৫জন বড়ো খেলোয়াড় যার বিশ্বকাপে খেলেছেন নিজেদের শেষ ম্যাচ, দ্বিতীয়বার আজ পর্যন্ত পাননি দলে জায়গা 1

যে কোনো ক্রিকেটারের বড়ো একটা স্বপ্ন থাকে যে সে নিজের দেশের হয়ে ক্রিকেটের সবচেয়ে বড়ো টুর্নামেন্ট, আইসিসির টুর্নামেন্টে অংশ নেবেন। অর্থাৎ প্রত্যেক ক্রিকেটারের স্বপ্ন থাকে যে তিনি একবার না একবার বিশ্বকাপের মতো টুর্নামেন্ট অবশ্যই খেলবেন। এখনো পর্যন্ত বিশ্বকাপের ইতিহাসে বেশকিছু খেলোয়াড় একের বেশি বিশ্বকাপে নিজের দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছেন।

সেই পাঁচটি বড়ো নাম যারা নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলেছেন উইনিং বিশ্বকাপ দলের সঙ্গে

৫জন বড়ো খেলোয়াড় যার বিশ্বকাপে খেলেছেন নিজেদের শেষ ম্যাচ, দ্বিতীয়বার আজ পর্যন্ত পাননি দলে জায়গা 2

বিশ্বকাপ খেলা প্রত্যেক ক্রিকেটারের স্বপ্ন। কিছু এমন খেলোয়াড়ও থেকেছেন যাদের কেরিয়ারই এই বড়ো টুর্নামেন্ট দিয়ে শুরু হয়েছে। তো বেশকিছু খেলোয়াড় এমনও থেকেছেন যারা নিজেদের শেষ ম্যাচও বিশ্বকাপেই খেলেছেন। আর এর মধ্যে কোনো খেলোয়াড়ের যদি নিজের শেষ ওয়ানডে ম্যাচ আর তাও বিশ্বকাপ খেতাবের সঙ্গে পূর্ণ হয় তো এটা ভীষণই স্পেশাল ব্যাপার হয়। আজ আমরা আপনাদের সেই পাঁচজন বড়ো এবং জনপ্রিয় খেলোয়াড়ের ব্যাপারে জানাব যারা নিজেদের শেষ ম্যাচ বিশ্বকাপে খেলেছেন আর সেই সঙ্গে বিশ্বকাপ খেতাব জিততেও সফলতা হাসিল করেছেন।

এস শ্রীসন্থ – ২০১১

৫জন বড়ো খেলোয়াড় যার বিশ্বকাপে খেলেছেন নিজেদের শেষ ম্যাচ, দ্বিতীয়বার আজ পর্যন্ত পাননি দলে জায়গা 3

ভারতীয় ক্রিকেট দল ২০১১য় আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপের খেতাব জিতেছিল। ভারত মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে ২৮ বছর পর বিশ্বকাপ জেতার পুনরাবৃত্তি করেছিল। এই উইনিং দলে ভারতের হয়ে খেলা শান্তাকুমারণ শ্রীসন্থও ছিলেন।
এস শ্রীসন্থ ওই খেতাব জেতা দলের অংশ ছিলেন। এস শ্রীসন্থ এরপর নিজের কেরিয়ারে আর কোনো ম্যাচ খেলেননি। যদিও শ্রীসন্থ অবসর নেননি, কিন্তু তারপর তিনি ২০১২য় স্পট ফিক্সিংয়ে ফাঁসায় বিসিসিআই তাকে লাইফ টাইম ব্যান করে দেয়। যদিও শ্রীসন্থের ব্যান গত বছরই হাইকোর্ট সরিয়ে দিয়েছে যারপর তিনি ক্রিকেটে ফিরে আসতে পারেন।

গ্লেন ম্যাকগ্রা – ২০০৭

৫জন বড়ো খেলোয়াড় যার বিশ্বকাপে খেলেছেন নিজেদের শেষ ম্যাচ, দ্বিতীয়বার আজ পর্যন্ত পাননি দলে জায়গা 4

বিশ্বকাপ ক্রিকেটে যখনই মহান জোরে বোলারের কথা ওঠে তো অস্ট্রেলিয়ার প্রকাতন তারকা জোরে বোলার গ্লেন ম্যাকগ্রাকে এর থেকে একদমই আলাদা করা যাবে না। গ্লেন ম্যাকগ্রা অস্ট্রেলিয়ার দলের হয়ে বহু বছর খেলেছেন। তিনি অস্ট্রেলিয়ার হয়ে নিজের কেরিয়ারে ৪টি বিশ্বকাপ খেলেছেন যার মধ্যে তিনি তিনটি বিশ্বকাপ ছোঁয়ার সফলতা হাসিল করেছেন। গ্লেন ম্যাকগ্রা ১৯৯৬তে অস্ট্রেলিয়া হয়ে প্রথম বিশ্বকাপ খেলেন তো তিনি শেষবার ২০০৭ বিশ্বকাপে খেলেছেন। শেষ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার দল জয় হাসিল করেছিল যারপর তিনি নিজের কেরিয়ারকে বিদায় জানান।

ইমরান খান – ১৯৯২

৫জন বড়ো খেলোয়াড় যার বিশ্বকাপে খেলেছেন নিজেদের শেষ ম্যাচ, দ্বিতীয়বার আজ পর্যন্ত পাননি দলে জায়গা 5

পাকিস্যান ক্রিকেট দল নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে একবার বিশ্বকাপ জিততে পেরেহচে। পাকিস্তান ক্রিকেট দল বিশ্ব ক্রিকেটের প্রধান দল যারা ১৯৯২ সালে বিশ্বকাপ জিতেছিল। যারপর তারা এখনো পর্যন্ত বিশ্বকাপ জিততে পারেনি। তারা ওই বিশ্বকাপে ইমরান খানের নেতৃত্বে সফলতা পেয়েছিল। পাকিস্তানের মহান অলরাউন্ডার ইমরান খান ওই বিশ্বকাপে দুর্দান্ত প্রদর্শন করে দলকে জয় এনে দিতে বড়ো যোগদান দিয়েছিলেন। তারপর ইমরান নিজের ক্রিকেট কেরিয়ারকে বিদায় জানান।

ব্র্যাড হ্যাডিন – ২০১৫

৫জন বড়ো খেলোয়াড় যার বিশ্বকাপে খেলেছেন নিজেদের শেষ ম্যাচ, দ্বিতীয়বার আজ পর্যন্ত পাননি দলে জায়গা 6

অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল ২০১৫য় নিউজিল্যান্ডের অংশীদারির সঙ্গে নিজেদের আয়োজন খেলা হওয়া বিশ্বকাপ খেতাব জিতেছিল। অস্ট্রেলিয়া এই ইভেন্ট মাইকেল ক্লার্কের নেতৃত্বে পঞ্চমবার জিতেছিল। এই বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়া দলের হয়ে উইকেটকিপিংয়ের দায়িত্ব প্রাক্তন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ব্র্যাড হ্যাডিন সামলেছিলেন। হ্যাডিন ওই ইভেন্টে অস্ট্রেলিয়ার স্পেশাল খেলোয়াড় ছিএন। হ্যাডিন নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ফাইনাল ম্যাচ খেলার পর নিজের ওয়ানডে কেরিয়ারকে বিদায় জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।

মাইকেল ক্লার্ক – ২০১৫

৫জন বড়ো খেলোয়াড় যার বিশ্বকাপে খেলেছেন নিজেদের শেষ ম্যাচ, দ্বিতীয়বার আজ পর্যন্ত পাননি দলে জায়গা 7

অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল বিশ্বকাপের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশিবার খেতাব জেতা দল থেকেছে। অস্ট্রেলিয়ার দল এখনো পর্যন্ত পাঁচবার বিশ্বকাপ জিয়েছে। যার মধ্যে একবার প্রাক্তন অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্কের অধিনায়কত্বেও অস্ট্রেলিয়া এই খেতাব জেতে। ২০১৫য় অস্ট্রেলিয়া মাইকেল ক্লার্কের নেতৃত্বে বিশ্বকাপের খেতাব জিতেছিল। অস্ট্রেলিয়ার মহান ব্যাটসম্যানদের মধ্যে জায়গা করে নেওয়া মাইকেল ক্লার্ক ওই বিশ্বকাপে নিজের শেষ ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছিলেন, যারপর তিনি নিজের ওয়ানডে কেরিয়ারকে বিদায় জানিয়েছিলেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *