ম্যাচ হারার পর ক্ষুব্ধ অশ্বিন বললেন এই কারণে ম্যাচে হেরেছেন, পরের ম্যাচে জেতার উপায়ও বের করে এই ক্রিকেটারকে দলে নেওয়ার কথা বললেন

গতকাল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের ঘরের মাঠে তাদের উপর রীতিমতো ব্যাটিং তান্ডব চালিয়ে ৩১ রানে ম্যাচ জিতল কলকাতা নাইট রাইডার্স। গত ম্যাচে ঘরের মাঠে হেরে যাওয়ার পর কেকেআরের কাছে এই ম্যাচ ছিল ডু অর ডাই, এবং সঠিক মুহুর্তে জ্বলে উঠল তারা। এই ম্যাচে দর্শকরা দু’ দলেরই ব্যাটসম্যানদের তান্ডব দেখতে পেয়েছিল, সেই তুলণায় বোলাররা ছিলেন খানিকটা নিষ্প্রভ। টস জিতে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেওয়া তাও এমন একটা পিচে যা বোলারদের বধ্যভূমি, তাদেরই বিপক্ষে যায় এবং কেকেআর ২৪৫ রানের পাহাড় প্রমান রান খাড়া করে দেয় যা এই মরশুমের সর্বোচ্চ টোটাল হয়ে দাঁড়ায় আইপিএলে।
ম্যাচ হারার পর ক্ষুব্ধ অশ্বিন বললেন এই কারণে ম্যাচে হেরেছেন, পরের ম্যাচে জেতার উপায়ও বের করে এই ক্রিকেটারকে দলে নেওয়ার কথা বললেন 1
কেকেআরের দুই ওপেনার সুনীল নারিস এবং ক্রিস লিন ছিলেন শুরু থেকেই মারমুখী, বিশেষ করে নারিন। এই দুজনে মিলে প্রথম উইকেট জুটিতে পঞ্চাশ রান তুলে দেন। ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান সুনীল নারিন এই মরশুমে তার দ্বিতীয় হাফ সেঞ্চুরি করেন মাত্র ২৬ বলে এবং শেষ পর্যন্ত ৩৬ বলে ৭৫ রান করে আউট হন। তারপর থেকে আর কলকাতাকে পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি এবং তারা ইচ্ছে মত রান তোলা শুরু করে। অন্যদিকে ২৪৫ রান রান তাড়া করতে নামা সবসময়ই কঠিন, কিন্তু কেএল রাহুল এবং ক্রিস গেইলের মত বিপক্ষ দলে ওপেনার থাকায় কেকেআরও শুরুতে খুব একটা নিশ্চিন্তে থাকতে পারে নি। এই দুজনেই শুরু থেকেই বিস্ফোরণ ঘটাতে শুরু করেন, এবং দ্রুত ৫০রানের পার্টনারশিপ খেলেন।
ম্যাচ হারার পর ক্ষুব্ধ অশ্বিন বললেন এই কারণে ম্যাচে হেরেছেন, পরের ম্যাচে জেতার উপায়ও বের করে এই ক্রিকেটারকে দলে নেওয়ার কথা বললেন 2
যদিও একই ওভারে গেইল এবং ময়ঙ্ক আগরওয়ালকে তুলে নিয়ে কিংসের ইনিংসকে বড় ধাক্কা দেন অ্যান্দ্রে রাসেল। কিন্তু পাঞ্জাব ইনিংসকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন কেএল রাহুল এবং শেষ পর্যন্ত ২৯ বলে ৬৬ রানের ইনিংস খেলেন। কিন্তু নবম ওভারে তাকে তুলে নেন সুনীল নারিন। যা ফের এই ম্যাচে কেকেআরকে ফেভারিট হিসেবে এগিয়ে দেয়। শেষ দিকে রবিচন্দ্রন অশ্বিনও বিধ্বংসী মেজাজে ব্যাট করে ২২ বলে ৪৫ রানের ইনিংস খেললেও কেকেআরের রান থেকে ৩১ রান দূরেই থেমে যেতে হয় পাঞ্জাবকে এবং তারা নির্ধারিত ২০ ওভারে ২১৪/ ৮ রান তুলতে পারে।
ম্যাচ হারার পর ক্ষুব্ধ অশ্বিন বললেন এই কারণে ম্যাচে হেরেছেন, পরের ম্যাচে জেতার উপায়ও বের করে এই ক্রিকেটারকে দলে নেওয়ার কথা বললেন 3
ম্যাচ শেষে ক্ষুব্ধ অশ্বিন নিজেদের মিডল অর্ডার নিয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়েন জানান, “ ২৪৫ রান বেশ খানিকটা বেশিই রানই ছিল। আমরা সত্যিই আমাদের পরিকল্পনাকে ঠিকমতো কাজে লাগাতে পারি নি। বোলাররা জাস্ট আগুনের আওতায় চলে আসে। শুরুর দিকেও ওরা খানিকটা এগিয়ে যায় এবং মাঝের ওভার গুলিতেও, যার মূল্য আমাদের শেষ দিকে চোকাতে হয়েছে। সঠিক জায়গায় ইয়র্কারও পড়ে নি। যখন দীনেশ এবং রাসেল ব্যাট করতে আসে, তখন আমাদের খানিকটা ওয়াইডার বল করার দরকার ছিল, এবং তারপর তা ইয়র্কারে বদল ঘটানোর প্রয়োজন ছিল। এটা পরিকল্পনা অনুযায়ী হয় নি, সত্যি বলতে কি এটা আমাদের দিন ছিল না। শুরুর দিকে মুজিবও আহত হয়ে যায়, এবং শুরুর দিকে গোটা দুই ব্যাটের কোণায় লেগেও বল চলে যায়।
ম্যাচ হারার পর ক্ষুব্ধ অশ্বিন বললেন এই কারণে ম্যাচে হেরেছেন, পরের ম্যাচে জেতার উপায়ও বের করে এই ক্রিকেটারকে দলে নেওয়ার কথা বললেন 4
যদি আমরা আরও একটু ভাল ব্যাট করতাম তাহলে এটা খুব ক্লোজ হতে পারত, যা হল তার থেকে। এটা খুবই ছোটো মাঠ, কিন্তু আমরা এটাকে এক্সকিউজ হিসেবে ধরতে চাই না। আমি বলতে পারি যে আমরা একটা ইন্টারেস্টিং সিচুয়েশনের মধ্যে পড়ে গিয়েছিলাম। চেষ্টা করার জন্য এখনও আমাদের হাতে যথেষ্ট ম্যাচ রয়েছে, এবং আমরা প্লে অফেও যেতে পারি। একটা পজিটিভ দিক হল আমরা কোনও ম্যাচেই হাত তুলে দিয়ে হারি নি। আমাদের জন্য চিন্তার বিষয় হয়ে আছে মিডল অর্ডার, যে কারণে আমরা ফিঞ্চকে নিয়েছিলাম। ও বল ভাল মারতে পারে। ও একজন ওয়ার্ল্ডক্লাস ব্যাটসম্যান এবং আমি নিশ্চিত যে ও পরের ম্যাচ গুলোতে আমাদের মিডল অর্ডারে দলের হাল ধরতে পারবে”।
ম্যাচ হারার পর ক্ষুব্ধ অশ্বিন বললেন এই কারণে ম্যাচে হেরেছেন, পরের ম্যাচে জেতার উপায়ও বের করে এই ক্রিকেটারকে দলে নেওয়ার কথা বললেন 5

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *