টুইটারে মুশফিককে ক্লার্কের মেসেজ, দেখে নিন কি বললেন তিনি! 1

টুইটারে মুশফিককে ক্লার্কের মেসেজ, দেখে নিন কি বললেন তিনি! 2

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথমবারের মতো সাদা পোশাকে জয়ের স্বাদ পেলো বাংলাদেশ দল। বুধবার ‘হোম অব ক্রিকেট’ মিরপুর শেরে-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে অজিদের ২০ রানে হারিয়ে ইতিহাস রচনা করে মুশফিক বাহিনীরা। এই ঐতিহাসিক টেস্ট জয়ে বাংলাদেশ বন্দনায় মেতে উঠেছে বিশ্ব ক্রিকেটের রথী-মহারথীরা। এদের মধ্যে রয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্কও। টুইটারে ব্যক্তিগত ইনবক্সে বাংলাদেশ অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমকে অভিনন্দন জানান এই সাবেক অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক। ক্লার্কের করা সেই ম্যাসেজটি নিজের সত্যায়িত ফেসবুক পেজে ফ্যানদের সাথে শেয়ার করেন মুশফিক। ক্লার্ক লিখেন, “অভিনন্দন বন্ধু। এই জয়ে তোমার জন্য খুবই আনন্দিত আমি।“

টুইটারে মুশফিককে ক্লার্কের মেসেজ, দেখে নিন কি বললেন তিনি! 3

মুশফিককে ব্যক্তিগত ভাবে ইনবক্সে অভিনন্দন জানানোর পাশাপাশি টুইট করে পুরো বাংলাদেশ দলকেও অভিনন্দন জানান মাইকেল ক্লার্ক। বাংলাদেশের কাছে অস্ট্রেলিয়ার এমন পরাজয় হতাশ করলেও এমন জয়ে পুরো কৃতিত্ব টাইগারকেই দিলেন সাবেক অস্ট্রেলিয়ান ওয়ানডে বিশ্বকাপ জয়ী ওয়ানডে অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক। এই সাবেক ক্রিকেটার বলেন তিনি কোনো দিন ভাবেননি এমন একটা টুইট তাঁকে করতে হবে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্টে বাংলাদেশ জিতবে আর তিনি টুইটারে বাংলাদেশকে অভিনন্দন জানাবেন—ব্যাপারটা অচিন্তনীয়ই ছিল অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়কের কাছে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তেমন কিছুই করতে হলো গত অর্ধযুগে ক্রিকেটের অন্যতম সেরা অধিনায়ককে। ঢাকায় বাংলাদেশের কাছে নিজের দেশের হার দেখেছেন ক্লার্ক। টুইটারে তিনি বাংলাদেশকে আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়েছেন। কিন্তু একই সঙ্গে জানিয়েছেন, এই টুইটটা যে তাঁকে করতে হবে, সেটা ভাবেননি তিনি, ‘বাংলাদেশকে অভিনন্দন। কখনো ভাবিনি আমাকে এমন টুইট করতে হবে। কিন্তু কৃতিত্বটা তাদের দিতেই হবে। এটা তাদের প্রাপ্য।’

এর আগে, বাংলাদেশের দেওয়া ২৬৫ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে রেনশ এবং খাজার উইকেট হারালেও দলকে ম্যাচে ফেরান অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ ও সহ-অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার। তবে স্মিথ ডিফেন্সিভ খেললেও সাকিব, মিরাজদের পাত্তাই দেননি ওয়ার্নার।

তুলে নেন ক্যারিয়ারের ১৯তম শতক। তবে চতুর্থ দিনের প্রথম সেশনের মাঝপথে সাকিবের বলে শতক হাঁকানো ওয়ার্নার আউট হলে ম্যাচে ফিরে বাংলাদেশ। তারপর থেকে কোন অজি ব্যাটসম্যানই ক্রিজে বেশিক্ষণ থিতু হতে পারেননি।

উল্লেখ্য, সর্বশেষ ২০০৬ সালে বাংলাদেশের মাটিতে খেলা অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট সিরিজে খেলেছেন ক্লার্ক। তবে খুব একটা ভালো করতে পারেননি ওই সিরিজে। ফতুল্লার প্রথম টেস্টের দুই ইনিংসে ফিরেছিলেন যথাক্রমে ১৯ ও ৯ রানে। চট্টগ্রামে জেসন গিলেস্পির ডাবল সেঞ্চুরির পাশে তাঁর ব্যাট থেকে এসেছিল ২৩ রান।

 

Nazmus Sajid

Sports Fanatic!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *