ওয়ান-ডে এবং টি-২০ ফরম্য়াটের নিয়মিত অধিনায়ক উপুল থারাঙ্গা নির্বাসিত হয়ে দল থেকে বাইরে চলে যাওয়ার পর থেকে আরও চাপে পড়ে গিয়েছে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট টিম। তৃতীয় একদিনের ম্য়াচে তাঁর জায়গা নেওয়ার জন্য় টেস্ট ক্রিকেটের অধিনায়ককে নেতা করার জন্য় ডেকে আনলেও তাঁকে ক্য়ান্ডিতে নেতৃত্ব দিতে হয়নি। নির্বাচকদের পছন্দের ক্রিকেটার চামারা কাপুগেদারা নেতৃত্ব দেন গত রবিবার। তবে, দিনেশ চান্দিমলকে খেলানো হয়েছিল। কিন্তু, তৃতীয় ম্য়াচ খেলেই শ্রীলঙ্কার অস্থায়ী অধিনায়ক ও টেস্ট দলনায়ক সিরিজের বাইরে চলে গিয়েছিলেন। দু’জনেই চোটে কাবু। একজনের পিঠে টান ধরেছে। আরেকজনের বুড়ো আঙুল ভেঙেছে। বৃহস্পতিবার সিরিজের চতুর্থ একদিনের আন্তর্জাতিক ম্য়াচে কলম্বোর প্রেমদাসা স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে শ্রীলঙ্কা ও ভারত। কিন্তু, ওই ম্য়াচে পাওয়া যাবে না নিয়মিত অধিনায়ককে। দু’ম্য়াচের নির্বাসনের সাজা যেন অনেক লম্বা লাগছে।
দ্বিতীয় একদিনের ম্য়াচে ভারত জিতলেও শ্রীলঙ্কা প্রায় ধসিয়ে ফেলেছিল ভারতের ব্য়াটিং লাইন-আপ। ভূবিকে সঙ্গে নিয়ে মহেন্দ্র সিং ধোনি ত্রাতা হয়ে না দাঁড়ালে সিরিজে শ্রীলঙ্কা সমতা ফিরিয়ে ফেলত গত বৃপস্পতিবার। তবে, ওই ম্য়াচে শ্রীলঙ্কার বোলাররা ধীর গতিতে বল করায় তার সাজা ভুগতে হয় শ্রীলঙ্কান অধিনায়ককে। নির্ধারিত সময়ের মধ্য়ে তিন ওভার কম বলে করে শ্রীলঙ্কান টিম। ফলে আইসিসি’র নিয়ম অনুযায়ী থারাঙ্গাকে দু’ম্য়াচের জন্য় নির্বাসিত করেন ওই ম্য়াচের ম্য়াচ রেফারি। ২৭ অগস্ট তাই খেলতে পারেননি শ্রীঙ্কান ক্য়াপ্টেন। ৩১ অগস্ট যখন দলের খুব বেশি দরকার তাঁকে, ওই নির্বাসনের সাজা মড়ার ওপর খাঁড়ার আঘাত হয়ে দাঁড়িয়েছে। পঞ্চম একদিনের ম্য়াচে আগে দলে ফেরার কোনও রাস্তা নেই থারাঙ্গার সামনে।
গত জুনে চ্য়াম্পিয়ন্স ট্রফিতে তাদের প্রথম ম্য়াচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে মুখোমুখি হয়েছিল শ্রীলঙ্কা। ওই ম্য়াচের পর একই কারণে দু’ম্য়াচের জন্য় নির্বাসিত হতে হয়েছিল শ্রীলঙ্কান ওয়ান-ডে ম্য়াচের ক্য়াপ্টেনকে। তিনমাসের মধ্য়ে এই নিয়ে দু’বার একই ঘটনা ঘটিয়ে ফেলায় আরও বড় সাজা অপেক্ষা করছে থারাঙ্গার জন্য়। শ্রীলঙ্কান দলের বর্তমান জাতীয় নির্বাচকরা ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজ শেষ হলেই আগামী সাত সেপ্টেম্বর ইস্তফা দিতে চলেছেন সাম্প্রতিক ভরাডুবির নৈতিক দায়িত্ব নিয়ে। তারপর যাঁরা নির্বাচক মণ্ডলীর নতুন সদস্য় হয়ে আসবেন, তাঁদের জন্য় গুরু দায়িত্ব অপেক্ষা করছে। কারণ, পঞ্চম ম্য়াচে থারাঙ্গা দলে ফেরার পর আগামী বারো মাসের মধ্য়ে তাঁর নেতৃত্বে শ্রীলঙ্কা দল যদি ফের স্লো-ওভারেটের গেরোয় ফাঁসে, তাহলে উপুলকে নিয়ম অনুযায়ী কমপক্ষে আট মাসের জন্য় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নির্বাসনে পাঠাবে আইসিসি। নির্বাসনের মেয়াদ বেশিও হতে পারে। ফলে নতুন নির্বাচক হিসেবে যাঁরাই আসবেন, তাঁদেরকে অস্থায়ী একজন অধিনায়ক ঠিক করে রাখতে হবে ব্য়াক-আপ প্ল্য়ান হিসেবে। আর ইদানিং শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটে চোট-আঘাতের যা বহর বেড়েছে, তাতে অতিরিক্ত একটা রিজার্ভ বেঞ্চ না গড়ার দরকার পড়ে।

এদিকে, ভারতের বিরুদ্ধে চতুর্থ একদিনের ম্য়াচে হারলে পরবর্তী বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার যোগ্য়তা হারাবে শ্রীলঙ্কা। এই মুহূর্তে একদিনের ক্রিকেটের তালিকায় আট নম্বরে রয়েছে ১৯৯৬-এর বিশ্বচ্য়াম্পিয়নরা। বৃহস্পতিবার ভারতের কাছে হারলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ তাদের টপকে আটে উঠে আসবে আর শ্রীলঙ্কা নয়ে নেমে যাবে। একমাত্র পরপর দুটি ম্য়াচে ভারতকে হারাতে পারলে তবেই আট নম্বর স্থানটা ধরে রাখতে পারবে থারাঙ্গার দল। কিন্তু, সরাসরি বিশ্বকাপের খেলার যোগ্য়তা হারালে কোয়ালিফাই করে বিশ্বকাপে খেলার যোগ্য়তা অর্জন করতে হবে শ্রীলঙ্কাকে। বর্তমানে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের যা দল, এই নিয়ে বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করা খুব মুশকিল হয়ে পড়বে।

  • SHARE
    A sports enthusiast and a critic. Journalism is all about being unbiased to create positive influence from negative angle.

    আরও পড়ুন

    বাবা হলেন এই ভারতীয় ক্রিকেটার

    বাবা হলেন ভারতীয় ক্রিকেটের মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান চেতেশ্বর পুজারা। এক কন্যা সন্তানের পিতা হলেন তিনি। আর সে...

    ত্রিদেশীয় সিরিজের জন্য ভারতীয় দল ঘোষণা!

    শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত ট্রাই সিরিজ নিদাহাস ট্রফি জন্য ভারতীয় দল ঘোষণা করল বিসিসিআই। কেমন হল দল একবার দেখে...

    ধোনির দিন শেষ? কি বললেন সৌরভ

    ধোনির দিন শেষ? কি বললেন সৌরভ
    সেই কবেই নেভিল কার্ডাস বলে গেছেন ওয়ান ডে ক্রিকেটে পাজামা ক্রিকেট বলে। ওয়ান ডে ক্রিকেটের জামানায় টেস্ট...

    জয়ের সমস্ত কৃতিত্বই ওর : রোহিত শর্মা

    দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি২০ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে হারার পর ভারতীয় দল আরও দারুণভাবে ফিরে এসে সেঞ্চুরিয়ানের সুপার...

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ
    বিশ্ব ক্রিকেটে এই মুহুর্তে তাদের মধ্যে চলছে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই। তা সত্ত্বেও এই দুজনের মধ্যে একে অপরকে সম্মান...