প্রাক্তণ পাকিস্তানী অফ স্পিনার সইদ আজমল যিনি সমস্ত ধরনের ক্রিকেট থেকে সন্ন্যাস নিলেন দেরীতে হলেও সম্প্রতি এক হাত নিয়েছেন ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলকে এক হাত নিয়েছেন। আজমল আইসিসির বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষার মুল্যায়নের প্রটোকল নিয়ে প্রশ্ন তুলে আন্তর্জাতিক বোলারদের সম্পর্কে একটি বিস্ময়কর দাবী করেছেন। প্রসঙ্গত আজমলের বোলিং অ্যাকশন নিয়েও দু’বার প্রশ্ন উঠেছে। প্রথমবার তার বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন ওঠে ইউএইতে ২০০৯ এ অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে, আর দ্বিতীয়বার ইউএইতেই শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ২০১৪ সালে। আজমল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বিস্ময়ের সৃষ্টি করেছিলেন তার দুদিকেই বল টার্ন করানোর সক্ষমতা দিয়ে। যাহোক আজমলের উপর লাইম লাইট তখন সরে যায় যখন তিনি চাকিংয়ের অপরাধে ব্যান হন।

এরপর ২০১৫য় তার বোলিং অ্যাকশন শুধরে নিয়ে খেলায় ফিরে এলেও আগের মত সাফল্য আর তিনি পান নি। সন্ন্যাস ঘোষণা করার পর আজমল জানিয়েছেন, “আমি আজকে অবসর নিয়েছি, এবং এখন আমার বয়েস ৪০। আমার মনে হয়েছে এটাই সঠিক সময়, নতুন্দের জন্য জায়গা ছেড়ে দেওয়ার। আমার মনে হয়েছে আমাকে দলের জন্য একটা বাড়তি বোঝা হিসেবেই দেখা হচ্ছে, এমনকী ঘরোয়া ক্রিকেটেও। কিন্তু আমি আমার সম্মান খুইয়ে দলের বাইরে যেতে চাই না”। যা হোক আজমল আইসিসির বোলারদের বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বলেছেন যে যদি বর্তমান বোলারদের বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষা করা হয় তাহলে দেখা যাবে ৯০ শতাংশ বোলারই সেই পরীক্ষায় অসফল হবে। তিনি বলেন, “ আমি ভীষণই ভারী হৃদয়ের সঙ্গে অবসর নিচ্ছি। প্রথমত আমার মনে হয় যে আইসিসির প্রটোকল ভীষণই শক্ত, এবং যদি সমস্ত বোলার যারা এই মুহুর্তে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছে তাদের পরীক্ষা করা হয় তাহলে আমি নিশ্চিত যে ৯০ শতাংশ বোলারই এই প্রটোকল পাস করতে ব্যর্থ হবেন”। আইসিসি প্রটোকল সমস্যা নিয়ে কথা বলতে গিয়ে দাবী করেছেন যে কিছু বোলারদের হাতের স্বাভাবিক মেডিকেল সমস্যার কথা বিবেচনা করা হয়নি যখন কয়েকজনে অ্যাক্সিডেন্টের পর হাতের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

আজমল সবসময়েই দাবী করেছেন যে একটি পথ দুর্ঘটনাই দায়ী তার হাত কিছু অতিরিক্ত বাকানোর জন্য। আজমল ভারী হৃদয়ের সঙ্গে সন্ন্যাস নিয়েছেন এবং তিনি সবসময়েই খেলাটার সঙ্গে যুক্ত থাকতে চেয়ে নতুনদের কোচিং করাতে চান। আজমল জানিয়েছেন, “আমি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের চ্যালেঞ্জটাকে সবসময়েই উপভোগ করেছি। এটাই পাকিস্থানের হয়ে ম্যাচ খেলে অবসর নেওয়ার আদর্শ সময়”।

  • SHARE
    সাংবাদিক, আদ্যন্ত ক্রীড়াপ্রেমী। দ্বিতীয় ডিভিসনে দীর্ঘদিন ক্রিকেট খেলার দরুণ ক্রিকেটের অন্ধ ভক্ত। ব্রায়ান লারা সচিনের অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের বাইরে ব্রাজিলের সমর্থক এবং নেইমার ও মেসির অন্ধ ভক্ত।

    আরও পড়ুন

    অনুষ্কাকে যাবতীয় কৃতিত্ব দিয়ে অবসর নিয়ে মুখ খুললেন কোহলি

    অনুষ্কাকে যাবতীয় কৃতিত্ব দিয়ে অবসর নিয়ে মুখ খুললেন কোহলি
    তার ব্যাটিং প্রতিভা নিয়ে সন্দেহ নেই কারও। সকলেই একবাক্যে স্বীকার করে নিয়েছেন যে তিনি ব্যাটিংয়ের জিনিয়াস। তামাম...

    প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে সদ্য সমাপ্ত একদিনের সিরিজে যে যে রেকর্ড গড়লেন ভারত অধিনায়ক বিরাট

    তার শ্রেষ্ঠত্ব মেনে নিয়েছে ক্রিকেট বিশ্বের সকলেই। বিশ্বের সর্বকালের সেরা একদিনের ক্রিকেটার হিসেবে তাকে মেনেও নিয়েছেন সকলে।...

    আইপিএলের প্রথম ম্যাচে খেলতে পারবেন না এই দুই অস্ট্রেলীয়

    আর মাত্র দেড় মাস বাকি আইপিএল শুরুর। এই মুহুর্তে স্ট্রাটেজি বানাতে শুরু করে দিয়েছে সমস্ত ফ্রেঞ্চাইজিই। কিন্তু...

    পিএনবি কান্ডে পরোক্ষে নাম জড়ালো বিরাটের, পিএনবির সঙ্গে গাঁটছড়া ছিন্ন করার কথা ভাবছেন তিনি

    পিএনবি কান্ডে পরোক্ষে নাম জড়ালো বিরাটের, পিএনবির সঙ্গে গাঁটছড়া ছিন্ন করার কথা ভাবছেন তিনি
    এই মুহুর্তে পাঞ্জাব ন্যাশানাল ব্যাঙ্কের দুর্নীতিতে গোটা দেশই নড়ে গিয়েছে। ১১ হাজার কোটি টাকার দুর্নীতি এই মুহুর্তে...

    বিরাটের নামে বাজারে আসতে চলেছে গাড়ি, সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোষণা এই শিল্পপতির

    বিরাটের নামে বাজারে আসতে চলেছে গাড়ি, সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোষণা এই শিল্পপতির
    একের পর এক রেকর্ড ধুলিস্যাত হচ্ছে তার ব্যাটের ঘায়ে। বর্তমান প্রজন্মের কথা ছেড়ে দিলেও ইতিমধ্যেই তার নাম...