অবসর থেকে ফিরে আসা আম্বাতি রায়ডু জানালেন এখন জীবনে স্রেফ এই দুটি জিনিস হাসিল করাই লক্ষ্য

জীবন প্রত্যেকেই দ্বিতয় সুযোগ দেয় অবশ্যই আপনি এই সুযোগকে চিনে নিয়ে এটকে নিজের হিসেবে বানাতে পারে। ঠিক এমনই সুযোগ পেয়েছেন আম্বাতি রায়ডু বিশ্বকাপ দলে নিজেকে নির্বাচিত হতে না দেখে তড়িঘড়ি অবসর নেওয়ার পর, দু সপ্তাহের মধ্যেই আবার প্রত্যাবর্তন করেছেন। এখন এই প্রত্যাবর্তনকে সফল করার জন্য পুরো দমে চেষ্টা করতে শুরু করা আম্বাতি রায়ডু মিডিয়ার সামনে নিজের দুটি মিশনের কথা বলেছেন।

ইউ-টার্ন নেওয়ার পর জানালেন নিজের মহত্বাকাঙ্ক্ষী পরিকল্পনা

অবসর থেকে ফিরে আসা আম্বাতি রায়ডু জানালেন এখন জীবনে স্রেফ এই দুটি জিনিস হাসিল করাই লক্ষ্য 1

আম্বাতি রায়ডু অবসর থেকে ইউ-টার্ন নেওয়ার পর নিজের খেলার জীবনের শুরু বিজয় হাজারে ট্রফির জন্য হায়দ্রাবাদের নেতৃত্ব দিয়ে করছেন। তিনি বলেছেন আমি এই দায়িত্ব নিয়ে ভীষণই উৎসাহিত। তিনি বলেছেন আমি প্রত্যাবর্তন পর খুশি আর ভীষণই উৎসাহিত বোধ করছি। ৩৩ বছর বয়েসী রায়ডু বলেন,

“আমি নিজের ক্রিকেটকে একটা নতুন পরিচয় দেওয়ার জন্য খেলছি, আমি অন্যের বলাকে একদমই পরোয়া করি না। একবার যখন আমি প্রদর্শন করি তো আমি স্রেফ নিজের ভাল খেলার ব্যাপারে ভাবতে থাকি”।

অবসর থেকে ফিরে আসা আম্বাতি রায়ডু জানালেন এখন জীবনে স্রেফ এই দুটি জিনিস হাসিল করাই লক্ষ্য 2

তিনি নিজের মিশনের ব্যাপারে জানাতে গিয়ে বলেছেন

“এই সময় আমি নিজের দুটি মিশনের উপর ভীষণই ফোকাস হয়ে খেলচতে চাই। প্রথম আমি নিজের ট্যালেন্টকে বাড়াতে চাই, দ্বিতীয় আমি নিজেকে দুনিয়ার সামনে অভিব্যক্ত করতে চাই। তিনি বলেন যে যখন আমি অবসর নিই তো সেই সময় আমার জন্য ভীষণই কঠিন ছিল, কিন্তু এখন সবকিছু ঠিক হয়ে গিয়েছে”।

নির্বাচক আর লক্ষ্মণের কারণে করেছেন প্রত্যাবর্তন

অবসর থেকে ফিরে আসা আম্বাতি রায়ডু জানালেন এখন জীবনে স্রেফ এই দুটি জিনিস হাসিল করাই লক্ষ্য 3

হায়দ্রাবাদের নির্বাচক নোয়েল ডেভিড বলেছেন যে, “রায়ডুর মধ্যে এখনো পাঁচ বছরের ক্রিকেট বাকি রয়েছে”।
বিজয় হাজারে ট্রফি এই মাসের শেষে শুরু হচ্ছে। এটাকে দেখে তিনি বলেন যে রায়ডুর নির্বাচন বিশ্বকাপে হয়নি যে কারণে ও সামান্য নিরাশ হয়ে গিয়েছেন। তিনি আগে বলেন যে,

“আমি আর লক্ষ্মণ ওর সঙ্গে কথা বলেছি আর বলেছি যে ওর মধ্যে এখনো যথেষ্ট ক্রিকেট বাকি রয়েছে আর ও এমনটা না করুক। এই কারণে ওর প্রত্যাবর্তন করা উচিৎ। নিজের রাজ্যের হয়ে খেলা উচিৎ আর ফের এরপর ন্যাশনাল দলে প্রত্যাবর্তন করা উচিৎ। তার অভিজ্ঞতায় তরুণদের ফায়দা হবে তো অন্যদিকে হায়দ্রাবাদ দলেরও ফায়দা হবে”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *