Virat Kohli captain of India celebrates his hundred during the 3rd One Day International match between India and New Zealand held at the Green Park stadium in Kanpur. 29th October 2017 Photo by Vipin Pawar / BCCI / SPORTZPICS

রাজকোটে ভারতের দ্বিতীয় ম্যাচ জিতে ৩ ম্যাচের টি২০ সিরিজ পকেটে পুরে ফেলার আশাকে হতাশায় পরিনত করল নিউজিল্যান্ড। এদিন রাজকোটে ভারতকে ৪০ রানে উড়িয়ে দিয়ে ৩ ম্যাচের সিরিজে সমতা ফেরাল তারা। টসের শুরু থেকে ম্যাচের শেষ বল পড়া অব্ধি কোনো কিছুই বিরাট কোহলির টিমের পক্ষে কার্যকর হল না। টস জিতে কিউয়ি অধিনায়কের আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্তকে সঠিক প্রমান করলেন দুই কিউয়ি ওপেনার। দুই ওপেনার কলিন মুনরো এবং মার্টিন গাপ্তিল ওপেনিং জুটিতে ১০৫ রানে যোগ করে অতিথি দলকে শুরুতেই দারুণ জায়গায় পৌঁছে দেন। গাপ্তিল ফিরে যাবার পর যদিও মহম্মদ সিরাজ কেন উইলিয়ামসকে সস্তায় আউট করায় নিউজিল্যান্ডের উপর চাপ বাড়ানোর একটা সুযোগ পেয়েছিল ভারত। কিন্তু মুনরোর ১০৯ রানের দুরন্ত ইনিংস ভারতের সেই আশাও শেষ করে দেয়। টি২০ ক্রিকেটে এই মুহুর্তে বিশ্বের এক নম্বর দল নির্ধারিত ২০ ওভারে উইকেটের বিনিময়ে ১৯৬ রান তুলে পাহাড়প্রমান লক্ষ্য রাখে ভারতের সামনে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই বিপদে পড়ে ভারত, যখন ভারতের দ্বিতীয় ওভারেই ফর্মে থাকা দুই ওপেনার রোহিত শর্মা ও শিখর ধবনকে দু অঙ্কের রানে পৌঁছনোর আগেই প্যাভিলিয়নে পাঠান ট্রেন্ট বোল্ট। ৫০ রান করে দলকে লড়াইতে রাখার চেষ্টা করেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। কিন্তু উলটো দিকের ব্যাটসম্যানদের কারো সাপোর্ট না পাওয়ায় তার কাজটা আরও শক্ত হয়ে পড়ে। দলের ৭ উইকেটে ১৫৬ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ৬৫ রানে আউট হন বিরাট। ম্যাচ শেষে কিউয়িদের রানকে ২০০ র নীচে বেঁধে রাখায় বোলারদের প্রশংসা করে বিরাট স্বীকার করে নেন যে এদিন ব্যাটম্যানরা কেউই সেই সুবিধাটা নিতে পারেন নি। বিরাট বলেন, “ আমি বলতে চাইছি নিউজিল্যান্ড দারুণ ব্যাট করেছে। একটা সময় আমরা ভেবেছিলাম ২২০-২৩০ রান হবে। এটা ভুবি এবং বুমরাহ কৃতিত্ব যে তারা রানটাকে ২০০ নীচে বেঁধে রেখেছিল। কিন্তু সত্যিটা এই যে আমরা ব্যাট হাতে ভাল কিছু করতে পারি নি। যখন আপনি ২০০ রান তাড়া করেন তখন সমস্ত ব্যাটসম্যানদেরই একটা ব্যাপার মাথায় রাখা উচিৎ। ২০০ রান তাড়া করতে গিয়ে কোনো একজনকে দায়িত্ব নিতে হয় স্ট্রাইক রোটেট করার ক্ষেত্রে। শেষের দিকে ধোনি দারুন খেলছিল, কিন্তু তার অনেক আগেই আমরা নিজেদের ম্যাচ থেকে হারিয়ে ফেলেছিলাম। এটা হয়েছে কারণ আমাদের ব্যাটসম্যানদের বড় শট খেলার প্রবণতা থেকে। এটা অধিকাংশ ব্যাটসম্যানের ক্ষেত্রেই ঘটেছে যে তারা স্ট্রাইক রোটেট না করে বড় শট খেলতে গিয়ে আউট হয়েছে। ইংনিসের মাঝ পথে তা করে ১৩-১৪ ওভারের পর থেকে বড় শট নিলে ম্যাচ আমাদের আয়ত্বের মধ্যেই থাকত। আমরা টসে হেরেছিলাম। ফলে আমরা কি চাইব সেটা আমাদের হাতে ছিল না। এই ম্যাচে আমরা কোনোভাবেই ভালো খেলতে পারিনি”।

  • SHARE
    সাংবাদিক, আদ্যন্ত ক্রীড়াপ্রেমী। দ্বিতীয় ডিভিসনে দীর্ঘদিন ক্রিকেট খেলার দরুণ ক্রিকেটের অন্ধ ভক্ত। ব্রায়ান লারা সচিনের অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের বাইরে ব্রাজিলের সমর্থক এবং নেইমার ও মেসির অন্ধ ভক্ত।

    আরও পড়ুন

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ
    বিশ্ব ক্রিকেটে এই মুহুর্তে তাদের মধ্যে চলছে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই। তা সত্ত্বেও এই দুজনের মধ্যে একে অপরকে সম্মান...

    তৃতীয় টি২০তে এই তারকার খেলা নিয়ে সন্দেহ

    পিটিআইয়ের একটি রিপোর্টের মোতাবিক তৃতীয় এবং ফাইনাল ওয়ান ডেতে জসপ্রীত বুমরাহের অংশ নেওয়া এখনও সন্দেহজন অবস্থায় রয়েছে।...

    বিশ্বকাপে ভারতীয় স্পিন বিভাগে কারা খেলবেন মুখ খুলনে নির্বাচক প্রধান

    বিশ্বকাপে ভারতীয় স্পিন বিভাগে কারা খেলবেন মুখ খুলনে নির্বাচক প্রধান
    ২০১৯ বিশ্বকাপের বাকি আর মাত্র দেড় বছর। তার আগে গত ২ বছর ধরেই দুরন্ত ফর্মে রয়েছে ভারতীয়...

    অনুষ্কাকে যাবতীয় কৃতিত্ব দিয়ে অবসর নিয়ে মুখ খুললেন কোহলি

    অনুষ্কাকে যাবতীয় কৃতিত্ব দিয়ে অবসর নিয়ে মুখ খুললেন কোহলি
    তার ব্যাটিং প্রতিভা নিয়ে সন্দেহ নেই কারও। সকলেই একবাক্যে স্বীকার করে নিয়েছেন যে তিনি ব্যাটিংয়ের জিনিয়াস। তামাম...

    প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে সদ্য সমাপ্ত একদিনের সিরিজে যে যে রেকর্ড গড়লেন ভারত অধিনায়ক বিরাট

    তার শ্রেষ্ঠত্ব মেনে নিয়েছে ক্রিকেট বিশ্বের সকলেই। বিশ্বের সর্বকালের সেরা একদিনের ক্রিকেটার হিসেবে তাকে মেনেও নিয়েছেন সকলে।...