বিরাট কোহলি

অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের মহারণ জমে উঠেছে পুরোদস্তুর। শুধু ক্রিকেটের বা খেলোয়ারদের প্রদর্শণের আলোচনা নিয়েই নয়; বিতর্ক, একে অপরের প্রতি বিদ্রুপ নিয়েও যুদ্ধ জমে উঠেছে। আর এই যজ্ঞে ক্রমাগত ঘৃতাহুতি দিয়ে চলেছে অস্ট্রেলিয়ার এক সংবাদপত্র।

বাংলাদেশের দেখানো পথে এবার বিরাটকে ব্যঙ্গচিত্র অজি মিডিয়ার!

বেঙ্গালুরু টেস্টে ডিআরএস বিতর্ক নিয়ে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি স্টিভ স্মিথের উদ্দেশ্যে ‘ঠকবাজ’ শব্দ প্রয়োগ না করলেও, অস্ট্রেলিয়ান সংবাদপত্র ‘দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফ’ নিজেই এককভাবে এই মিথ্যাকে প্রমানিত করার পণ করেছে। এবার এই সংবাদপত্রই কোহলির সঙ্গে আমেরিকার নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের তুলনা করে নতুন বিতর্কের জন্ম দিল। মঙ্গলবার অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় এই সংবাদপত্রে লেখা হয়, বিরাট কোহলি নিজেকে ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতই একচ্ছত্র অধিপতি মনে করেন। খোঁচা দিয়ে এই সংবাদপত্র লেখে, “বিরাট কোহলি নিজেকে বিশ্ব ক্রিকেটের ডোনাল্ড ট্রাম্প মনে করেন। ট্রাম্পের মতই কোহলি নিজের ভুলগুলোকে ঢাকার জন্য মিডিয়ার ওপর অনৈতিকভাবে দোষ আরোপ করে থাকে।”

ম্যাচ জিতে অজিদের বিরুদ্ধে ‘জোচ্চুরির’ অভিযোগ আনলেন বিরাট!

২৮ বছর বয়সী দিল্লীর এই ক্রিকেটারের প্রতি অস্ট্রেলিয়ান এই সংবাদপত্রের কীসের রাগ জানা নেই। বেঙ্গালুরু টেস্টের পর থেকেই কোহলিকে শাস্তি পাওয়ানোর জন্য কার্যত আদাজল খেয়ে মাঠে নেমেছে এই পত্রিকা। এই প্রত্রিকার দাবি, স্টিভ স্মিথের পাশাপাশি গোটা অস্ট্রেলিয়াকে অপমান করেছে কোহলি।এমনকী অজিদের বিরুদ্ধে ভুল অভিযোগ করার পর কোনও প্রমান দেখাতে পারেননি বা ক্ষমাও চাননি। বহুদিন বাদে দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফের হাত ধরেই ফিরে এল নিখাঁত ‘হলুদ সাংবাদিকতা’ (Yellow Journalism)। যে ধরনের জার্নালিজমে কোনও তথ্য প্রমান ছাড়াই শুধুমাত্র উদ্দেশ্য প্রনোদিতভাবেই কালিমা লেপন করা হয়ে থাকে।

এদিকে, ডেইলি টেলিগ্রাফের যোগ্য সহযোদ্ধা হিসেবে দায়িত্ব পালন করে চলেছে অজি অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ। ভারতের ফিজিওকে নিয়ে মাঠের মধ্যেই কটুক্তি করেছিল স্টিভ স্মিথ ও কোং। বিরাট কোহলি রাঁচির ম্যাচ শেষে সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, “ওরা কয়েকজন আমাদের ফিজিও প্যাট্রিক ফারহার্টকে নিয়ে কিছু একটা বলছিল নিজেদের মধ্যে। আমি জানিনা কেন ওরা এরকম করছে। উনি আমাদের ফিজিও। ওনার কাজ আমাদের সুস্থ রাখা। এর পিছনে কী কারন আছে আমি সত্যিই জানিনা।”

যদিও স্মিথ এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, “এটা সত্যিই হতাশাজনক। বিরাট নিজেই আমার দিকে এগিয়ে এসে বলে আমি নাকি প্যাট্রিকের অসম্মান করছি। সত্যিটা হল এরকম কোনও কথাই আমরা বলিনি। প্যাট্রিক দারুন কাজ করেছে। বিরাটের গুরুতর চোট ঠিক করে ও আবার মাঠে নামিয়েছে। আমরা কেন তাঁর নামে বাজে কথা বলব!”

  • SHARE

    আরও পড়ুন

    আইপিএলের প্রথম ম্যাচে খেলতে পারবেন না এই দুই অস্ট্রেলীয়

    আর মাত্র দেড় মাস বাকি আইপিএল শুরুর। এই মুহুর্তে স্ট্রাটেজি বানাতে শুরু করে দিয়েছে সমস্ত ফ্রেঞ্চাইজিই। কিন্তু...

    পিএনবি কান্ডে পরোক্ষে নাম জড়ালো বিরাটের, পিএনবির সঙ্গে গাঁটছড়া ছিন্ন করার কথা ভাবছেন তিনি

    পিএনবি কান্ডে পরোক্ষে নাম জড়ালো বিরাটের, পিএনবির সঙ্গে গাঁটছড়া ছিন্ন করার কথা ভাবছেন তিনি
    এই মুহুর্তে পাঞ্জাব ন্যাশানাল ব্যাঙ্কের দুর্নীতিতে গোটা দেশই নড়ে গিয়েছে। ১১ হাজার কোটি টাকার দুর্নীতি এই মুহুর্তে...

    বিরাটের নামে বাজারে আসতে চলেছে গাড়ি, সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোষণা এই শিল্পপতির

    বিরাটের নামে বাজারে আসতে চলেছে গাড়ি, সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোষণা এই শিল্পপতির
    একের পর এক রেকর্ড ধুলিস্যাত হচ্ছে তার ব্যাটের ঘায়ে। বর্তমান প্রজন্মের কথা ছেড়ে দিলেও ইতিমধ্যেই তার নাম...

    আইপিএল ২০১৮: আসন্ন আইপিএল কেকেআরকে নেতৃত্ব দিতে আগ্রহী এই অস্ট্রেলীয়

    আইপিএল ২০১৮: আসন্ন আইপিএল কেকেআরকে নেতৃত্ব দিতে আগ্রহী এই অস্ট্রেলীয়
    আইপিএলের একাদশতম সংস্করণের শুরুর ঘন্টা পড়তে আর মাত্র বাকি মাস দেড়েক। অন্যান্য অনেক ফ্রেঞ্চাইজি যেখানে তাদের অধিনায়ক...

    টুইটারে গিবসের ট্রোলে ক্ষুব্ধ অশ্বিন ম্যাচ ফিক্সিং নিয়ে কটাক্ষ করে সোশ্যাল মিডিয়ার তোপের মুখে

    টুইটারে গিবসের ট্রোলে ক্ষুব্ধ অশ্বিন ম্যাচ ফিক্সিং নিয়ে কটাক্ষ করে সোশ্যাল মিডিয়ার তোপের মুখে
    ক্রিকেটারদের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় হাসি মজা আদান প্রদান করা এখন আম বাত। বহু ক্রিকেটারই নিজেদের মধ্যে একে...