আকাশ চোপড়া ২০১৭য় তার পছন্দের একদিনের ভারতীয় ইনিংসের কথা প্রকাশ করলেন

আকাশ চোপড়া ২০১৭য় তার পছন্দের একদিনের ভারতীয় ইনিংসের কথা প্রকাশ করলেন 1

ক্রিকেটার থেকে কমেন্টেটর হওয়া আকাশ চোপড়া মাইক্রো ব্লগিং ওয়েবসাইট টুইটারকে বেছে নিয়েছেন তার প্রিয় সেরা ভারতীয় ব্যক্তিগত ইনিংসের কথা জানানোর জন্য। যদিও সম্প্রতি একজন ওপেনিং ব্যাটসম্যান হিসেবে রোহিত শর্মা একদিনের ক্রিকেটে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে মোহালিতে নিজের ডবল সেঞ্চুরি করেছেন, যা এই দিল্লিজাত ক্রিকেট এক্সপার্টে মত অনুযায়ী তালিকায় এক নম্বরে রয়েছে। একটি ২ মিনিট ১৫ সেকেন্ডের ভিডিওতে চোপড়া জানিয়েছেন, “ বহুত সারি চয়েস হ্যায় ইয়ার (অনেকগুলো পছন্দ রয়েছে)কিন্তু আমি বিকল্প খোঁজার ব্যাপারে আমি ভীষণই খারাপ। রোহিত শর্মা এবং তার ডবল সেঞ্চুরি দিয়েই শুরু করা যাক। ২০১৭য় একমাত্র ভারতীয়রাই এটা করতে পেরেছে, যাতে এটা তালিকায় এক নম্বরে থাকতে পারে”।

আকাশ চোপড়া ২০১৭য় তার পছন্দের একদিনের ভারতীয় ইনিংসের কথা প্রকাশ করলেন 2

একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজের সময় যা ভারত ২-১ এ জিতে নিয়েছিল, রোহিত ভারতকে স্ট্যান্ড ইন অধিনায়ক হিসেবে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন বিরাট কোহলির অনুপস্থিতিতে। এছাড়াও দিন রাতে ওই খেলায় তিনি ভারতকে ১৪১ রানে জিতিয়ে দিয়েছিলেন যখন তিনি ১৫৩ বলে অপরাজিত ২০৮ রানের ইনিংস খেলেন। ডানহাতি ব্যাটসম্যান রোহিত সাড়ে তিন ঘন্টা ক্রিজে থেকে ১৩টি বাউন্ডারি এবং ১২টি ওভার বাউন্ডারি মারেন। ওই ভিডিওটি টুইট করে চোপড়া লেখেন, “ ২০১৭য় আমার পছন্দের সেরা ওয়ান ডে ইনিংস যা একজন ভারতীয়র। আকাশবানী আপনাদের পছন্দ কি আমার পছন্দের সঙ্গে মিলেছে?” যদিও ৪০ বছর বয়েসি এই প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার জানিয়েছেন যে বছরের সেরা হাইলাইটেড হল কেদার যাদবের ইনিংস, যখন তিনি ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পুণেতে বিরাট কোহলিকেও ঢেকে দিয়েছিলেন। চোপড়া বলেন, “ বড় রান তাড়া করতে নেমে ভারত সেই সময় যুঝছিল যখন কেদার যাদব ব্যাট করতে আসেন (ঘরের মাঠে) – তিনি বিরাট কোহলিকেও ঢেকে দেন যা সাধারণত ঘটতে দেখা যায় না। কিন্তু ও সেটা করে দেখিয়েছিল। তাই ওর ইনিংসটাও থাকবে”। তার অ্যাগ্রেসিভনেসের জন্য পরিচিত ৩২ বছর বয়েসী কেদার যাদব, তার হোম গ্রাউন্ড নামে পরিচিত পুনের মহারাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের মাঠে মাত্র ৭৬ বলে ১২০ রানের ইনিংস খেলেন। যা ভারতকে ৪৮.1 ওভারে ৩৫১ রানের টার্গেট তাড়া করতে সাহায্য করে, এই ম্যাচে বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন ভারত ১১ বল বাকি থাকতেই ৩ উইকেটে ওই ম্যাচটি জিতে নেয়। যাদব ওই ম্যাচে ১২টি বাউন্ডারি এবং ৪ টি ছক্কা মারেন এবং বিরাট কোহলি ১০৫ বলে করেন ১২২ রান।

আকাশ চোপড়া ২০১৭য় তার পছন্দের একদিনের ভারতীয় ইনিংসের কথা প্রকাশ করলেন 3

তার ইনিংস সাজানো ছিল আটটি বাউন্ডারি এবং পাঁচটি ছক্কা দিয়ে। চোপড়া নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওয়াংখেড়েতে বিরাট কোহলির ইনিংস কেও সেরা বলেন যা এই ২০১৭র অক্টোবরে করেছিলেন তিনি। ওই ম্যাচে ২১২ বলে ১২৫ রান করেন তিনি। আকাশ ওই ইনিংস সম্বন্ধে বলেন, “ আমি ভেবেছিলাম দল আরও একবার চাপের মুখে পড়ে গেল, তবে ও (বিরাট কোহলি) দুর্দান্ত ব্যাট করেছিল ওয়াংখেড়েতে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে”। চোপড়া আরও দুটি দুর্দান্ত ইনিংসের কথাও বলেছেন। যখন দ্বিতীয় ওয়ান ডেতে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারত ৪.4 ওভারে ২৫ রানে তিন উইকেট হারিয়ে ধুকছিল সেই সময় যুবরাজ সিং এবং উইকেটকীপার মহেন্দ্র সিং ধোনি দুটি দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করেন। “যুবরাজ দুর্দান্ত খেলেন… খুব তাড়াতাড়ি কয়েকটি উইকেট পড়ে গেছিল… ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১৫০ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন যা ভারতকে বিশাল রান দাঁড় করাতে সাহায্য করে”।

আকাশ চোপড়া ২০১৭য় তার পছন্দের একদিনের ভারতীয় ইনিংসের কথা প্রকাশ করলেন 4

২০১৭র ১৯ জানুয়ারি কটকে দ্বিতীয় ওয়ান ডে তে এই দুই সিনিয়র ব্যাটসম্যান চতুর্থ উইকেটের জন্য ২৫৬ রানের পার্টনারশিপ খেলেন। ৩৮১ রান খাড়া করে ভারত ওই ম্যাচ ১৫ রানে জিতে নেয়। আকাশ জানান, “ ধোনি এবং যুবরাজের মধ্যে ওই পার্টনাশিপের পর আমরা সবাই বলতে শুরু করি ‘ধোনি মার রাহা হ্যায় (ধোনি মারছে), মহেন্দ্র দে দন দনা দন ধোনি”। চোপড়া ওই দুটি ইনিংস নিয়ে স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে যুবরাজকে ‘প্যাশনেট’ এবং ধোনিকে ‘ফুল অফ কন্টেন্ট’ বলে ব্যাখ্যা করেছেন। বাঁহাতি ব্যাটসম্যান যুবরাজ ১২৭ বলে ১৫০ রান করে ম্যান অফ দ্য ম্যাচ হন এবং ১২৪ বলে ১২২ রান করেন ধোনি। ওই ইনিংসে যুবরাজ ২১টি বাউন্ডারি এবং ৩টি ছক্কা মারেন, এবং ধোনি মারেন ১০টি চার এবং ৬টি বিশাল ছক্কা।

আকাশ চোপড়া ২০১৭য় তার পছন্দের একদিনের ভারতীয় ইনিংসের কথা প্রকাশ করলেন 5

এছাড়াও চোপড়া ২০১৭র মহিলা বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে হরমোনপ্রীত কৌরের চেষ্টাকেও তালিকায় রেখেছেন। এ ব্যাপারে তিনি বলেছেন, “ যখন আমরা ভারতীয়দের কথা বলছি, তখন আমি হরমোনপ্রীত কৌর এবং ডার্বিতে ওর সেঞ্চুরি(১৭১ অপরাজিত)কেও রাখব। এবং ওটা (সেঞ্চুরি) ছিল আইসিং অন দ্য কেক”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *