বলের গতিতে দেড়শো ছুঁয়েছেন যে সাত ভারতীয় বোলার! 1

ভারতীয় ক্রিকেটে পেস বোলারদের আবির্ভাব ধুমকেতুর ন‍্যায়।তারা এসেছেন , বিপক্ষ দলের ব‍্যাটসম‍্যানদের মাথায় চিন্তার ভাঁজ ফেলেছেন।ফর্মের ধারাবাহিকতা দেখানোর মধ্যে দিয়ে হয়ে উঠেছেন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য।এতো গেলো তাদের শুরু’র গল্প।আবার খানিকটা বিপরীতে লক্ষ‍্য করলে দেখা যাবে ধারাবাহিকতা’কে ধরে রাখতে বেশিরভাগ সময় কঠিন সমস্যার মুখোমুখি হতে হয় তাকে, থাকে চোটের চোখরাঙানি, ফর্ম হারানো।যার জেরে অনেক সময় নিজেদের ইচ্ছে স্বরূপ দলকে কিছু দেওয়ার চেষ্টা বিফলে যায় তাদের।যদিও এইমুহুর্ত ভারতীয় পেস বোলিং বিভাগ ঋতিমতো সমৃদ্ধ এবং তা সমীহ আদায় করে নিয়েছে গোটা বিশ্বে।আজ এমনই কিছু ভারতীয় বোলারদের কথা আলোচনা করা হলো এখানে যারা বোলের গতিতে পেরিয়েছে’ন ১৫০’র গন্ডি !

 

৭.শান্তাকুমারন শ্রীসন্থ (১৪৯ কিমি/প্রতি ঘন্টা)

আজকের দিনেই মহেন্দ্র সিং ধোনি প্রথমবার ওয়ানডেতে করেছিলেন অধিনায়কত্ব, এই ছিল ম্যাচের ফলাফল
BANGALORE, INDIA – SEPTEMBER 29: Sreesanth (L) and MS Dhoni of India chat between overs during the first One Day International between India and Australia at M. Chinnaswamy Stadium on September 29, 2007 in Bangalore, India. (Photo by Hamish Blair/Getty Images)

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কেরিয়ারের শুরুতেই গোটা দেশবাসীর মনে জায়গা করে নিয়েছিলেন শ্রীসন্থ তার অদ‍ম‍্য মানসিকতার জন্য।বয়সে ছোটো হলে হবেকি, সেই সময়ের তাবড় তাবড় ব‍্যাটসম‍্যানদের চোখে চোখ রাখার সাহ‍স রাখতেন তিনি।তার রিস্ট পজিশন ছিলো ঋতিমতো প্রশংসনীয়।তার মাপা আউট – সুইংগার ঋতিমতো চাপে ফেলতো বিপক্ষে’ র ব‍্যাটসম‍্যানদের।২০০২-০৩ সালে একমাত্র কেরেলার বোলার হিসেবে রন্জীতে হ‍্যাটট্রিক করার রেকর্ড টি তার দখলে।দেশের জার্সি গায়ে খেলেছেন ২৭ টি টেস্ট ম‍্যাচ, নিয়মিত ১৪৯ কিমি প্রতি ঘন্টায় বোলিং করার ক্ষমতা রাখতেন এই বোলার।পরবর্তী সময়ে বিতর্কে জড়িয়ে ক্রিকেট থেকে এইমুহুর্ত অনেকটাই অপ্রাসঙ্গিক তিনি।

৬. আশিস নেহেরা (১৪৯.৭প্রতি ঘন্টা))

বলের গতিতে দেড়শো ছুঁয়েছেন যে সাত ভারতীয় বোলার! 2

একসময় নতুন বলে বোলিংয়ের ক্ষেত্রে নেহেরা’র ছিলো জুড়ি মেলা ভার।অসাধারণ লাইন – লেংথ এবং দুরন্ত গতিসম্পন্ন এই ভারতীয় পেসার’র কে নতুন শতকের শুরুতে এনে দিয়েছিল ক্রিকেট আলোচনা’র মাঝে।বা- হাঁতি এই বোলারের প্রসঙ্গ তুললেই উঠে আসে ২০০৩ এর বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম‍্যাচের কথা ।সেই ম‍্যাচে ২৩ রানের বিনিময়ে নিয়েছিলেন ৬ উইকেট।ডারবানে অনুষ্ঠিত হওয়া সেই ম‍্যাচে ১৪৯.৭ কি মি প্রতি ঘন্টা গতিবেগে বোলিং করেছিলেন তিনি।চোটের জন্য দীর্ঘ সময় মাঠেই কাটাতে হয়েছে এই তারকা পেসার’ কে।

৫.বরুণ এ্যরন (১৫২.৫ প্রতি ঘন্টা)

বলের গতিতে দেড়শো ছুঁয়েছেন যে সাত ভারতীয় বোলার! 3
India’s Varun Aaron celebrates the dismissal of South Africa’s captain Hashim Amla during the first day of their second cricket test match in Bangalore, India, Saturday, Nov. 14, 2015. (AP Photo/Aijaz Rahi)

২০১১ তে ভারতীয় ক্রিকেটে আবির্ভাব হয় এই পেসার’রে।তরুণ তুর্কী এই বোলার সেই সময় তার পেস বোলিং ‘ এ নজর কেড়েছিলেন সকলের।যদিও পরবর্তী সময়ে চোটের দরুণ তাকে দীর্ঘ সময় মাঠের বাইরে যেতে বাধ্য করে।জাতীয় দলে তিনি হয়ে পড়েন অনিয়মিত।২০১৪ সালে নভেম্বর মাসে তিনি ১৫২.৫ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টার গতিতে একটি ম‍্যাচে ডেলিভারি করেন যা সেই সময় একজন ভারতীয়’ র করা দ্বিতীয় দ্রুততম পেস বোলিং’এর তকমা এনে দেয় তাকে।পরবর্তী সময়ে একেবারে ফর্ম হারিয়ে জাতীয় দলে অপ্রাসঙ্গিক হয়ে পড়েন এই পেসার।

৪.উমেশ যাদব (১৫২.৫ প্রতি ঘন্টা)

বলের গতিতে দেড়শো ছুঁয়েছেন যে সাত ভারতীয় বোলার! 4

এইমুহুর্ত ভারতীয় পেস বোলিং বিভাগকে সমৃদ্ধ করছে উমেশ যাদবের বোলিং।নিঃসন্দেহে তার দলে থাকা ভরসা যোগায় ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি কে।১৫০ কি.মি প্রতি ঘন্টায় ধারাবাহিক ভাবে বোলিং করার ক্ষমতা রাখে উমেশ, কিন্তু ওর সবচেয়ে বড়ো সমস্যা মাঝে মধ্যে বোলিং’এ নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখা।২০১২ সালে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে একটি ম‍্যাচে১৫২.৫ কি.মি প্রতি ঘন্টার বেগে বোলিং করেছিলেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের গুরুত্বপূর্ণ এই সদস্য।

৩.ইশান্ত শর্মা ( ১৫২.৬ প্রতি ঘন্টা)

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কেরিয়ারের শুরুতেই দুরন্ত পারফরম্যান্সের মধ্যে দিয়ে সমালোচকদের প্রশংসা আদায় করে নিয়েছিলেন ইশান্ত শর্মা।বছর উনিশে শুরু তার আন্তর্জাতিক কেরিয়ার।২০০৮ সালে অজিদের ঘরের মাঠে সিরিজে পন্টিংয়ের দলের ব‍্যাটসম‍্যানদের ঋতিমতো চাপে ফেলে দিয়েছিলেন তিনি।কেরিয়ারের চতুর্থ ম‍্যাচে মের্লবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে নিয়েছিলেন চার উইকেট।একই সিরিজে এ্যডিলেডে এযাবৎ ক্রিকেট কেরিয়ারের সবচেয়ে পেস বোলিংটি করেছিলেন তিনি, যার গতিবেগ ছিলো ১৫২.৬ প্রতি ঘন্টা।যা তাকে সেই সময় এনে দেয় ক্রিকেটের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ জোরে বোলারের তকমা।

২.জসপ্রীত বুমরাহ (১৫৩.২৬প্রতি ঘন্টা)

বলের গতিতে দেড়শো ছুঁয়েছেন যে সাত ভারতীয় বোলার! 5

তালিকা অসম্পূর্ণ থেকে যাবে এইমুহুর্ত ভারতীয় ক্রিকেট দলের ” পোস্টার বয় “কে ছাড়া।তার দুরন্ত পেস বোলিং বিরাটের দলকে একাধিক ম‍্যাচে জয় এনে দিতে পালন করে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা।মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের নেট বোলার হিসেবে প্রথমে নজরে আসেন ” ক্রিকেট ইশ্বর ” শচীন তেন্ডুলকার।এরপর আর ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে।ইতিমধ্যে দেশের জার্সি গায়ে খেলে ফেলেছেন বিশ্বকাপ।২০১৮ সালে অস্ট্রেলিয়া সফরে একটি টেস্ট ম‍্যাচে এ্যডিলেডে ১৫৩.২৬ কি.মি প্রতি ঘন্টায় গতিবেগে বোলিং করেছিলেন এই তারকা পেসার।

১.জাভাগাল শ্রীনাথ ( ১৫৪ .৬ প্রতি ঘন্টা)

বলের গতিতে দেড়শো ছুঁয়েছেন যে সাত ভারতীয় বোলার! 6

ভারতের হয়ে ১১ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রতিনিধিত্ব করেছেন জাভাগাল শ্রীনাথ।টেস্ট এবং ওয়ানডেতে তার উইকেট সংখ্যা যথাক্রমে ২৩৬ এবং ৩১৫।নিজের ক্রিকেটীয় দিনে ভারতীয় দলের পেস বিভাগের অন‍্যতম সদস্য ছিলেন তিনি।১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপের একটি ম‍্যাচে তিনি বল করেছিলেন ১৫৪.৫ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টার গতিতে।যা সেই বছরের বিশ্বকাপে দ্বিতীয় দ্রুততম বোলিং ছিলো।প্রসঙ্গত, সেবারের বিশ্বকাপে এই তালিকায় প্রথম স্থানে ছিলেন প্রাক্তন পাক তারকা পেসার শোয়েব আখতার।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *