আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ: প্লেয়ার অফ দ্য টুর্নামেন্ট পুরষ্কারের দাবিদার পাঁচজন খেলোয়াড় 1

আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল ভারত এবং নিউজিল্যান্ডের মধ্যে ১৮ থেকে ২২ জুনের মধ্যে রোজ বোলে অনুষ্ঠিত হবে। ফাইনালটি লর্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। তবে মার্চ মাসে আইসিসি ভেন্যু স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নেয়। টুর্নামেন্টটি শুরু হয়েছিল ২০১৯ সালে এবং তখন থেকেই ব্যাট ও বলের দুর্দান্ত প্রতিযোগিতা চলছিল। বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় প্লেয়ার অফ দ্য টুর্নামেন্ট পুরষ্কারের জন্যও লড়াই করবেন। শেষ পর্যন্ত কে এই পুরষ্কার পায় সেটা শেষ ম্যাচের উপরও নির্ভর করবে।

আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ: প্লেয়ার অফ দ্য টুর্নামেন্ট পুরষ্কারের দাবিদার পাঁচজন খেলোয়াড় 2

মার্নাস লাবুশানে: মার্নাস লাবুশানের বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে খেলার কথা ছিল না। তবে ২০১৯ সালে লর্ডস টেস্টে স্টিভ স্মিথের কনকাশন সাব হিসাবে দলে আসার পরে ভাগ্য তার সাথ দিয়েছিল। সেখান থেকে তিনি আর ফিরে তাকাতে পারেননি এবং বর্তমানে চ্যাম্পিয়নশিপে শীর্ষস্থানীয় রান-স্কোরার। মাত্র ১৩ টি ম্যাচে ডানহাতি ব্যাটার পাঁচটি সেঞ্চুরি এবং নয়টি হাফ-সেঞ্চুরির সাহায্যে ১৬৭৫ রান করেছেন। তিনি ২০২০ সালের জানুয়ারিতে সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ২০১৫ সালের সর্বোচ্চ স্কোরের সাথে ৭২.৮২ গড়ে খেলেছিলেন। টুর্নামেন্টে তিনি সর্বাধিক সংখ্যক বাউন্ডারি (১৮৬) মেরেছিলেন। মাত্র ১৮ টেস্টে ব্যাটসম্যানদের মধ্যে আইসিসির টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে লাবুশানে বর্তমানে তৃতীয় স্থানে রয়েছেন।

আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ: প্লেয়ার অফ দ্য টুর্নামেন্ট পুরষ্কারের দাবিদার পাঁচজন খেলোয়াড় 3

বেন স্টোকস: কোনও সন্দেহ ছাড়াই বেন স্টোকস এই টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ইংল্যান্ডের স্ট্যান্ডআউট খেলোয়াড় হয়েছেন। ২০১৮ অ্যাশেজের হেডিংলে-তে ম্যাচ জয়ের পর থেকেই আত্মবিশ্বাসের সাথে ফুটছেন তিনি। ইংলিশ টেইল-এন্ডারদের পাশে নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অসম্ভব রান তাড়া করতে নামেন তিনি। শীর্ষস্থানীয় রান সংগ্রহকারীদের তালিকার চতুর্থ স্থানে থাকা স্টোকস ৪৬ গড়ে ১৩৪৪ রান করেছেন। তার সর্বোচ্চ ১৭৬ রানের স্কোর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২০২০ সালের জুলাই মাসে ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে এসেছিল। বল হাতেও তিনি হতাশ হননি কারণ তিনি নিজের প্রচেষ্টার জন্য প্রদর্শন করতে ৩৪ উইকেট শিকার করেছেন।

Tim Southee breaks Sachin Tendulkar's Test batting record!

টিম সাউদি: টিম সাউদি জুনে ফাইনালের একটি অংশ হতে চলেছেন এবং তাকে প্লেয়ার অফ দ্য টুর্নামেন্টের পুরষ্কারের অন্যতম প্রতিযোগী হিসাবে বিবেচনা করা যেতে পারে। ১০ টি ম্যাচে তিনি ইতিমধ্যে ৫১ টি উইকেট তুলে নিয়েছেন এবং আশা করা হচ্ছে তার একটি ম্যাচ বাকি থাকায় তিনি আরও উইকেট যোগ করতে পারবেন। তার প্রচেষ্টার জন্য নিউজিল্যান্ডের এই পেসার তিনটি পাঁচ উইকেট শিকার করেছেন। এই পেসার ফাইনালে গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। তিনি ব্যাট দিয়েও প্রতিপক্ষের কিছুটা ক্ষতি করতে পারেন।

আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ: প্লেয়ার অফ দ্য টুর্নামেন্ট পুরষ্কারের দাবিদার পাঁচজন খেলোয়াড় 4

রবিচন্দ্রন অশ্বিন: রবি অশ্বিন হল বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতের আধিপত্যের অন্যতম প্রধান কারণ। মাত্র ১৩ টি ম্যাচে তিনি দুটি পাঁচ উইকেট দখল এবং একটি ১০ উইকেটের সাথে ৬৭ উইকেট শিকার করেছেন। কামিন্স থেকে মাত্র তিন উইকেট দূরে থাকায় টুর্নামেন্টে শীর্ষস্থানীয় উইকেট শিকারী হিসাবে শেষ হওয়া অশ্বিনের বাস্তব সম্ভাবনা রয়েছে। এই বছরের শুরুর দিকে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চার ম্যাচের সিরিজে তিনি ৩২ উইকেট নিয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী হয়েছিলেন। সাউদাম্পটনের পিচ তার পক্ষে খুব বেশি সাহায্য থাকবে না, তবে তার আরও চার উইকেট পেয়ে শীর্ষে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ব্যাট হাতে অশ্বিনের খারাপ চলছিল ২০১৬ সাল থেকে, তবে চিপকে ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে ১০৬ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। টুর্নামেন্টে তিনি ২১.০৭ গড়ে ২৯৫ রান করেছেন।

আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ: প্লেয়ার অফ দ্য টুর্নামেন্ট পুরষ্কারের দাবিদার পাঁচজন খেলোয়াড় 5

বাবর আজম: বাবর আজম বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে পাকিস্তানের স্ট্যান্ডআউট ব্যাটার ছিলেন সন্দেহ নেই। দশ ম্যাচে এই তরুণ ব্যাটসম্যান তার প্রচেষ্টা দেখানোর জন্য চারটি সেঞ্চুরি এবং পাঁচটি হাফ-সেঞ্চুরির সাহায্যে ৬৬.৫৭ গড়ে ৯৩২ রান সংগ্রহ করেছেন। ব্যাট হাতে রেখে তাঁর শোয়ের পিছনে, তিনটি ফরম্যাটেই তাকে জাতীয় অধিনায়কও করা হয়েছিল। তাদের অস্ট্রেলিয়া সফরে পাকিস্তান একটি বিপর্যয়কর ফর্মে ছিলেন বাবর। তবে বাবর দুটি টেস্টে ৫২.৫০ গড়ে ২১০ রান নিয়ে আউট হন। সেই সফরে তিনি অ্যাডিলেড ওভালেও ৯৭ রান করেছিলেন। পাঞ্জাবের লাহোরের ২৬ বছর বয়সী এই স্টিভ স্মিথের তুলনায় গড় বেশি, যার গড় ১৩ ম্যাচ থেকে ৬৩.৮৫। যদিও তিনি ১৬৭ টি ম্যাচ খেলেছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *