করোনা ভাইরাসের পর ক্রিকেট শুরু হলে দেখতে পাওয়া যাবে এই বড়ো পরিবর্তন

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পুরো বিশ্বকে নিজের আওতায় নিয়ে ফেলেছে। বিশ্বে স্পোর্টসের উপরও নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। অন্যদিকে করোনা সংক্রামণের কারণে খেলার নিয়মে বেশকিছু পরিবর্তন হতে পারে। এখন যখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট শুরু হবে তো বোলার বলকে নিজের থুতু দিয়ে উজ্জ্বল করতে পারবেন না। তবে এখনো পর্যন্ত এই বিষয়ে আইসিসি নিজের অন্তিম নির্ণয় নেয়নি।

আইসিসি বলের উপর থুতু লাগানোতে জারি করতে পারে নিষেধাজ্ঞা

করোনা ভাইরাসের পর ক্রিকেট শুরু হলে দেখতে পাওয়া যাবে এই বড়ো পরিবর্তন 1

আইসিসি এখন অ্যাম্পায়ারদের পর্যবেক্ষণে বলে চমক আনার জন্য আর্টিফিশিয়াল প্রোডাক্ট ব্যবহার করার অনুমতি দেওয়ার বিকল্পের ব্যাপারে ভাবনা চিন্তা করছে। ক্রিকেটে এই ধরণের বল ট্যাম্পারিংকে লীগাল করা হতে পারে। ক্রিকেটে এখনো পর্যন্ত বলকে চকচকে করার জন্য বোলার বোলার নিজের থুতুর ব্যবহার করতেন, কিন্তু করোনা ভাইরাসের মহামারীর পর যখন ক্রিকেট শুরু হবে তো এই ব্যাপারে আইসিসি কিছু আলাদা ধরণের সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

আইসিসি এই বিষয়ে খেলোয়াড়দের হিতে সিদ্ধান্ত নেবে

করোনা ভাইরাসের পর ক্রিকেট শুরু হলে দেখতে পাওয়া যাবে এই বড়ো পরিবর্তন 2

এই বিষয়ে ভারতীয় টেস্ট দলের সহঅধিনায়ক অজিঙ্ক রাহানে নিজের ভাবনা প্রকাশ করেছেন। বলে থুতু আর ঘাম ব্যাবহারকে আটকানোর গুজবের ব্যাপারে প্রশ্ন করায় তিনি বলেন, “আমি জানিনা যে এই বিষয়ে আইসিসি আর অন্য ক্রিকেট বোর্ড কী সিদ্ধান্ত নেবে। ব্যক্তিগতভাবে আমি এই কোভিড-১৯ এর সফরের শেষ হওয়ার অপেক্ষা করব। যখন ক্রিকেট শুরু হবে তখন আমরা সকলেই জেনে যাব যে কী নিয়ম হবে। ক্রিকেটে থুতুর ব্যবহারের উপর আইসিসির সিদ্ধান্ত সকলেই পালন করবেন, কারণ আমার আশা রয়েছে যে এটা খেলোয়াড়দের হিতের কারণেই হবে”।

উইকেট নেওয়ার পর স্রেফ নমস্কার বা হাই ফাইভ করুন

করোনা ভাইরাসের পর ক্রিকেট শুরু হলে দেখতে পাওয়া যাবে এই বড়ো পরিবর্তন 3

অজিঙ্ক রাহানে আগে নিজের বয়ানে বলেন, “এখন মাঠে খেলোয়াড়দের আরো বেশি অনুশাসিত থাকতে হবে। সামাজিক দূরত্বকে মাথায় রাখতে হবে। উইকেট পড়ার পর আমাদের উৎসবের জন্য সম্ভবত নমস্কারের সাহায্য নিতে হবে। আমরা কোনো জিনিসকেই হালকাভাবে নিতে পারব না। উইকেট পড়ার পর আমাদের পুরোনো উপায়ে উৎসব পালন করতে হবে যেখানে আমাদের নিজেদের জায়গায় দাঁড়িয়ে হাততালি দিয়ে খুশিকে উপভোগ করব। সম্ভবত আমরা নমস্কার বা সম্ভবত স্রেফ ‘হাই ফাইভ’ করব”।

বছরের শেষে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে হতে চলা টেস্ট সিরিজ নিয়ে অজিঙ্ক রাহানে বলেন, “অস্ট্রেলিয়ায় অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হওয়া সবসময়ই মুশকিল থেকেছে। ওরা দুর্দান্ত দল, কিন্তু এখন আমি ক্রিকেটের ব্যাপারে ভাবছি না। সকলের স্বাস্থ্য জরুরী। যখন সবকিছু ঠিক হবে তো এই ব্যাপারে সরকার, ক্রিকেট বোর্ড আর আসিসি সিদ্ধান্ত নেবে”।

অজিঙ্ক রাহানে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে দলে প্রত্যাবর্তনের ব্যাপার নিয়ে বলেন, “আমার বিশ্বাস যে আমি ভারতের সীমিত ওভারের দলে ফিরে আসব আর এর জন্য আমি যথেষ্ট পজেটিভ। যখনই আমি সুযোগ পাব আমি নিজের ১০০ শতাংশ দেব”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *