ভারত মহিলা ক্রিকেট দলকে হারিয়ে এশিয়া কাপ জয়ের পর, একের পর এক সিঁড়ি ভেঙ্গে সাফল্যের চূড়ায় উঠছে বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দল। এশিয়া কাপ বিজয়ের পর আয়ারল্যান্ডের সাথে ২-১ ব্যবধানে টি-টুয়েন্টি সিরিজ জয়, তারপর টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে টানা তিন ম্যাচ জয়ের কীর্তি গড়েছেন বাঘিনী বাহিনীরা।

“এ” গ্রূপ নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাপুয়ানিউগিনি কে ৮ উইকেটে পরাজিত করে বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দল। পাপুয়ানিউগিনির দেওয়া ৮৫ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ২ উইকেট হারিয়ে ৪২ বল হাতে রেখেই সহজ জয় তুলে নেই বাঘিনীরা। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে শক্তিশালী নেদারল্যান্ডকে ৭ উইকেটে পরাজিত করে সালমা বাহিনীরা।

গ্রূপ পর্বের শেষ ম্যাচে এসে শুধু জয় লাভ করেনি, রেকর্ড বইয়েও নাম লিখিয়েছেন বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দল। এই ম্যাচে সংযুক্ত আরব আমিরাত কে ৮ উইকেটে হারিয়েছে সালমারা।

তার আগে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে সবকটি উইকেট হারিয়ে ৪০ রান সংগ্রহ করে আরব আমিরাত। টি-২০তে প্রথম বাংলাদেশি মহিলা ক্রিকেটার ও সব মিলিয়ে অষ্টম ক্রিকেটার হিসেবে হ্যাট্রিক করেছেন ফাহিমা খাতুন। আরব আমিরাতের বিপক্ষে ইনিংসের ১৩ তম ওভারের শেষ ৩ বলে ৩ উইকেট তুলে নেন ফাহিমা। এর আগে ২০১৬ সালে ওয়ানডেতেও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেছিলেন ফাহিমা আহমেদ।

এই ম্যাচে একটি বিশ্বরেকর্ড গড়েছে সালমারা। শূন্য রানে ছয় উইকেট শিকার করেছে বাঘিনীরা। ক্রিকেট ইতিহাসে এই প্রথম বারের মত এইরকম ঘটনা ঘটেছে।

প্রথমে ব্যাট করতে নেমেই শুরু থেকে কচ্ছপ গতির ব্যাটিং শুরু করে আরব আমিরাত। এইভাবে একটা সময় তাদের স্কোর গিয়ে পৌঁছায় ২ উইকেটে ৩৩ রান। সেখান থেকে লাল সবুজ বাহিনীর বাজিমাত। ইনিংসের ১৩ তম ওভারের শেষ তিন বলে ডনা, ওজা, এগোদাগেকে আউট করে হ্যাটট্রিক তুলে নেন ফাহিমা। পরের ওভারে আরও তিন উইকেট তুলে নেয় বাংলাদেশ। দুই উইকেট নেন রুমানা অপর একটি হয় রান আউট। ৩৩/২ স্কোর থেকে দুই ওভার ব্যবধানে আরব আমিরাতের স্কোর দাঁড়ায় ৩৩/৮। স্কোর বোর্ডে কোনো রান না তুলেই ছয় উইকেট হারায় আরব আমিরাত।

পুরষ এবং মহিলা ক্রিকেটে এর আগেও ১ রান বা ২ রান ব্যবধানে ব্যবধানে ৬ উইকেটের পতন হয়েছে। কিন্তু কোনো রান যোগ না করে এই প্রথম বারের মত ৬ উইকেট হারিয়েছে আরব আমিরাত।

১৯৪৫ সালে টেস্ট ক্রিকেটে পাকিস্তানের বিপক্ষে ১ রানের ব্যবধানে ৬ উইকেটে হারিয়েছে নিউজিল্যান্ড। তাদের স্কোর ছিল ৫৮/৩ থেকে ৫৯/৯।

২০০৯ সালে ওয়ানডে ক্রিকেটে নিউজিল্যান্ড মহিলা দলের বিপক্ষে ১ রানের ব্যবধানে ৬ উইকেট হারিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা মহিলা দল। তাদের স্কোর ছিল ৪৪/২ থেকে ৪৫/৮।

সর্বশেষ বিশ্বরেকর্ডটি গড়েছে আমাদের মহিলা ক্রিকেট দল। সালমারা শূন্য রানের বিনিময়ে আরব আমিরাতের ৬ উইকেট শিকার করে রেকর্ড বইয়ে সবার উপরে নাম লিখিয়েছে।

 

  • SHARE
    A Cricket enthusiast who is pursuing his passion.

    আরও পড়ুন

    ভারতীয় ওয়ানডে দলে দ্রুত শামিল হতে পারেন এই তিন ক্রিকেটার

    ভারতীয় দল ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সম্প্রতি শেষ হওয়া ওয়ানডে সিরিজে ২-১ ফলাফলে হেরে গিয়েছে। প্রথম ম্যাচ জেতার পরও...

    বিশ্বের এক নম্বর টি২০ বোলার রশিদ খান দিলেন হার্দিক পান্ডিয়াকে বাউন্স খেলার চ্যালেঞ্জ, বদলে পেলেন এই জবাব

    বিশ্বের এক নম্বর টি২০ বোলার রশিদ খান দিলেন হার্দিক পান্ডিয়াকে বাউন্স খেলার চ্যালেঞ্জ, বদলে পেলেন এই জবাব
    ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ দুনিয়াভরের খেলোয়াড়দের এক মঞ্চে নিয়ে আসার কাজ করেছে। এটাই কারণ যে আলাদা আলাদা দেশের...

    ধোনিকে নিয়ে বিসিসিআই লিখল ভুল, ভক্তরা বদলে করল ট্রোল

    ধোনিকে নিয়ে বিসিসিআই লিখল ভুল, ভক্তরা বদলে করল ট্রোল
    ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসে সফলতম অধিনায়কের উল্লেখ যখনই করা হবে তাতে টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তণ অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির...

    ছবি: সেক্সিয়েস্ট স্পোর্টস সাংবাদিক মায়ান্তি ল্যাঙ্গারের কিছু হটেস্ট ফটো

    স্টার স্পোর্টস এবং অন্যান্য স্পোর্টস চ্যানেল এর সৌজন্নে এই মুহূর্তে উপস্থাপিকা হিসাবে মায়ান্তি ল্যাঙ্গার একজন সুপরিচিত মুখ। মায়ান্তি...

    “শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড”………. বিখ্যাত ভারতীয় ক্রিকেটারদের শিক্ষাগত যোগ্যতা!

    যে কোনো খেলাধুলার জগতে প্রতিভাই হল মাপকাঠি, এবং বহুলাংশেই শিক্ষাগত যোগ্যতা গুরুত্বহীন থাকে। তবে আজ আমরা এই...