আইসিসি টুর্নামেন্টে ভারতের লাকি চার্ম যুবরাজ সিং এই রোলে আরো একবার করবে ক্রিকেটে প্রত্যাবর্তন

করোনা ভাইরাসের কারণে এই সময় পুরো বিশ্ব লড়াই করছে। যে কারণে বেশকিছু দেশে লকডাউনও চলছে। এর মধ্যে ক্রিকেট খেলাও সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে গিয়েছে। ক্রিকেটাররা এই মুহূর্তে বাড়িতে বিশ্রাম নিচ্ছেন। অবসর নিয়ে ফেলা যুবরাজ সিং এখন সমর্থকদের মেসেজ করে জানিয়েছেন যে তাকে আইসিসি ইভেন্ট চলাকালীন কমেন্ট্রি করতে দেখা যেতে পারে।

যুবরাজ সিং বললেন আইসিসি ইভেন্ট চলাকালীন করতে পারেন কমেন্ট্রি

আইসিসি টুর্নামেন্টে ভারতের লাকি চার্ম যুবরাজ সিং এই রোলে আরো একবার করবে ক্রিকেটে প্রত্যাবর্তন 1

যখন কোনো খেলোয়াড় ক্রিকেটকে বিদায় জানান তো তারপর তার কাছে ৩টি বড়ো বিকল্প থাকে। যার মধ্যে ক্রিকেট কোচ, ক্রিকেট এক্সপার্ট আর তৃতীয় কমেন্টেটরের ভূমিকা হয়। ভারতীয় দলের প্রাক্তন খেলোয়াড় যুবরাজ সিং এর মধ্যে কোনোটাই বেছে নেননি এখনো পর্যন্ত। তবে কমেন্ট্রির ব্যাপারে নিজের পুরো বন্ধু প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার মহম্মদ কাইফের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে ইনস্টাগ্রাম লাইভ চলাকালীন বলেছেন,

“আমি কিছু মানুষের মতো কমেন্ট্রি বক্স সামলানোর ক্ষমতা রাখি না। যে কারণে আমি এটা অনেক বেশি সময় পর্যন্ত করতে পারব না। তবে আমি আইসিসি ইভেন্ট চলাকালীন কমেন্ট্রি করার ব্যাপারে অবশ্যই ভাবতে পারি। যে খেলোয়াড় আগে মাঠে নেমেছে সে তার চাপ ভালোভাবে জানে”।

তরুণ খেলোয়াড়দের সমালোচনা করতে পারবেন না যুবরাজ সিং

আইসিসি টুর্নামেন্টে ভারতের লাকি চার্ম যুবরাজ সিং এই রোলে আরো একবার করবে ক্রিকেটে প্রত্যাবর্তন 2

নিজের কেরিয়ারে সৌরভ গাঙ্গুলীর প্রচুর সাহায্য পাওয়া যুবরাজ সিং তরুণদের সমালোচনা করতে চান না। যে ব্যাপারে তিনি মহম্মদ কাইফের সঙ্গে কথাবার্তা বলতে গিয়ে ইনস্টাগ্রাম লাইফে বলেন যে,

“আমি কোনো তরুণ খেলোয়াড়দের সেখানে বসে সমালোনা করতে পারব না। এটাও একটা কারণ, যে কারণে আমি কমেন্ট্রি করতে চাই না। কিন্তু এটাও জরুরী যে তরুণ খেলোয়াড়দের তাদের খেলার ব্যাপারে আয়না দেখানো। তবে আপনাকে যদিও তাতে একটা ব্যালান্স রাখতে হবে”।

তবে তিনি সেই সময় পরিস্কার জানিয়েছিলেন যে তিনি নিজের ভূমিকা কোচ হিসেবে বেশি পালন করতে চান। যে কারণেও কমেন্ট্রি তার জন্য সঠিক নয়।

মহম্মদ কাইফ আর যুবির বন্ধুত্ব ভীষণই গভীর

আইসিসি টুর্নামেন্টে ভারতের লাকি চার্ম যুবরাজ সিং এই রোলে আরো একবার করবে ক্রিকেটে প্রত্যাবর্তন 3

অনুর্ধ্ব ১৯এর সময় থেকেই মহম্মদ কাইফ আর যুবরাজ সিং ভীষণই ভালো বন্ধু। তারপর এই দুই খেলোয়াড় ২০০২তে নেটওয়েস্ট ট্রফি লর্ডসে একসঙ্গে মিলে জিতিয়েছিলেন। নিজেদের ইনস্টাগ্রাম লাইভ চলাকালীনও এই দুই খেলোয়াড় সৌরভ গাঙ্গুলী আর নিজেদের সেই স্মরণীয় পার্টনারশিপের ব্যাপারেও আলোচনা করেন। এর সঙ্গেই বর্তমান ভারতীয় দলের ব্যাপারেও তারা ভালোমতো আলোচনা করেছেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *