে ৩টি ছবি শেয়ার করে ক্যাপশনে লিখেছেন,

“আমরা পড়ে যাই। ভাঙে যাই, কিন্তু আবারো উঠে দাঁড়িয়ে পড়ি। ক্ষত ভরাট হয় আর আমরা প্রত্যাবর্তন করি কিন্তু এর মধ্যে একমাত্র জিনিস যার উপর আমাদের কন্ট্রোল থাকে সেটা হল যে এই ধরণের সিচুয়েশনে আমরা কি ধরণের রিঅ্যাকট করি। যদি আপনি প্রত্যেক সিচুয়েশনে খুশি আর পজিটিভ থাকেন তো মুশকিল থেকে মুশকিল পরিস্থিতি থেকে সহজে বাইরে আসতে পারেন। ৪-৫ দিনে ঠিক হয়ে মাঠে প্রত্যাবর্তন করব।

হার্দিক পাণ্ডিয়া করলেন ধবনকে নিয়ে ঠাট্টা

সার্জারির পর বিশ্রাম নেওয়া হার্দিক পাণ্ডিয়া ধবনের ছবি নিয়ে ঠাট্টা করে লিখেছেন, “জাঠ পুরো হাসপাতাল ঠিক করছিল?” হার্দিককে গতবার দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে টিম ইন্ডিয়ার সঙ্গে খেলতে দেখা গিয়েছিল। এরপর কোমরের নীচের অংশের সমস্যার জন্য তিনি লন্ডনে সার্জারি করান। বর্তমান সময় পাণ্ডিয়া বিশ্রাম করছিলেন আর এখন ৪ মাস পর তার দলে প্রত্যাবর্তনের আশা রয়েছে।

ধবনের ফর্ম চিন্তার বিষয়

ওয়েস্টইন্ডিজ সিরিজের আগে ভারতীয় দলের তারকা খেলোয়াড় হলের আহত 1

ভারতীয় দলের ওপেনার শিখর ধবনকে গত কিছু সময় ধরে ব্যাট হাতে সংঘর্ষ করতে দেখা গিয়েছে। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে তিনটি টি-২০ ম্যাচে ধবন ক্রমশ ৪১, ৩১আর ১৯ রান করেছেন। এখন আগামী ডিসেম্বর মাসে ওয়েস্টইন্ডিজের দল ভারত সফরে তিন ম্যাচের টি-২০ আর ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলার জন্য আসবে। এই সিরিজের ধবনের উপর নজর থাকবে কারণ ২০২০তে অস্ট্রেলিয়ায় টি-২০ বিশ্বকাপ খেলা হবে, যার জন্য নির্বাচকরা সঠিক খেলোয়াড় নির্বাচন করে বিশ্বকাপ দল তৈরি করতে চাইবে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *