সিডনিতে বুক চিতিয়ে লড়ে দেশকে বাঁচালেন অশ্বিন-বিহারী, প্রশংসায় মাতলেন অধিনায়ক রাহানে 1

আবারও একটি অসাধারণ টেস্ট ম্যাচের স্বাক্ষী থাকল ক্রিকেট বিশ্ব। ঐতিহ্যশালী সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে যেভাবে কার্যত হারতে থাকা ম্যাচটিকে নিজেদের আয়ত্ত্বে নিয়ে এসেছিলেন চেতেশ্বর পুজারা এবং ঋষভ পন্থ, আর তারপর অবস্থা খারাপ বুঝে দুর্দান্ত প্রত্যয় নিয়ে ম্যাচটিকে বাঁচিয়ে নিয়ে ফিরলেন হনুমা বিহারী এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিন, তা নিয়ে ক্রিকেট বিশ্ব মোহিত। এমন ম্যাচ দেখে তৃপ্ত হওয়া যায়, তা বলাই যায়।

আর টিম ইন্ডিয়ার এই দুরন্ত পারফর্মেন্সে খুশি স্টপগ্যাপ অধিনায়ক অজিঙ্ক রাহানে। দলের এমন দুর্দান্ত লড়াইয়ে খুশি রাহানে। এই নিয়ে পোস্ট ম্যাচ প্রেজেন্টেশনে রাহানে বলেছেন, “আজ সকালে মাঠে নামার আগে আমাদের মধ্যে কথা ছিল যে মাঠে আমরা চরিত্র দেখাব এবং শেষ অবধি লড়ব। রেজাল্টের কথা আমরা মাথাতেই রাখব না। খুবই খুশি যেভাবে আমরা আজ লড়েছি, এমনকি গোটা ম্যাচেই আমরা যেভাবে লড়েছি। প্রথম ইনিংসে অস্ট্রেলিয়া ২০০ রানে দুই উইকেট থাকা সত্ত্বেও আমরা ওদের ৩৩৮ রানে অল আউট করেছি।”

Image

যদিও এখনও কিছু কিছু ক্ষেত্রে উন্নতি আনতে হবে, সেই নিয়ে মন্তব্য করেছেন অজিঙ্ক রাহানে। যদিও রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও হনুমা বিহারির পার্টনারশিপকে প্রশংসা করেছেন রাহানে। এই নিয়ে তিনি বলেছেন, “যদিও কিছু জায়গায় আমরা এখনও উন্নতি করতে পারি কিন্তু বিশেষ ভাবে মেনশন করতে চাই হনুমা বিহারী ও রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে। যেভাবে ওনারা শেষ অবধি ব্যাটিং করেছেন এবং নিজেদের চরিত্র দেখিয়েছেন তা সত্যিই অসাধারণ।”

Image

আর শেষে ঋষভ পন্থকে নিয়েও প্রশংসা করেছেন রাহানে। হনুমা বিহারীর আগে ঋষভ পন্থের আসা নিয়ে অনেকেই সন্দেহ প্রকাশ করেছিলেন, কিন্তু নতুন জায়গায় এসে এরকম দুরন্ত ইনিংস খেলেছেন, সে নিয়ে উচ্ছ্বসিত রাহানে। তিনি বলেছেন, “ঋষভ পন্থকে অনেক বড় কৃতিত্ব দেওয়া যায়। আমরা পরিকল্পনা করেছিলাম কিন্তু শেষে সেই খেলোয়াড়কেই এই পরিকল্পনাকে কাজে লাগাতে হবে।”

Image

প্রথম ইনিংসে স্টিভ স্মিথের দুরন্ত শতরানের জেরে অস্ট্রেলিয়া ৩৩৮ রান তুলেছিল। জবাবে শুভমন গিল এবং চেতেশ্বর পুজারার অর্ধশতরানে কোনওরকমে ২৪৪ রান অবধি করতে পারে ভারত। এরপর ৩১২/৬ রানে ডিক্লেয়ার করে অস্ট্রেলিয়া। চতুর্থ ইনিংসে ৪০৭ রান তাড়া করতে গিয়ে পঞ্চম দিনে দুর্দান্ত চরিত্র দেখায় টিম ইন্ডিয়া। শেষ অবধি ৩৩৪/৫ স্কোরে তারা খেলা শেষ করে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *