মাত্র চার বলে দিলেন ৯২ রান, আম্পায়ারের পক্ষপাতিত্ব পেল যোগ্য জবাব 1

একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ থেকেই বাংলাদেশীদের প্রতিবাদের ভাষা গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে গিয়েছিল। বিশ্বের ইতিহাসে এটিই সম্ভবত একমাত্র লড়াই, যা মাতৃভাষাকে রক্ষার উদ্দেশ্যে করা হয়েছিল। অন্যায়ের বিরুদ্ধে বাঙালীদের এই আপোষ না করার যে এককাট্টা মনোভাব তা আবারও দেখা গেল।

না এবার কোনও রাজনৈতিক রণাঙ্গণ নয়। এবার প্রতিবাদটা হল বাইশ গজে। যার ফল স্বরূপ ক্রিকেটের ইতিহাসে ঘটে গেল এক ঐতিহাসিক ঘটনা। মাত্র ৪ বলে ৯২ রান দিয়ে বাংলাদেশের এক বোলার নজির গড়ল। এটা শুনতে অদ্ভুত লাগতেই পারে। সেটাই স্বাভাবিক। মনে হতে পারে পারে এটা তো নিছকই ছেলেখেলা। তাহলে আসল কারনের দিকে একটু নজর দেওয়া যাক।

ঢাকার দ্বিতীয় শ্রেণির ক্রিকেট লিগে এই ঘটনাটি ঘটে। এদিন অ্যাক্সম ও লালমাটিয়া নামে দুই দলের খেলা ছিল। টসে আম্পায়ার লালমাটিয়ার অধিনায়ক সুজন মাহমুদকে কয়েন না দেখতে দিয়েই, কার্যত একতরফা সিদ্ধান্ত শুনিয়ে দেয়। অগত্যা প্রথমে ব্যাট করতে নামতে হয় লালমাটিয়াকে। খেলার নিয়মের এই অস্বচ্ছতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করবেন ঠিকই করে নেন মাহমুদ। কিন্তু কীভাবে হবে সেই প্রতিবাদ! তা হয়ত অনেকের চিন্তাশক্তির থেকে সহশ্র যোজন দূরে ছিল। প্রথমে ব্যাট করে ১৪ ওভারে ৮৮ রান করে লালমাটিয়া। জবাবে বল করতে নেমে মাত্র ৪ বলেই ম্যাচ জিতিয়ে দেয় বিপক্ষকে। কীভাবে হল!

প্রথম ওভারে বল করতে গিয়েই মাহমুদ ১৫টি নো বল ও ৬৫টি ওয়াইড বল করে সে। নিজের চারটি বৈধ বলে মাত্র ১২ রান দেয়। কিন্তু ইচ্ছা করে নো বল ও ওয়াইড করে অ্যাক্সমকে জিতিয়ে দেয় মাহমুদ। যোগ্য জবাব দেওয়ার জন্য, প্রতিটা ওয়াইড বা নো বলে যখন পরোক্ষভাবে থাপ্পর মারছিল আম্পায়ারের গালে, তখন তাঁর দলের কর্মকর্তারাও চুপ ছিলেন। তাঁরাও প্রতিবাদের এই ভাষাটিকে স্বাগত জানিয়েছিলেন।

এখানে দেখুন সেই ইনিংসের স্কোরকার্ডঃ

মাত্র চার বলে দিলেন ৯২ রান, আম্পায়ারের পক্ষপাতিত্ব পেল যোগ্য জবাব 2

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *