বিস্কোরক গেইল: আরসিবি আমাকে রিটেন করার কথা বলেছিল কিন্তু তারপর আর যোগাযোগ করে নি: গেইল

চলতি মরশুমে দারুণ খারাপ ফলাফলের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। অন্যদিকে ক্রিস গেইল, কেএল রাহুল, শেন ওয়াটসনের মত প্লেয়াররা যারা এই ফ্রেঞ্চাইজির প্লেয়ার ছিলেন গত বছর দুরন্ত পারফর্মেন্স করেছিলেন এই ফ্রেঞ্চাইজির জন্য। যদিও আরসিবির এ বছরও ভালই ব্যাটিং অর্ডার রয়েছে কিন্তু তাদের বোলিং বিভাগ এই মরশুমে তাদের জন্য ফ্লপ শোয়ের কারণ হয়ে রয়েছে। এ বছর দুরন্ত ফর্মে রয়েছেন ক্রিস গেইল, যিনি মাত্র চারটি ম্যাচে ২৫২ রান করেছেন। এই ক্যারিবিয়ান দৈত্য চলতি আইপিএলের নিলামে প্রথম দু রাউণ্ডে অবিক্রীতই থেকে গেছিলেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব তাকে তার বেস প্রাইসে কিনে নেওয়ার আগে। সম্প্রতি একটি সর্বভারতীয় দৈনিককে দেওয়া সাক্ষাৎকারে গেইল আইপিএলের সবচেয়ে বড় সত্যের উদ্বঘাটন করেছেন।
বিস্ফোরক গেইল: আরসিবি আমাকে রিটেন করার কথা বলেছিল কিন্তু তারপর আর যোগাযোগ করে নি: গেইল 1
আমাকে বলা হয়েছিল রিটেন করা হবে, কিন্তু পরে ওরা আর কল করে নি

গত বছর তার খারাপ ফর্মের জন্য কেউই আশা করে নি যে গেইলকে দলে রাখা হবে। যদি গেইল মনে করেন তাদের তরফ থেকে ঠিক হয় নি তাকে ভুল বার্তা দেওয়া। তাকে কথা দিয়েও রিটেন না করায় আরসিবির প্রতি নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন গেইল। ওই সাক্ষাৎকারে গেইল জানিয়েছেন, “ আমি ওদের সবচেয়ে বড় প্লেয়ার ছিলাম। ওদের তরফ থেকে এটা সত্যিই হতাশার ছিল, কারণ ওরা আমাকে কল করেছিল। ওরা চেয়েছিল আমি দলে থাকি, এবং আমাকে বলা হয়েছিল যে আমাকে রিটেনড করা হবে। কিন্তু তারপর ওরা আর আমাকে কল করে নি। তাই এটা আমাকে একটা ছবি দিয়েছিল যে ওরা আমাকে চায় এবং সেটা ঠিক আছে”।
বিস্ফোরক গেইল: আরসিবি আমাকে রিটেন করার কথা বলেছিল কিন্তু তারপর আর যোগাযোগ করে নি: গেইল 2
সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরি, বেশি ছয়, যদি সেটা ব্র্যাণ্ড ক্রিস গেইলের ছাপ দিতে না পারে, জানি না আর কি দিতে পারে

গেইল তার ফর্ম বিপিএলে তুলে ধরেছেন। এই বাঁহাতি বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান ওই প্রতিযোগিতা চলাকালীন ৪৮৫ রান করেছিলেন, এবং শেষ করেছিলেন সর্বোচ্চ রান স্কোরার হিসেবে। এমনকী সিপিএলেও, অসাধারণ ৬২.67 গড় নিয়ে ৩৭৬ রান করে তিনি তৃতীয় সর্বোচ্চ রান স্কোরারও হয়েছিলেন। যা নিয়ে গেইল জানাচ্ছেন, “ আমি যা বলেছিলাম, আমি কারও সঙ্গে লড়াই করতে পারি না। আমার মনে হয় আমি সিপিএল এবং বিপিএলে আমি দুর্দান্ত ছিলাম, যেখানে আমি আমার দল রংপুর রাইডার্সের হয়ে দুটি সেঞ্চুরিও করেছি। পরিসংখ্যান কখনও মিথ্যে বলে না। ২১টি সেঞ্চুরি, সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ছয়। যদি এটা ক্রিস গেইলের ব্র্যান্ডের উপর ছাপ মারতে না পারে, তাহলে আমি জানি না আর কিসে হতে পারে”। যেখানে এই মুহুর্তে যদিও আরসিবির ম্যানেজমেন্ট তাকে ছেড়ে দেওয়ার জন্য আফসোস করতে পারে, সেখানে নিশ্চিতভাবেই কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব শিবিরে যথেষ্টই খুশির ছাপ রয়েছে। কারণ কেএল রাহুল এবং ক্রিস গেইলের রূপে তাদের একটি দুর্দান্ত ওপেনিং জুটি লাভ হয়েছে। এই ইউনিভার্স বস তাদের হয়ে প্রথম আইপিএল খেতাব জেতার দিকে লক্ষ্য রেখেছেন, এখন দেখার এটা কতদূর এগোতে পারে।
বিস্ফোরক গেইল: আরসিবি আমাকে রিটেন করার কথা বলেছিল কিন্তু তারপর আর যোগাযোগ করে নি: গেইল 3

Leave a comment

Your email address will not be published.