প্রাক্তন ইংল্যান্ড ব্যাটসম্যান জোনাথন ট্রট ২০১৮র ঘরোয়া মরশুম শেষে অবসর নেওয়ার কথা ঘোষণা করলেন 1

মঙ্গলবার (৩ মে) প্রাক্তন ইংল্যান্ড ব্যাটসম্যান জোনাথন ট্রট ঘোষণা করলেন যে ২০১৮র ঘরোয়া মরশুম শেষে তিনি তার বুট তুলে রাখবেন। এই ওয়ারউইকশায়ারের তারকা ২০০২ সাল থেকে এই ক্লাবের হয়ে খেলছেন। ২০১০-১১ মরশুমে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ইংল্যান্ডের বিখ্যাত অ্যাসেজ সিরিজ দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। এছাড়াও ২০১১য় তিনি ইংল্যান্ডকে সাহায্য করেছিলেন আইসিসি টেস্ট র্যাসঙ্কিয়ে এক নম্বরে উঠে আসতে। ২০০৯ এর অ্যাসেজ সিরিজের শেষ টেস্টে তিনি দুর্দান্তভাবে নিজের ক্রিকেট কেরিয়ার শুরু করেছিলেন সেঞ্চুরি করে। এবং ধারাবাহিকভাবে রান করায় তিনি জাতীয় দলে নিজের জায়গা তিন নম্বর স্থানে পাকা করেন। সব মিলিয়ে তিনি ইংল্যান্ডের হয়ে ৫২টি টেস্টে প্রতিনিধিত্ব করে ৯টি সেঞ্চুরি এবং ১৯টি হাফসেঞ্চুরির সাহায্যে ৩৮৩৫ রান করেন। এছাড়াও তিনি ইংল্যান্ডের হয়ে ৬৮টি ওয়ান ডে ম্যাচেও প্রতিনিধিত্ব করেন যাতে তার গড় ছিল দুর্দান্ত ৫১.২৫। যদিও তাকে দ্রুত গতির খেলার জন্য সমালোচনার শিকার হতে হয়। ওয়ানডেতে তিনি প্রায় তিন হাজারের কাছাকাছি রান করেন ৪টি সেঞ্চুরি এবং ২২টি হাফ সেঞ্চুরির সাহায্যে। ট্রটের সংক্ষিপ্ত কিন্তু প্রভাবশালী আন্তর্জাতিক কেরিয়ার শেষ হয় খুবই অশুভভাবে। অস্ট্রেলিয়ায় ২০১৩-১৪ মরশুমের অ্যাসেজ সিরিজ চলাকালীন ব্রিসবেনে প্রথম টেস্ট খেলার পরেই তিনি দেশে ফিরে আসেন একটি স্ট্রেস সম্পর্কিত অসুখের জন্য। ফের ২০১৫য় ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে তিনি দলে একজন ওপেনার হিসেবে ফিরে আসেন, কিন্তু তার ফর্মের কারণে তাকে সংঘর্ষ করতে দেখা যায়।
প্রাক্তন ইংল্যান্ড ব্যাটসম্যান জোনাথন ট্রট ২০১৮র ঘরোয়া মরশুম শেষে অবসর নেওয়ার কথা ঘোষণা করলেন 2
এবং ওই সফরের পরই তাকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে দেখা যায়। তারপর থেকেই তিনি ওয়ারউইকশায়ারের হয়ে খেলতে শুরু করেন। শেষ দুটি মরশুমের তিনি প্রত্যেকটা মরশুমে হাজারের উপরে রান করেন, যদিও তিনি কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপের দ্বিতীয় ডিভিশনে কাউন্টির রেলিগেশনকে আটকাতে ব্যর্থ হন। সবমিলিয়ে তিনি প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে ১৭ হাজারের ওপরে রান করেন এবং আরও বেশ কিছু রান যোগ করার দিকে তাকিয়ে রয়েছেন।
প্রাক্তন ইংল্যান্ড ব্যাটসম্যান জোনাথন ট্রট ২০১৮র ঘরোয়া মরশুম শেষে অবসর নেওয়ার কথা ঘোষণা করলেন 3
এ প্রসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, “ আমি সৌভাগ্যবান যে ওয়ারউইকশায়ার এবং ইংল্যান্ডের হয়ে দারুণ কেরিয়ার উপভোগ করেছি এবং আমার সতীর্থ ক্রিকেটার, কোচ এবং ম্যানেজমেন্ট যাদের সঙ্গে আমি কাজ করেছি তাদের কাছে থেকে পাওয়া সমস্ত সহযোগিতার জন্য আমি কৃতজ্ঞ। মরশুমের শেষে অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া এমন একটা ব্যাপার যা আমি আমার পরিবারের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে আলোচনা করেছি। এবং এটাই সঠিক সময় আমার কেরিয়ারের পরবর্তী অধ্যায়ের দিকে নজর দেওয়ার। ওয়ারউইকশায়ার সিসিসি ভীষণই স্পেশাল একটা ক্লাব এবং আমার সম্পুর্ণ কেরিয়ারে বিয়ার এবং রেগার্ড স্টাফ পরার জন্য আমি ভীষণই গর্বিত। ২০১৮ মরশুমে আমরা দারুণ শক্তিশালী শুরুয়াত করেছি এবং একজন প্লেয়ার হিসেবে এজবাস্টনে আমার শেষ বছরে আমি আশা করছি দলের সাফল্যে যত বেশি সম্ভব যোগদান করতে পারব”। ওয়ারউইকশায়ারকে দুবার কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপ জিততে সাহায্য করেছেন ট্রট ২০০৪ এবং ২০১২য়। এছাড়াও ২০১৪য় তিনি তাদের দুটি ওয়ান ডে ট্রফি এবং টি২০ খেতাব জিততেও সাহায্য করেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *