পুনে ম্য়াচের পিচ কিউরেটরকে নির্বাসিত করার দাবি জানালেন আজহার 1
Kolkata: Indian wicket keeper M.S.Dhoni inspecting the pitch during the practice session ahead of the 3rd ODI against England at Eden Garden in Kolkata on Saturday. PTI Photo by Swapan Mahapatra(PTI1_21_2017_000088B)

মহারাষ্ট্রের পুনে ক্রিকেট স্টেডিয়ামের পিচ কিউরেটর পান্ডুরঙ্গ সালগাঁওকরকে নির্বাসিত করার দাবি জানালেন ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক মহম্মদ আজহরউদ্দিন। বেসরকারি সংবাদমাধ্য়ম ইন্ডিয়া টুডের স্টিং অপারেশনে ধরা পড়েছে, মহারাষ্ট্র ক্রিকেট অ্য়াসোসিয়েশন (এসমিএ)-এর ওই পিচ কিউরেটর বুধবার (২৫ অক্টোবর) ভারত-নিউজিল্য়ান্ডের মধ্য়ে দ্বিতীয় একদিনের আন্তর্জাতিক ম্য়াচ যে পিচে খেলা হবে, ইচ্ছা করে সেই পিচের বাউন্সের তারতম্য ঘটানোর জন্য ষড়যন্ত্র করার পাশাপাশি পিচ সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য় ফাঁস করছে। এই ঘটনা সামনে আসার পরই প্রাথমিক ব্য়বস্থা গ্রহণ হিসেবে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) সালগাঁওকরের বুধবার মাঠে ঢোকার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। ভালোয় ভালোয় ম্য়াচ আয়োজন হয়ে যাওয়ার পর তার বিরুদ্ধে ব্য়বস্থা নেবে বিসিসিআই। কিন্তু, আজহার চাইছেন, ওই পিচ কিউরেটরকে এই জঘন্য় কাজ করার জন্য় পুরোপুরি ব্য়ান করা হোক।

ইন্ডিয়া টুডে সংবাদমাধ্য়মকেই দেওয়া সাক্ষাৎকারে আজ্জু বলেন, এই ধরণের ঘটনা ঘটা, অত্য়ন্ত দুঃখজনক ব্য়াপার। (ম্য়াচের আগে) পিচের কাছে কাউকে যেতে দেওয়া উচিত নয়। ম্য়াচের ওপর এর বড় প্রভাব পড়তে পারে। জানি না, কোন ধরনের উইকেট অপেক্ষা করছে ম্য়াচ করানোর জন্য়। ওই কিউরেটরকে অবিলম্বে নির্বাসিত করা দেওয়া উচিত ছিল এবং তদন্ত করা উচিত এনিয়ে সঙ্গে সঙ্গে। প্রাথমিক প্রতিক্রিয়া কিভাবে দিতে হয় জানি না। কিন্তু, তদন্ত হওয়া উচিত এনিয়ে। এই কেলেঙ্কারি সামনে আসার পর আশা করি, এমসিএ, বিসিসিআই এবং এসিএসইউ (দুর্নীতি-দমন শাখা) একসঙ্গে কাজ করবে এই ঘটনার তদন্তের ব্য়াপারে।পুনে ম্য়াচের পিচ কিউরেটরকে নির্বাসিত করার দাবি জানালেন আজহার 2

বিসিসিআই ও মহারাষ্ট্র ক্রিকেট অ্য়াসোসিয়েশন একযোগে জানিয়েছে, কড়া ব্য়বস্থা নেওয়া হবে এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে। বোর্ডের যুগ্ম-সচিব অমিতাভ চৌধুরী বলেছেন, ভারতীয় বোর্ড দুর্নীতির বিষয় একদম বরদাস্ত করবে না এবং তিনি এব্য়াপারে ইন্ডিয়া টুডে সংবাদমাধ্য়মকে আশ্বস্ত করছেন, সালগাঁওকরকে কড়া শাস্তির মুখে পড়তে হবে।

স্টিং অপারেশনে দেখা গিয়েছে, ইন্ডিয়া টুডের সাংবাদিকরা বুকির ছদ্দবেশে সালগাঁওকরের সামনে উপস্থিত হয়ে তার কাছে বুধবারের ভারত-নিউজিল্য়ান্ড একদিনের আন্তর্জাতিক ম্য়াচ সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য় জানতে চান। ক্য়ামেরায় ওই পিচ কিউরেটরকে বলতে শোনা যায়, এমসিএর মাঠে যে পিচে খেলা হবে, ওই পিচে প্রচুর রান উঠবে। এমনকী, ৩৩৭ রানের মতো স্কোরও চেজ করা যাবে।পুনে ম্য়াচের পিচ কিউরেটরকে নির্বাসিত করার দাবি জানালেন আজহার 3

এখানে উল্লেখ্য়, বিসিসিআই এবং আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থা (আইসিসি)-র নিয়ম অনুযায়ী ম্য়াচ অফিসিয়াল ছাড়া অন্য় কোনও ব্য়ক্তি আন্তর্জাতিক ম্য়াচের আগে পিচের কাছে যেতে পারবেন না পিচ পরীক্ষা করতে। কিন্তু, ক্য়ামেরায় ধরা পড়েছে, সালগাঁওকর বুকি সেজে থাকা সাংবাদিকদের পিচ দেখার বন্দোবস্ত করে দিচ্ছে। শুধু তাই নয়, তাকে একথা বলতেও শোনা যায়, বিসিসিআইয়ের নিয়ম নেই, ম্য়াচ অফিসিয়াল ছাড়া অন্য় কোনও ব্য়ক্তির ম্য়াচের আগে পিচের কাছে আসার। বুকি সেজে থাকা সাংবাদিকরা এরপর তাকে বলেন, কিছু কিছু ক্রিকেটার পিচে বাউন্স চাইছে। তা শোনার পর সালগাঁওকর উত্তর দেয়, ব্য়বস্থা করে দেওয়া যেতে পারে চাইলে। সেই সঙ্গে সে এই কথাও ফাঁস করে, এই পিচে সাড়ে তিনশো রান হলেও চেজ করতে নামলে তা অনায়াসে তুলে ফেলা যাবে। উইকেট একেবারে ব্য়াটসম্য়ানদের স্বর্গ।

পুনে ম্য়াচের পিচ কিউরেটরকে নির্বাসিত করার দাবি জানালেন আজহার 4
Kolkata: Indian wicket keeper M.S.Dhoni inspecting the pitch during the practice session ahead of the 3rd ODI against England at Eden Garden in Kolkata on Saturday. PTI Photo by Swapan Mahapatra(PTI1_21_2017_000088B)

স্টিং অপারেশনের প্রেক্ষিতে বিসিসিআইয়ের অস্থায়ী সভাপতি সিকে খান্না জানান, ঘটনাটি আমাদেরও নজরে এসেছে। আমরা বিস্তারিত তথ্য় জোগাড় করার চেষ্টা করছি। এত আগে থেকে সাজা ঘোষণা করে দেওয়া যাবে না। তবে, কোনও রকম দুর্নীতি সহ্য় না করার যে নীতি নেওয়া হয়েছে, সেই অনুয়ায়ী ওই পিচ কিউরেটকে কড়া শাস্তি দেওয়া হবে, যদি দোষি প্রমাণিত হয়। বোর্ড জানিয়েছে, সব সদস্য় সংস্থার কর্মচারীদের নিয়ম সম্পর্কে ওয়াকিবহাল থাকার কথা। সেই কারণে এই ধরণের কাজ একেবারেই বরদাস্ত করা হবে না। শাস্তি পেতেই হবে।পুনে ম্য়াচের পিচ কিউরেটরকে নির্বাসিত করার দাবি জানালেন আজহার 5

শেষবার ভারত পুনে স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক ম্য়াচ খেলেছিল অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে। ওই টেস্ট ম্য়াচে তৃতীয় দিনের খেলার চা-বিরতির পরের শেসনে আটটি উইকেট পড়ে। তারপর আইসিসি পুনের পিচকে খুব জঘন্য় পিচের তকমা দেয়। সে সম্পর্কে যখন একটি বেসরকারি সংবাদমাধ্য়ম সালগাঁওকরকে জানতে চেয়েছিল, সে সময় নিয়মের কথা মাথায় রেখে সে জানিয়েছিল, আমি নিশ্চিত এবার সেরকম কোনও ঘটনা ঘটবে না। ভালো পিচে খেলা হব। এর বেশি কিছু বলতে পারব না। কারণ, সেই এক্তিয়ার আমার নেই।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *