ধোনির প্রিয় বিষয় কী, জেনে নিন ধোনির কাছেই! 1

 

মহেন্দ্র সিংহ ধোনি ছোটোবেলা থেকেই সকলের চেয়ে আলাদা। অন্য সকলের মতই নিজের কেরিয়ারের উত্থান পতনের সাক্ষী থেকেছেন তিনি। তা বলে কখনোই নিজের লক্ষ্য থেকে দূরে সরেন নি ভারতের সবচেয়ে সফল এই অধিনায়ক। সুশান্ত সিং রাজপুত অভিনীত ধোনির বায়োপিকের ফলে সকলেই ধোনি সম্পর্কে অনেক অজানা তথ্য জেনে ফেলেছেন। যেমন প্রথম জীবনে ধোনি হতে চেয়েছিলেন গোলকীপার, কিন্তু ঘটনাচক্রে তিনি উইকেট কীপার হয়ে যান। এরপরেই ক্রিকেটার হিসেবে তার উত্থান এবং তার সুরক্ষিত গ্লাভসে ভর করে বিশ্বক্রিকেট জয়। কিন্তু অনেকেই জানেন না স্কুলে ধোনির প্রিয় সাবজেক্ট কী ছিল। এবং ধোনির প্রিয় বিষয় জানার জন্য কোনো পুরস্কার নেই, কারণ উত্তরটা খুবই সহজ। কারণ ধোনির প্রিয় বিষয় হলো অঙ্ক। স্কুল জীবলে অঙ্কে যথেষ্ট ভালো ছিলেন ধোনি।

ধোনির প্রিয় বিষয় কী, জেনে নিন ধোনির কাছেই! 2

একাধিকবার নিজের সাক্ষাৎকারে সে কথা বলেওছেন তিনি। সাক্ষাৎকারে তিনি বলেওছেন যে ক্লাস ফাইভ পর্যন্ত অঙ্কে তিনি ক্লাসের বাকিদের তিলনায় ছিলেন সেরা। তবে তিনি এটাও জানিয়েছেন যে ঠিক যে সময় তিনি ফুটবল থেকে ক্রিকেটের দিকে এগোচ্ছিলেন সেই সময় অঙ্কের প্রতি তার সামান্য ভীতি জন্মায়। তবে তিনি স্বীকার করে নিয়েছেন যে জ্যামিতিতে বেশ ভালই ছিলেন তিনি। জীবনের বহু সাক্ষাতকার দেওয়া ধোনি তার এমনই এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন, “ ক্লাস ফাইভ অব্ধি আমার প্রিয় বিষয় ছিল অঙ্ক। কিন্তু সিলেবাসে যখন বীজগণিত এল তখন কিন্তু আমি সিরিয়াস ক্রিকেট খেলতে শুরু করে দিয়েছি। তাই আমার কাছে অঙ্ক কিছুটা কঠিন হয়ে যায়। তবে তা সত্ত্বেও এখনও অঙ্ক আমার প্রিয় বিষয়। তাই কেউ যদি আমাকে কোনো একটা বিষয় পছন্দ করতে বলেন তাহলে আমি অঙ্ককেই বেছে নেব। ক্লাস সিক্সে যদিও আমি অঙ্কে খুব একটা ভালো ছিলাম না। কিনতি জ্যামিতি করতে আমার ভীষণ ভাল লাগত”। অঙ্কে তার মাথা পরিস্কার থাকার কারণেই ক্রিকেটের মাঠে অনেক কঠিন পরিস্থিতিতেও দুই ফিল্ডারদের মাঝখান দিয়ে বল পাঠাতে পারতেন তিনি।

ধোনির প্রিয় বিষয় কী, জেনে নিন ধোনির কাছেই! 3

অফ সাইড অনসাইডে কতজন ফিল্ডার রাখা আছে সেই অনুযায়ীই শট খেলতে পারতেন বোলার বল করতে আসার আগেই। রান তাড়া গিয়ে আস্কিং রেট বেড়ে গেলেও দ্রুত তা হিসেব কষে নিয়ে সেই অনুযায়ী নিজের মতো ইনিংসকে সাজিয়ে নিতেন তিনি। তার জন্য বাইরে থেকে কারও পরামর্শের দরকার ছিল না তার। জ্যামিতিতে তার প্রখর জ্ঞান থাকার কারণেই তিনি বুঝতে পারতেন কোন পজিশনে ফিল্ডার রাখতে হবে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *