সিডনিতে প্রেস কনফারেন্সের সময় বারবার ভেঙে পড়লেন স্মিথ

সিডনিতে প্রেস কনফারেন্সের সময় বারবার ভেঙে পড়লেন স্মিথ 1

অস্ট্রেলিয়া এবং ক্রিকেট বিশ্বকে কলঙ্কিত করা সাম্প্রতিক বল বিকৃতির ঘটনায় সিডিনিতে সাংবাদিক সম্মেলন করার সময় ভেঙে পড়লেন অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ। নিজের সংক্ষিপ্ত ভাষণে অস্ট্রেলীয় জনতার কাছে নিজের দোষের জন্য ক্ষমা চাইবার সময় বার বার ভেঙে পড়েন এই প্রাক্তন অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক। অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটের ভাবমূর্তিকে আঘাত করা সেই সঙ্গে ক্রিকেটের সংস্কৃতির সমূলে আঘাত করা এই ঘটনার সমস্ত দায় নিজের কাঁধেই নেন স্মিথ। সিডনিতে ওই সাংবাদিক সম্মেলনে স্মিথ বলেন, “ আমি কাউকেই এর জন্য দায়ী করছি না। আমি অস্ট্রেলীয় দলের অধিনায়ক। এটা আমার দেখ রেখেই ঘটেছে, তাই গত শনিবার যা ঘটেছে তার সম্পূর্ণ দায়ই আমার। ক্রিকেট বিশ্বের সর্বশ্রেষ্ঠ খেলা। এই খেলাটা আমার জীবন এবং আমি আশা করছি এটা আর কখনওই ঘটবে না”। স্পষ্টতই সঙ্কট জনক অবস্থায় থাকা স্মিথ দাবী জানিয়েছেন যে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার তার প্রতি নেওয়া সিদ্ধান্তের ফলে তিনি সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত হয়ে পড়েছেন।

সিডনিতে প্রেস কনফারেন্সের সময় বারবার ভেঙে পড়লেন স্মিথ 2

আগামি ১২ মাসের জন্য স্মিথ এবং ওয়ার্নার দুজনকেই অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট থেকে নির্বাসন দেওয়া হয়েছে। তাছাড়াও এই দুজনকে অধিনায়কত্ব পদ থেকেও ২ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সমস্ত অস্ট্রেলিয়াবাসি যারা হতাশ এবং ক্ষুব্ধ তাদের কাছে ক্ষমাও চান স্মিথ। ওই সাংবাদিক সম্মেলনে স্মিথ বলেন, “ আমি দুঃখিত এবং আমি সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত। এই ঘটানায় যদি ভালো কিছু হয়, যদি এই ঘটনা অন্যদের কাছে শিক্ষণীয় হয়, তাহলে আমি আশা করিতে পারি যে আমি সেই পরিবর্তনের জন্য একটা শক্তি হয়ে উঠব। আমি জানি এর জন্য সারা জীবন আমাকে আফসোস করতে হবে। আমি সম্পূর্ণভাবে নিরাশ। আমি আশা করছি সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আমি ক্ষমার পাশাপাশি আমার প্রতি শ্রদ্ধাও ফিরে পাব”। স্মিথ আরও জানান, “ আমি সম্পূর্ণ দায় নিচ্ছি… এই ঘটনায় আমার নেতৃত্বে নেতৃত্বের ব্যর্থতা রয়েছে। আমার ভুল শুধরে নেওয়ার, এবং এর কারণে যা ক্ষতি হয়েছে তা ঠিক করতে আমি সমস্ত কিছুই করব যা আমার পক্ষে সম্ভব। আমার সমস্ত সতীর্থ, সারা বিশ্বের ক্রিকেট ভক্তরা এবং সমস্ত অস্ট্রেলিয়ান যারা হতাশ এবং ক্ষুব্ধ, আমি তাদের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *