কোহলির অন্তরালেই ক্রমশ রেকর্ড গড়ে যাচ্ছেন অশ্বিন 1
রবিচন্দ্রন অশ্বিন

ভারতীয় ক্রিকেট এখন কোহলিময়। বাইশ গজে ব্যাট হাতে তাঁর রানের সুনামি দেখতে গ্যালারি ভরে থাকে লক্ষ লক্ষ দর্শক। কিন্তু ক্রিকেট মানে তো শুধু ব্যাটিং নয়, বোলিংও। কোনও ম্যাচ জেতাতে একজন ব্যাটসম্যানের যতটা একজন বোলারেরও ঠিক ততটাই থাকে। কিন্তু জনমানষে নায়ক হয়েন ওঠেন ব্যাটধারীরা, আর নেপথ্যে রয়ে যায় বোলার। তাই ভারতীয় দলের নায়ক যদি হন বিরাট কোহলি, তাহলে এই রঙ্গমঞ্চের নেপথ্য নায়ক নিশ্চয় রবিচন্দ্রন অশ্বিন।
ক্রিকেটের মাঠ থেকে খবরের জগৎ, সর্বত্রই ব্যাটসম্যানদের আধিপত্ত। কোনও ম্যাচে কোনও বোলার ৪টে উইকেট নিয়ে ম্যাচ জেতালেও, ম্যান অব দ্য ম্যাচ হয় সেই দলে যে সেঞ্চুরি করেছে সেই।পরেরদিন খবরের কাগজে বড় জায়গাও পায় সেই। যুগে যুগে এ এক পরম সত্য। কঠিন বাস্তব। আর এই বাস্তবের জন্যই গেমচেঞ্জার কোহলির পিছনে চাপা পড়ে রয়েছেন ভারতীয় দলের আরেক গেমচেঞ্জার অশ্বিন। অস্ট্রেলিয়া টেস্টের দ্বিতীয় দিনে মিচেল স্টার্কের উইকেট নিয়েই তিনি করে ফেলেছেন এক রেকর্ড।প্রথম বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক কপিল দেবের রেকর্ড ভেঙে।ঘরের মাঠে একটি সিজনে সবথেকে বেশী উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব এতদিন ছিল কপিলদেবের নামে। তাঁর দখলে ছিল ৬৩টি উইকেট। ১৯৭৯-৮০ সালে কপিলদেব এই রেকর্ডটি করেন। সেই রেকর্ডই ভাঙলেন তামিলনাডুর এই স্পিনার।অনেকেই মনে করছেন, এভাবেই উইকেট পেতে থাকলে একবছরে ১০০টি উইকেট নেওয়ার রেকর্ড গড়তে পারেন তিনি।
সদ্য হয়ে যাওয়া বাংলাদেশ টেস্টেও তিনি এক রেকর্ড তৈরি করেছেন। দ্রুত ২৫০টি উইকেট নেওয়ার রেকর্ড করেন তিনি। কোহলির মত প্রায় প্রতিদিন ভারতীয় বোলিংয়ের এই স্তম্ভ ভেঙে চলেছেন কোনও না কোনও রেকর্ড। আবার রেকর্ড তৈরিও করেছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *