দেখুন কে অভিনয় করছেন কপিল দেবের চরিত্রে 1

নিউইয়র্ক, বাজরঙ্গী ভাইজান এবং টিউবলাইটের মত জনপ্রিয় ও আলোচিত চলচ্চিত্রের পরিচালক কবীর খান এবার নির্মাণ করতে যাচ্ছেন আরো একটি আলোচিত চলচ্চিত্র! এই আলোচিত চলচ্চিত্রটি হচ্ছে ভারতের প্রথম বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক কপিল দেবের বায়োপিক। অতি সম্প্রতি বলিউডে যেন বায়োপিক নির্মানে ধুম পড়েছে। ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব থেকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বদের নিয়ে চলছে বায়োপিক নির্মাণ । এবছর ই ঐতিহাসিক ঘটনার পেক্ষাপটে নির্মিত “পদ্মাবতী” বায়োপিক নির্মিত হয়েছে। মুক্তি পেয়েছ ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় রাষ্ট্রপতি আবুল কালাম আজাদের বায়োপিক। হয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের জীবন্ত কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকারকে নিয়ে ‘শচীন আ বিলিয়ন ড্রিমস’। এছাড়াও বিশ্বকাপজয়ী দ্বিতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনীর জীবনী নিয়ে গত বছর মুক্তি পেয়েছে বায়োপিক ‘এমএস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি’। আরো আগে ই মুক্তি পেয়েছে ভারতীয় ক্রিকেটার ও সাবেক অধিনায়ক আজহারউদ্দিনের জীবন নিয়ে তৈরি সিনেমা ‘আজহার’।

এই বায়োপিকের জনপ্রিয়তার জ্বরে জনপ্রিয় পরিচালক কবীর খানের কপিল দেবকে নিয়ে ‘বায়োপিক’ নিমার্ণের উদ্যোগও বেশ সারা পরেছে। ভারতের প্রথম বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক কপিল দেব ২০০২ সালে উইজডেন কর্তৃক ‘শতাব্দীর সেরা ভারতীয় ক্রিকেটারে’ মনোনীত হন। গ্যারি সোবার্স, রিচার্ড হ্যাডলি এবং ইমরান খানের সাথে তাঁকেও ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার বলা হয়। বর্তমানে তিনি একজন ধারাভাষ্যকারর। ১৯৯১ সালে লাভ করেন ভারতের তৃতীয় সর্বোচ বেসামরিক পুরষ্কার ‘পদ্মভূষণ’। তিনি ভারত জাতীয় ক্রিকেট দলের পক্ষে ১৩১টি টেস্ট ম্যাচ ও ২২৫টি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন। ১৯৯৪ সালে অবসর নেয়ার সময় তিনি ভারতীয় খেলোয়াড়দের মধ্যে সর্বাধিকসংখ্যক টেস্টে অংশ নেন। এছাড়াও,সর্বাধিক সংখ্যক টেস্ট উইকেট (৪৩৪) নেয়ার বিশ্বরেকর্ডধারী ছিলেন। পাশাপাশি একদিনের আন্তর্জাতিকেও সর্বাধিক সংখ্যক উইকেট সংগ্রহের রেকর্ড গড়েছিলেন। কপিল দেব সেপ্টেম্বর, ১৯৯৯ সালে ভারত জাতীয় ক্রিকেট দলের কোচ হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছিলেন। একবার শোনা গিয়েছিল কপিল দেবের ভূমিকায় দেখা যাবে অর্জুন কাপুরকে। কিন্তু কিছু ব্যক্তিগত কারণে তিনি সরে দাঁড়িয়েছেন চরিত্রটি থেকে।

এখন বিখ্যাত বলিউড সমালোচক তারান আডারসের ২৫ তারিখের এক টুইট হতে জানা যাচ্ছে রনবীর কাপুর, কপিল দেবের চরিত্রে অভিনয় করবে। কবীর খান ভারতের ১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপ জয়ের ঘটনাকে ভিত্তি করে। সেখানে কপিল দেবের চরিত্র করার জন্য প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে রণবীর সিংকে। আর ক্রিকেট নিয়ে ছবি করলে যে বক্স অফিসে মার নেই, সেটা ধোনি এবং শচীনের বায়োপিকই বলে দিচ্ছে। ভারতের সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির বায়োপিকে অভিনয় করে বাজিমাত করেছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত। এদিকে রণবীর ইতোমধ্যেই বাজিরাও হিসাবে তিনি মন জয় করে নিয়েছেন দর্শকদের। মুক্তির অপেক্ষায় তার পরবর্তী ছবি পদ্মাবতী। সেই ছবিতে তিনি আসছেন আলাউদ্দিন খিলজির চরিত্রে। রণবীর সিং সবসময়ই অসম্ভব এনার্জেটিক এই অভিনেতা। সেই কারণেই তাঁকে বেছে নেওয়া হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। অনুরাগ কাশ্যপের প্রযোজনায় এই ছবি পরিচালনা করতে চলেছেন কবীর খান।

Nazmus Sajid

Sports Fanatic!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *