অনুষ্কার আগে এই দক্ষিণী নায়িকার সঙ্গে প্রেম করতেন বিরাট 1
বিরাট কোহলি ও অনুষ্কা শর্মা

বিরাট কোহলি। ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক। সীমিত ওভারের দু’ধরণের ক্রিকেটেই এখন এক নম্বর ব্য়াটসম্য়ান। জাতীয় দলে জায়গা পাওয়ার আগে থেকেই দিল্লির এই ক্রিকেটারটিকে নিয়ে সাড়া পড়ে গিয়েছিল অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ খেলার সময় থেকে। বিরাটের ফ্য়ানের সংখ্য়া হাতে গুনে শেষ করা যাবে না। বিরাটের নাম শুনলে হৃদস্পন্দন বেড়ে যায় গ্ল্য়ামার ওয়ার্ল্ডের সুন্দরী মহিলাদেরও।
অনুষ্কা শর্মা। বলিউডের এই তরুণ অভিনেত্রীর সঙ্গে বর্তমানে প্রেম করতে ব্য়স্ত বিরাট। বেশ ক’বছর হয়ে গেল সম্পর্কের মধ্য়ে রয়েছেন দু’জনে। নানা কারণেই বহুবার খবরে এসেছেন অনুষ্কা-বিরাট। কখনও একসঙ্গে হোটেলের রুমে একান্তে কাটানোর ছবি পোস্ট করে, আবার কখনও বিদেশে শপিং মলে হাত ধরে একসঙ্গে ঘোরাঘুরি করতে দেখে।
মাঝেমধ্য়েই খবর রটে, বিরাটের সঙ্গে ব্রেক-আপ করে নিয়েছেন বিরাট। আবার এমনও হয়েছে, আইপিএলের সময় ক্য়ামেরাতে ধরা পড়েছে, কোনও এক দক্ষিণী অভিনেত্রীর দিকে এক মনে চেয়ে আছেন বিরাট। তখনও শোনা গিয়েছিল, বয়ফ্রেন্ডকে ছাড়তে চলেছেন অনুষ্কা। একবার সংবাদমাধ্য়মের কাছে স্বীকারও করে নিয়েছিলেন বিরাট, তাঁর আর অনুষ্কার মধ্য়ে ঝগড়াঝাঁটি হয়েছে। কিন্তু, সম্পর্ক ভাঙতে পারে – এমন কোনও কথা জানানি কোহলি।
ক্রিকেটের কারণে মিডিয়াতে সেলিব্রিটি হওয়ার পর অনুষ্কা বিরাটের তিন নম্বর গার্লফ্রেন্ড। মাঝেমধ্য়ে অনেকের সঙ্গে বিরাটের নাম জড়লেও, তিনজনকে নিয়ে সিরিয়াস হতে দেখা গিয়েছে দিল্লির ক্রিকেটারটিকে। বরাবরই সিনেমা জগতের সুন্দরী অভিনেত্রীর দিকে আকৃষ্ট বিরাট। তাঁর প্রথম গার্লফ্রেন্ড দক্ষিণী নায়িকা। তামিল ও তেলুগু সিনেমার নাম করা অভিনেত্রী তমন্না ভাটিয়ার সঙ্গে প্রেম করতেন বিরাট। তমন্না গুটিকতক হিন্দি ছবিতেও অভিনয় করেছেন। ২০১২ সালে একটি বিজ্ঞাপণের শ্য়ুটিংকে কেন্দ্র করে যোগাযোগ আর তার থেকে ডেটিং। যদিও সে সম্পর্ক বেশিদিন এগোয়নি। বিরাটের সঙ্গে তমন্নার ব্রেক-আপের কারণ ব্রাজিলিয়ান অভিনেত্রী, ইজাবেল লেটি।
সেই সময় ভারতীয় দলের ক্রিকেটারের সঙ্গে প্রেম করার কারণে প্রচুর পাবলিসিটি পেয়েছিলেন ইজাবেল। সেই প্রচার তাঁর অভিনীত ছবি দেখতে দর্শকদের হলে টানতেও কাজে লাগে। ব্রাজিলিয়ান এই অভিনেত্রীর সঙ্গে বিরাটের দেখা এক শিল্পপতির দেওয়া পার্টিতে। রাজ পুরোহিতের ‘সিক্সটিন’ ছবির শ্য়ুটিংয়ের জন্য় ভারতে দেড় বছর ছিলেন ইজাবেল। সেই সময়ই প্রেমে পড়ে। শুরুতে ব্য়াপারটা লুকিয়ে রাখলেও সিঙ্গাপুরে দু’জনকে ডেটিং করতে দেখে মিডিয়াতে খবরটি ছড়িয়ে পড়ে। কিন্তু, এই সম্পর্কও বেশিদিন টেকেনি। ২০১৩ সালে ইজাবেলের সঙ্গেও ব্রেক-আপ করে নেন বিরাট।
সম্পর্কের ব্য়াপারে বিরাটকে কখনও থিতু হতে দেখা যায়নি। বরাবরই একটার থেকে আরও একটা সম্পর্কতে জড়িয়ে পড়েছেন ভারত অধিনায়ক। তমন্নার সঙ্গে সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হওয়ার পর বিরাটও যেমন তাঁর ক্রিকেট কেরিয়ারে এগিয়েছেন, তেমনই অভিনেত্রী হিসেবে আন্তর্জাতিক মঞ্চে তমন্নাও নিজের পরিচিতি গড়ে নিয়েছেন রাজমৌলির মেগাহিট ছবি বাহুবলিতে প্রভাসের বিপরীতে অভিনয় করে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *