টেস্ট সিরিজ অন্তিম পর্বে। তারপর কুড়ি তারিখ থেকে সীমিত ওভারের ক্রিকেট সিরিজ শুরু হবে শ্রীলঙ্কা ও ভারতের মধ্য়ে। এই মুহূর্তে খুব করুণ অবস্থা শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের। কাগজে-কলমে যতই সমীহ দেখানো হোক, আদতে দলটা শ্রেফ অতীতের ছায়া। ব্য়াটিং-বোলিং-ফিল্ডিং সব বিভাগেই কেমন যেন ছন্নছাড়া ভাব। কিংবদন্তি কিছু ক্রিকেটারের অবসর নেওয়ার ধাক্কাটা ঠিকমতো সামলে উঠতে গিয়েও বারবার হোঁচট খাওয়া। ভারতের সঙ্গে টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে জিম্বাবোয়ার মতো দলের কাছে ওয়ান-ডে সিরিজে নাকানি-চোবানি খেয়ে এসেছে শ্রীলঙ্কা। ৩-২ ফলে কোনওরকমে মানসম্মান বাঁচিয়ে দেশে ফিরেছে। আর তারপরই অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেন অ্য়াঞ্জেলো ম্য়াথিউজ। নতুন অধিনায়ক দিনেশ চান্দিমলের নেতৃত্বে থিতু হওয়ার আগেই ভারতের সামনে পড়েছে শ্রীলঙ্কা। সাম্প্রতিক পারফরমেন্স বিচার করলে টিম ইন্ডিয়া এই মুহূর্তে বিশ্ব ক্রিকেটের অন্য়তম প্রবল শক্তিধর দল।

ইংল্য়ান্ডে অনুষ্ঠিত চ্য়াম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে ভারত হেরে গেলেও গোটা টুর্নামেন্টে নিজের আধিপত্য় বজায় রেখেছিল। পাকিস্তানের কাছে হারটা যে শুধুমাত্র একটা দুঃস্বপ্ন ছিল ক্য়ারনিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে গিয়ে তা প্রমাণ করে দিয়ে এসেছেন বিরাট কোহলিরা। ইন্ডিয়ান ব্য়াটিং লাইন-আপের টপ থ্রি একাই যথেষ্ট যে কোনও দলের রাতের ঘুম কেড়ে নেওয়ার জন্য়। ভারতীয় দলে এখন এমন অবস্থা ভালো পারফর্ম করেও জায়গা ছেড়ে দিতে হচ্ছে আরওএক প্রতিভাকে সুযোগ করে দিতে। আর তিনিও মাঠে নেমে পারফর্ম করে দিচ্ছেন। প্রথম একাদশের মতো রিজার্ভ বেঞ্চও তেমন শক্তিশালী।

খবরে প্রকাশ, একদিনের সিরিজে হয়ত বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে ভারত অধিনায়ককে। চ্য়াম্পিয়ন্স ট্রফিতে গ্রুপ পর্বে শ্রীলঙ্কা ভারতকে হারালেও, ওটা একটা অঘটন হিসেবেই ধরা হচ্ছে। তাছাড়া অঘটন তো আর রোজ রোজ ঘটে না। শ্রীলঙ্কা সফরের পরই আগামী বছর পর্যন্ত ঠাসা ক্রীড়াসূচি অপেক্ষা করছে ভারতীয় ক্রিকেট দলের জন্য়। দম ফেলার একেবারে সুযোগ নেই। ফলে বিরাটকে বিশ্রাম দেওয়ার এটাই সেরা সুযোগ।

বিরাট কোহলিকে বিশ্রাম দেওয়া হলে সীমায়িত ওভারের ক্রিকেট সিরিজে ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দেবেন একদিনের ক্রিকেটের সহ-অধিনায়ক রোহিত শর্মা। মুম্বইয়ের এই ক্রিকেটারটির অধিনায়কত্ব নিয়ে কারওরই কোনও সন্দেহ নেই। আইপিএল ক্রিকেটে তাঁর নেতৃত্বেই মুম্বই ইন্ডিয়ান্স তিনবার ট্রফি জিতেছে। ভারতীয় দলকেও নেতৃত্ব দেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে, তা প্রমাণ করতে রোহিতও মুখিয়ে আছেন। তার ওপর প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি রয়েছেন, তাঁকে সাহায্য় করার জন্য়। অধিনায়কত্বের দায়ভার থেকে মুক্তি নিলেও, টেলিভিশন ক্য়ামেরায় বারবার ধরা পড়েছে, মাহি এখনও ক্রিকেট মাঠে তাঁর পোড় খাওয়া মগজের টোটকা দিয়ে বিরাটকে সাহায্য় করেন।

ব্য়াটিং অলরাউন্ডার যুবরাজ সিংয়ের জন্য় এটাই শেষ সুযোগ নিজেকে প্রমাণ করার। ক্য়ারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে গিয়ে একেবারেই সুবিধা করে উঠতে পারেননি যুবী। বয়স হয়েছে পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছে। ২০১৯ বিশ্বকাপে যেতে হলে এই সিরিজে তাঁকে পারফর্ম করতেই হবে। তাছাড়া, আর কোনও রাস্তা নেই। কারণ, আগামী বিশ্বকাপের জন্য় দলগড়া শুরু করে দিয়েছেন বিরাট এবং শাস্ত্রী। তরুণদের বেশি করে সুযোগ দেওয়া পক্ষপাতী তাঁরা। বুড়ো যুবরাজকে বারবার সুযোগ দেওয়ার কোনও অর্থই নেই। কারণ, কেরিয়ারের একেবারে পড়ন্ত বেলায় চলে এসেছেন পাঞ্জাবের এই স্টার অলরাউন্ডার। একই কথা প্রযোজ্য় ধোনির জন্য়। তাঁর ত্রিশ বছর হয়েছে। তবে, ধোনি বারবারই নিজের আগে দলকে প্রাধান্য় দিয়েছেন। নিজের জায়গা কখনও আঁকড়ে পড়ে থাকতে দেখা যায়নি তাঁকে। টেস্ট ক্রিকেটের অধিনায়কত্ব ছাড়ার সঙ্গে সঙ্গে অবসর নিয়ে নেওয়াই তার প্রমাণ। একদিনের ক্রিকেটেও বিরাটকে অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিয়েছেন ভবিষ্য়তের কথা ভেবে।

ভারতীয় দলের তরুণ ক্রিকেটারদের দিকে নজর দিলে সবার আগে টেস্ট দলের সহ-অধিনায়ক অজিঙ্কা রাহানের নাম নিতে হয়। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে টু্র্নামেন্টের সেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছিলেন। ইদানিং দারুন ছন্দে আছেন। চোটের কারণে বহুদিন দলের বাইরে থাকা ব্য়াকআপ ওপেনার লোকেশ রাহুল কামব্য়াক করছেন। এখন তাঁকে ব্য়াটিং অর্ডারে কোথায় খেলানো হয়, সেটাই দেখার। তবে, টি-২০ সিরিজে শিখর ধওয়নের পরিবর্তে রোহিত শর্মার সঙ্গেই তাঁকেই ওপেনার ভূমিকায় দেখা যেতে পারে বলে খবর। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ভারতীয়-এ দলের ক্রিকেটার মণীশ পান্ডে সিরিজের সেরা হয়েছেন। তাঁকে শ্রীলঙ্কা সফরে দলে নেওয়া হবে। ফলে, যুবরাজের জন্য় চাপ আরও বেড়ে গেল।

ভারতীয় বোলিং লাইনআপ প্রধান শক্তি স্পিন। রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও রবীন্দ্র  জাদেজা এই মুহূর্তে দুর্দান্ত ছন্দে রয়েছেন। টানা ক্রিকেটের মধ্য়ে থাকলেও নির্বাচকদের কোনও পরিকল্পনা নেই তাঁদের বিশ্রাম দেওয়ার। অক্ষর প্য়াটেল, যযুবেন্দ্র চহল ও কূলদ্বীপ যাদবের মতো তরুণ প্রতিভাকেও পেয়ে গেছে ভারত। ভবিষ্য়তের জন্য় ম্য়াচ ফিনিশার হিসেবে হার্দিক পান্ডিয়া ও কেদার যাদবের অপশনকে পরখ করছে ভারত। তাছাড়া, বলের হাতটাও ভালো পান্ডিয়ার। তাঁর মিডিয়াম পেস বোলিং ভুবনেশ্বর কুমার, জসপ্রীত বুমরা, মহম্মদ সামিদের সাহায্য় করবে। উমেশ যাদবকে বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে। ভারতীয়-এ দলের হয়ে সম্প্রতি ভালো পারফর্ম করা দুই পেসার শার্দুল ঠাকুর বা সিদ্ধার্থ কউলের মধ্য়ে কোনও একজনকে শ্রীলঙ্কা পাঠানোর পরিকল্পনা করছেন নির্বাচকরা। ২০১৯ বিশ্বকাপের জন্য় এখন থেকেই তরুণদের মানসিক কাঠিন্য় পরখ করে নিতে চায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডও।

 

SHARE

আরও পড়ুন

ভারত বিদ্বেষী মাইকেল ভনের ভবিষ্যতবাণী, এই দলকে বললেন বিশ্বকাপ ২০১৯ এর বিজেতা

ভারত বিদ্বেষী মাইকেল ভনের ভবিষ্যতবাণী, এই দলকে বললেন বিশ্বকাপ ২০১৯ এর বিজেতা
বিশ্বকাপ ২০১৯ শুরু হতে এখনো ১০০ দিনের কম সময় বেঁচে রয়েছে। সমস্ত দেশই এই সময় সম্পূর্ণভাবে এর...

ম্যাথু হেডেন বললেন, এই ভারতীয় প্লেয়ারের চেয়ে ভালো খেলোয়াড় মার্কস স্টোইনিস, নাম জানলে অবাক হবেন আপনিও

ভারত আর অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে টি-২০ সিরিজের শুরুয়াত হতে চলেছে। এই সিরিজের জন্য অস্ট্রেলিয়ার দল...

পুলওয়ামা হামলার পর ইমরান খান দিয়েছিলেন যুদ্ধ করার ধমকী, এখন হরভজন সিং দিলেন এই পরামর্শ

কাশ্মীরের পুলওয়ামাতে ১৪ ফেব্রুয়ারি সিআরপিএফ কনভয়ের উপর সন্ত্রাসবাদীরা হামলা করে দিয়েছিল।যাতে এখনো পর্যন্ত ৪০ এর বেশি জওয়ান...

বিস্ফোরক মন্তব্য সুরেশ রায়নার, আমাকে দল থেকে ভালো প্রদর্শন সত্ত্বেও বাদ দেওয়া হয়েছে

বিস্ফোরক মন্তব্য সুরেশ রায়নার, আমাকে দল থেকে ভালো প্রদর্শন সত্ত্বেও বাদ দেওয়া হয়েছে
ভারতীয় দলের দুর্দান্ত ব্যাটসম্যান সুরেশ রায়না এই সময় ভারতীয় দলের বাইরে রয়েছেন। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজে এই...

বিশ্বকাপের আগে ভারত-পাকিস্থান সম্পর্ক নিয়ে আইসিসি বলল এই কথা

বিশ্বকাপের আগে ভারত-পাকিস্থান সম্পর্ক নিয়ে আইসিসি বলল এই কথা
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) আর বিশ্বকাপ ২০১৯ এর আয়োজন সমিতর এখনো বিশ্বাস রয়েছে যে ম্যানচেস্টারে ১৬ জুন...