ভারত বনাম শ্রীলঙ্কা ২০১৭ : একসাথে রবীচন্দ্র আশ্বিন ও রবীন্দ্র জাদেজা কে সীমিত ওভারের সিরিজে বিশ্রাম দেওয়া কি ভারতের জন্য ঠিক হল! 1

ভারত বনাম শ্রীলঙ্কা ২০১৭ : একসাথে রবীচন্দ্র আশ্বিন ও রবীন্দ্র জাদেজা কে সীমিত ওভারের সিরিজে বিশ্রাম দেওয়া কি ভারতের জন্য ঠিক হল! 2

আগামী ২০ আগস্ট হতে স্বাগতিক শ্রীলংকার সাথে যে পাঁচ ওয়ান ডে ও এক টিটুয়েন্টি ম্যাচের সিরিজ হতে যাচ্ছে তাতে প্রত্যাশা অনুযায়ী স্পিনার রবীচন্দ্র আশ্বিন ও রবীন্দ্র জাদেজা কে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে। সাথে সাথে আরো বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে পেস বোলার উমেশ যাদব ও মোহাম্মদ সামি কেও। একসাথে এই স্পিন অলরাউন্ডার কে বিশ্রাম দেওয়া অনেক টাই একটি বিস্ময়কর ও চালাকচতুর সিদ্ধান্ত মনে হচ্ছে। এরা গত ২০১৬-১৭ সেশনে বিরতিহীন ভাবে বল করে গিয়েছে। এসময় আশ্বিন বল করেছে ৭৩৮.২ ওভার, যেখানে জাদেজা হাত ঘুরিয়েছে ৭১৭.২ ওভার। চলমান শ্রীলঙ্কা টেস্ট সিরিজেও কোহলী এদের দুজন কেই ব্যাপকহারে ব্যবহার করেছেন। প্রথম দুই টেস্টে ই জাদেজা ও আশ্বিন যথাক্রমে ১০৮.২ ওভার ও ১০৮.৩ ওভার বল করেছে এবং যথারীতি দুই ম্যাচে ই ভারতের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। জাদেজা পাল্লেকেল্লের তৃতীয় টেস্টের জন্য আইসিসির আচরণ বিধি ভঙ্গের কারনে বহিষ্কৃত হলেও আশ্বিন যথারীতি বোলিং আক্রমনের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

বিগত সময়ের বিরামহীন বোলিং করার জন্য তাদের এ মুহুর্তে বিশ্রাম দেওয়া আবশ্যক হয়ে পড়েছে। এরপর আবার এই সীমিত ওভারের সিরিজের পর ই ব্যস্ত সময় পার করবে ভারত তখন এদের সম্পূর্ণ সুস্থ থাকা জুরুরি। জানুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের আগে দেশের মাটিতে সেপ্টেম্বর থেকে ডিসেম্বরে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজল্যান্ডের সাথে যে ৩টি টেস্ট, ১৩ টি ওয়ানডে ও ১১টি টিটুয়েন্টি ম্যাচ খেলবে তখন আশ্বিন ও জাদেজা হবে তাদের বড় অস্ত্র। এছাড়াও জাদেজা ও অশ্বিন কে দেওয়া এই বিশ্রাম একটি আশির্বাদ হিসেবে কাজ করবে, কারন এরফলে টিম ম্যানেজমেন্ট এটা বুঝতে পারবে যারা জাতীয় দলে সুযোগের অপেক্ষায় আছে তাদের কি অবস্থা। অক্সার প্যাটেল,যুবেন্দ্র চাহাল কিংবা কুলদীপ যাদবের মত বোলাররা জাদেজা কিংবা অশ্বিন কে সরিয়ে একাদশে জায়গা করতে পারে না, তাই এটা তাদের জন্যও একটা বড় সুযোগ।

এছাড়াও রবীন্দ্র জাদেজা, রবীচন্দ্র আশ্বিন কিংবা উমেশ যাদব, মোহাম্মদ সামি কে বিশ্রাম দেওয়ায় ভারতের সিরিজ জয় সমস্যা হওয়ার সম্ভবনা খুব ই কম, কারন শ্রীলঙ্কা এখন নিজেদের ই খুজে ফিরছে। নিজেদের মাটিতে ই জিম্বাবুয়ের সাথে সদ্য সমাপ্ত ওয়ানডে সিরিজ হেরেছে ৩-২ ব্যবধানে। এছাড়াও আইসিসি ওয়ানডে তালিকায় আট নম্বরে থাকা দলটি শঙ্কায় আছে ২০১৯ এর ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ সরাসরি খেলতে না পারার। তাই এই শ্রীলঙ্কা ই দল পরীক্ষা নিরীক্ষা করার জন্য ভারতের জন্য সঠিক প্রতিপক্ষ। এছাড়াও ওয়ানডে ও টিটুয়েন্টি সিরিজে দলে ফিরেছেন ওয়েস্ট উইন্ডিজ সফরে বিশ্রামে থাকা রোহিত শর্মা। শেখর ধাওয়ান – রোহিত শর্মার মত ওপেনার যে দলে থাকে তাদের কাছে যে কোন রান ই মামুলি, এরপরে বিরাট কোহলী, অজিঙ্কা রাহানেরা।

Nazmus Sajid

Sports Fanatic!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *