ভারত শ্রীলঙ্কা সিরিজ : চোট সারিয়ে দলে ফিরলেন তারকা খেলোয়াড় 1

ভারতের বিরুদ্ধে কঠিন সফরের আগে চোট আঘাতে জর্জরিত শ্রীলঙ্কা দলে খুশির খবর। চোট সারিয়ে দলে ফিরছেন তাদের প্রাক্তণ অধিনায়ক ও অলরাউন্ডার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ। এ বছরেই চোটের জন্য দল থেকে বাদ পড়েছিলেন তিনি। কাফ মাসলে গুরুতর চোটের কারণে পাকিস্থানের বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক সিরিজেও দলে ছিলেন না। হ্যামস্ট্রিং ও বুড়ো আঙুলে চোটের কারণে বাদ পড়া অন্য দুই ক্রিকেটার কুশল পেরেরা ও অ্যাসেলা গুণরত্নেও চোট সারিয়ে ফিরছেন দলে। এ মাসেই শ্রীলঙ্কা দল আসছে পূর্ণাঙ্গ ভারত সফরে। তার আগে ওই তিন ক্রিকেটারের আঘাত সারিয়ে দলে ফেরার খবরে স্বভাবতই মনোবল বাড়িয়ে দেবে তাদের। শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট প্রধান অ্যাসলে ডি’সিলভা বলেন, ‘ অ্যাঞ্জেলো এবং কুশল জেনিথ (পেরেরা) দুজনেই আপাতত সুস্থ। দুজনকেই ভারতের বিরুদ্ধে দলে রাখা হয়েছে। চোট সারিয়ে দলে ফিরছেন গুণরত্নেও।ভারত শ্রীলঙ্কা সিরিজ : চোট সারিয়ে দলে ফিরলেন তারকা খেলোয়াড় 2
প্রসঙ্গত এ বছর পাকিস্থানের বিরুদ্ধে ৫টি ওয়ান ডে ও তিনটি টি২০ ম্যাচের সিরিজে হোয়াইট ওয়াশ হওয়ার পর দুটি টেস্ট জেতায় সাময়িকভাবে শ্রীলঙ্কার পতন রক্ষা পেয়েছিল। ভারতের বিরুদ্ধে তাদের জন্য অবশ্য আরও কঠিন চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করে আছে। শ্রীলঙ্কার অন্তবর্তীকালীন প্রধান কোচ নিক পোথাস বলেন, ‘ শ্রীলঙ্কার ড্রেসিং রুমের মেজাজ পরিবর্তনে দলের নতুন মুখেরা অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। ১৬টা ম্যাচ হারার পর ড্রেসিং রুমের মেজাজ কেমন হবে তা অবশ্যই সুস্পষ্ট’। তিনি আরও বলেন, ‘নির্বাচকদের সঙ্গে কথা বলেই আমরা ঠিক করেছি নতুনদের উপর ভরসা দেখাতে হবে। আমি মনে করি জীবনের যে কোনো ক্ষেত্রেই যখন আপনি নেতিবাচক ফলাফল পাচ্ছেন, তখন কোথাও কিছু পরবর্তন জরুরী হয়ে পড়ে। সকলে মনে করিয়ে দেওয়া দরকার টেস্ট সিরিজে আমরা ইতিহাস সৃষ্টি করেছি। সংযুক্ত আরব অমরশাহীতে আমরা যা করেছি এর আগে আর কোনো দেশ তা করতে পারেনি। কিন্তু ওয়ান ডে সিরিজে খারাপ খেলায় অনেকেই তা ভুলে গেছেন। তবে টেস্ট সিরিজের জন্য অবশ্যই দল এবং অধিনায়ককে কৃতিত্ব দিতে হবে’।ভারত শ্রীলঙ্কা সিরিজ : চোট সারিয়ে দলে ফিরলেন তারকা খেলোয়াড় 3
পোথাস দ্রুত মনে করিয়ে দেন পাকিস্থান সিরিজে দলের পজিটিভ দিকগুলির কথাও। তিনি বলেন, ‘সামগ্রিকভাবে পুরো পাকিস্থান সিরিজ জুড়েই আমাদের খেলায় প্রচুর ইতিবাচক দিক ছিল। আমাদের দলের ফিল্ডিং সাইড আগের থেকে অনেক উন্নত হয়েছে এই সিরিজে। যা অবশ্যই দলের জন্য আশা জনক। বোলিংয়েও যথেষ্ট শক্তিশালী দেখিয়েছে আমাদের। আমাদের পরিকল্পনাগুলোও ঠিকঠাকভাবে কার্যকর করা গেছে। যা দলের পক্ষে যথেষ্ট স্বস্তিদায়ক। অবশ্য ব্যাটিংয়ের ক্ষেত্রে আমাদের পরিকল্পনাগুলো ঠিকঠাক খাটেনি। এটাই ক্রিকেট দুনিয়া। অন্য টিমগুলিও ভালো খেলতে এসেছে। পাকিস্থানের বোলিং অ্যাটাক বিশ্বসেরা। ওদের বিরুদ্ধে খেলা সবসময়েই কঠিন। আমি মনে করি টেস্ট সিরিজ জেতার সঙ্গে সঙ্গে পুরো সফর জুড়েই আমরা যথেষ্ট ভালো ক্রিকেট খেলেছি। দলের মনোভাব, চরিত্র এবং লড়াকু মানসিকতা যথেষ্ট প্রশংসনীয়”

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *