ভারতীয় ক্রিকেট দলের ভয়ডরহীন মনোভাব আমদানি করেছেন সৌরভ গাঙ্গুলী : মাইকেল ক্লার্ক 1

ভারতীয় দলের রিজার্ভ বেঞ্চের প্রশংসা করলেন প্রাক্তন অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক। সেই সঙ্গে ক্লার্কের ধারণা যে যদি ভারতীয় দল একদা সৌরভের আমদানি করা মনোভাব ধরে রাখতে পারে তাহলে আগামি বেশ কয়েক বছর ভারতকে হারানো কঠিন হতে পারে। যা নিয়ে ক্লার্কের বক্তব্য, “ এক বছরের জন্য নয়, আগামি ৫-১০ বছরের জন্য বিশ্বসেরা দল হয়ে ওঠার হুমকি দিচ্ছে ভারতীয় দল। কারণ এই দলের গভীরতা অনেক বেশি এবং তাদের রিজার্ভ বেঞ্চও যথেষ্ট শক্তিশালী। ভারত একটি অসাধারণ ক্রিকেট দল, বিশেষ করে একদিনের ক্রিকেটে। ইংল্যান্ডের পরিস্থিতির সঙ্গে তারা মানিয়ে নিতে সক্ষম হবে। টেস্টের জন্য ইংল্যন্ডের উইকেট আলাদা হবে, এবং ওখানে বিশ্বকাপের জন্য ব্যাটিং উইকেটই থাকবে। যদি তারা তাদের মনোভাব ঠিকভাবে ধরে রাখতে পারে তাহলে এই দলকে হারানো মুশকিল হবে”।

ভারতীয় ক্রিকেট দলের ভয়ডরহীন মনোভাব আমদানি করেছেন সৌরভ গাঙ্গুলী : মাইকেল ক্লার্ক 2

একটি বিশেষ ঘটনার কথা উল্লেখ করেন মাইকেল ক্লার্ক যেখানে সৌরভ অধিনায়ক রিকি পন্টিংকে মুখের উপর জবাব দেন একটি বার্তা পাঠিয়ে যে তাদের আর অস্ট্রেলীয়দের দিয়ে ভয় দেখানো যাবে না। এ প্রসঙ্গে ক্লার্ক বলেন, “টসের সময় একবার তিনি হেড টেল দুটোই বলেন, এবং আগে ব্যাট করতে চেয়ে ৫০০ রানে পাহাড় প্রমান স্কোর খাড়া করেন। সেই সময় আমাদের অধিনায়ককে দিশাহীন করে দিয়ে একটি বার্তা পাঠান যে তাদের আর ধমকানো যাবে না। তিনি ভারতীয় দলে ভয়ডরহীন মনোভাব তৈরি করার জন্যও কৃতিত্বের অধিকারী”। সীমিত ওভারের ক্রিকেট থেকে বাদ পড়ায় অশ্বিনেরও পাশে দাঁড়িয়েছেন মাইকেল ক্লার্ক।

ভারতীয় ক্রিকেট দলের ভয়ডরহীন মনোভাব আমদানি করেছেন সৌরভ গাঙ্গুলী : মাইকেল ক্লার্ক 3

তিনি বলেন, “ নেতৃত্বের পরিস্থিতিতে কখনও কখনও আপনাকে কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হয় আপনার নিজের দলের ভাবনার উপর নির্ভর করে। যখন আপনি দলে কাউকে জায়গা দেন তখন তা থেকেই অনেকে আত্মবিশ্বাস পেয়ে যায়, কারণ আপনি তাদের দলে নির্বাচন করেন। কিন্তু কাউকে কাউকে আপনাকে বাদও দিতে হয়। যা খুবই কঠিন কারণ তাদের আপনি এই কারণে বাদ দেন না যে তারা খারাপ প্লেয়ার”। ক্লার্ক আরও জানান, “ আমার বিশ্বাস অশ্বিন এবং জাদেজা দুজনেই অনেক কৃতিত্বেরই অধিকারী, কারণ এটা তারা চ্যালেঞ্জ হিসেবেই নিয়েছেন। এখন আপনি অশ্বিনকে দেখুন ও সবসময়ই সামনে থেকে দাঁড়িয়ে দুর্দান্ত বল করেন এবং এখনও ডানহাতি ব্যাটসম্যানদের লেগ স্পিনও করছেন। নিজের খেলার উন্নতি করার সঠিক মনোভাব নিয়ে ও অনেকদূর এগিয়ে গেছে এবং ভারতীয় দলেও ফিরে এসেছে। ও কি করে বা না করে সেটা প্রাসঙ্গিক নয় তবে বাস্তব হল যে ওরা উন্নতি করার চেষ্টা করে চলেছে আরও ভাল খেলে ভারতীয় ক্রিকেটকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য”

ভারতীয় ক্রিকেট দলের ভয়ডরহীন মনোভাব আমদানি করেছেন সৌরভ গাঙ্গুলী : মাইকেল ক্লার্ক 4

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *