ধোনি নিন্দুকদের বিরুদ্ধে গর্জে উঠলেন বিরাট - যা বললেন দেখে নিন 1

নিউজিল্য়ান্জের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজ জিতে নেওয়ার পরই ধোনি নিন্দুকদের নেতিবাচক সমালোচনার প্রতিবাদে গর্জে উঠলেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তিনি পাল্টা প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন, প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকে নিয়ে এত সমালোচনা করার কি আছে? ভারতীয় দলের প্রথম একাদশে ধোনির জায়গা নিয়েই বা কেন প্রশ্ন উঠছে এতো?

বিরাট বলেন, আমি বুঝতে পারছি না, সবকিছুর জন্য় লোকে ওকেই কেন বেছে নিচ্ছে! ব্য়াটসম্য়ান হিসেবে আমি তিনবার ব্য়র্থ হলে, কেউ আঙুল তোলে না। কেন আমার পঁয়ত্রিশ বছর হয়নি বলে নাকি? মানুষটা যথেষ্ট ফিট, সব টেস্ট পাশ করে তবেই দলে এসেছে। মাঠের মধ্য়ে দলকে যতরকমভাবে সাহায্য় করা যায়, তাও করে চলেছে। শ্রীলঙ্কা ও অস্ট্রেলিয়া সিরিজে ব্য়াটহাতে ও খুব ভালো খেলেছিল।ধোনি নিন্দুকদের বিরুদ্ধে গর্জে উঠলেন বিরাট - যা বললেন দেখে নিন 2

ধোনির সমালোচক ও নিন্দুকদের উদ্দেশে ভারত অধিনায়ক আরও বলেন, এই সিরিজে এমএস সেভাবে ব্য়াট করারই সুযোগ পায়নি। আপনাদের তো এটাও বুঝতে হবে, ও কোন পরিস্থিতিতে ব্য়াট করতে নামে। ওই ম্য়াচে হার্দিক পান্ডিয়াও তো রান করতে পারেনি। তাহলে, আপনারা একজনকেই কেন নিশানা করছেন (নেতিবাচক) সমালোচনার জন্য়? শুধুমাত্র একজনকে দায়ী করে চলেছেন? হার্দিক রাজকোটে অনেক কম রানে আউট হয়ে গিয়েছিল। আপনারা একজনকেই ক্রমাগত দায়ী করে চলেছেন, এটা ঠিক কথা নয়।

রাজকোটে সিরিজের দ্বিতায় টি-২০ ম্য়াচে ৩৭ বলে ৪৯ রান করে আউট হন ধোনি। ভারত ম্য়াচটি শেষ পর্যন্ত ৪০ রানে হারে। ওই ইনিংসে ধোনি বেশি কয়েকটি ডট বল খেলেন। ম্য়াচের পর ভারতের তিন প্রাক্তন ক্রিকেটার আকাশ চোপড়া, অজিত আগরকর এবং ভিভিএস লক্ষ্মণ এরপর ছত্রিশ বছরের প্রাক্তন অধিনায়কের বয়স নিয়ে সমালোচনা করে খেলা ছাড়ার পরামর্শ দেন।ধোনি নিন্দুকদের বিরুদ্ধে গর্জে উঠলেন বিরাট - যা বললেন দেখে নিন 3

সে প্রসঙ্গে ঊনত্রিশ বছরের বিরাট বলেন, ও যখন ক্রিজে নামে, তখন রান রেট সাডে আট-সাড়ে নয়ের ওপরে চলে গিয়েছিল এনমিতেই। নতুন বলে বল করার সময় উইকেট যেমন আচরণ করছিল, তখন তেমন ছিল না। টপ অর্ডারের কোনও ব্য়াটসম্য়ান সেট হয়ে গেলে, সে সহজে রান করতে পারে। লোয়ার অর্ডারের ব্য়াটসম্য়ানদের পক্ষে কাজটা অত সহজ নয়। যে ধরণের উইকেটে আমরা ওই ম্য়াচে খেলেছি, তাতে বলতে পারি, উইকেট পরের দিকে অনেক কঠিন হয়ে এসেছিল রান করার ক্ষেত্রে।

আপনাদের সবকিছু বিবেচনা করতে হবে। টিম মেম্বার ও ম্য়ানেজমেন্টের অঙ্গ হিসেবে আমরা সবকিছু বিবেচনা করি। কোন পরিস্থিতিতে কে ব্য়াট করতে নেমেছিল! কি ধরনের উইকেট ছিল! সবকিছুই তাতে বিবেচনায় আনা হয়। কে কোন দিক নিয়ে কথা বলছে, সমালোচনা করছে – আবেগ আর উত্তেজনা দিয়ে সেসব কথাকে আমরা বিবেচনা করি না। উইকেটের কেমন আচরণ করেছে এবং পরিস্থিতি কেমন ছিল, সেসব নিয়ে বিবেচনা করা উচিত সবকিছু।ধোনি নিন্দুকদের বিরুদ্ধে গর্জে উঠলেন বিরাট - যা বললেন দেখে নিন 4

নিউজিল্য়ান্ডের বিরুদ্ধে তিন ম্য়াচের টি-২০ সিরিজে ধোনির রান যথাক্রমে ৭*, ৪৯* এবং ০*। তার আগে তিন ম্য়াচের ওয়ান-ডে সিরিজে প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের সংগ্রহ ২৫, ১৮* এবং ২৫ রান।

২০১১ বিশ্বকাপজয়ী ভারত অধিনায়কের পাশে দাঁড়িয়ে বর্তমান ভারত অধিনায়কের বক্তব্য়, ও যা করছে, সব ভালো মতোই করছে। ও যখনই মাঠে নামে কঠোর পরিশ্রম করে এবং জানে যে দলে ওর ভূমিকাটা ঠিক কি রকম। দিল্লি ম্য়াচে ও ছয় মেরেছিল। খেলা শেষ হয়ে যাওয়ার পর সেটা পাঁচবার দেখানো হলো। তারপর একটা ম্য়াচে রান করতে না পারলে, সেই মানুষটার পেছনে হাত ধুয়ে পড়ে যেতে হবে! এটা কি?”ধোনি নিন্দুকদের বিরুদ্ধে গর্জে উঠলেন বিরাট - যা বললেন দেখে নিন 5

ধৈর্য্য় ধরুন আপনারা। ওর ক্রিকেট কোন দিকে এগোচ্ছে এবং এখন ঠিক কোন জায়গায় আছে, সেটা ভালো করেই জানে এমএস। ধোনি ক্ষুরধার মস্তিষ্কের অধিকারী। ওর হয়ে কাউকে কোনও কিছু ভেবে দিতে হবে না, কি করা উচিত আগামী দিনে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *