টুইটারে গিবসের ট্রোলে ক্ষুব্ধ অশ্বিন ম্যাচ ফিক্সিং নিয়ে কটাক্ষ করে সোশ্যাল মিডিয়ার তোপের মুখে
LONDON, ENGLAND – JUNE 17: Ravichandran Ashwin of India wears a ice pack on his knee during a nets session at The Kia Oval on June 17, 2017 in London, England. (Photo by Gareth Copley/Getty Images)

ক্রিকেটারদের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় হাসি মজা আদান প্রদান করা এখন আম বাত। বহু ক্রিকেটারই নিজেদের মধ্যে একে অপরকে নিয়ে মজা করেন থাকেন মাইক্রো ব্লগিং সাইট টুইটারে। যা নিয়ে কোথাও খুব একটা বেশি অসুবিধা হতে দেখা যায় না। কিন্তু এই মুহুর্তে এরকমই একটা মজার করতে গিয়ে অস্বস্তিতে পড়লেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন ক্রিকেটার হার্সেল গিবস। ভারতীয় অভিজ্ঞ অফ স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিনের একটি টুইটের জবাবে মজা করতে গিয়ে এই দুজনের মধ্যে অস্বস্তিকর পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে। সাধারণত অশ্বিন পরিচিত এমন এক গম্ভীর ব্যক্তিত্ব হিসেবে যিনি সব ব্যাপারেই নিজের সরাসরি মতামত রাখেন। এবং তার এই মনোভাব আরও একবার প্রমানিত হল গিবসের টুইটের জবাবে তার প্রতিক্রিয়ায়। অশ্বিন এবং গিবসের মধ্যে এই টুইট যুদ্ধ শুরু হয় ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে প্রথম টি২০ ম্যাচের পরেই। এ প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখা দরকার যে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে দুই তরুণ ভারতীয় স্পিনার যযুবেন্দ্র চহেল এবং কুলদীপ যাদব দারুণভাবে উঠে এসে প্রোটিয়াদের জন্য স্পিন নিয়ে কঠিন পরস্থিতির সৃষ্টি করে দেয়। শুধু স্পিনের জালে দক্ষিণ আফ্রিকাকে বিপদে ফেলাই নয় এই দুই স্পিনারের কাঁধে ভর করেই ভারতীয় দল ব্যাপকভাবে জয়ের রাস্তায় ফিরে আসে। এবং এই দুজনের সাফল্যের কারণেই ভারতীয় দলে অভিজ্ঞ স্পিনার অশ্বিনের প্রথম একাদশে জায়গা পাওয়া কঠিন হয়ে পড়েছে। এই অবস্থায় টুইটের জবাবে অশ্বিনের প্রতিক্রিয়া বেশ বেকায়দাতেই ফেলে দিয়েছে এই অভিজ্ঞ অফ স্পিনারকে। ঠিক কি হয়েছিল ঘটনাটি?

নাইকের নতুন ধরনের রানিং শু হাতে পাওয়ার পরপরই টুইটারে একটি পোষ্ট করেন অশ্বিন। সেই টুইটে তিনি লেখেন, “ বন্ধুরা! এই মাত্রই হাতে পেলাম নাইক রিঅ্যাক্ট। এর অসাধারণ ডিজাইন এবং ফোম টেকনোলজি দিয়ে তৈরি হওয়ায় এই জুতো ব্যবহারের ক্ষেত্রে অনেক হালকা এবং আরামদায়ক। এবং সেইসঙ্গে নিশ্চিতভাবেই এটা এখনও পর্যন্ত আমার ব্যবহার করা শ্রেষ্ঠ রানিং শু। আমার তর সইছে না এটা পরার জন্য”। অশ্বিনের এই টুইটের জবাবে নেহাতই মজা করে হার্সেল গিবস টুইট করেন, “ অশ্বিন আশা করা যেতে পারে এবার তুমি আরও জোরে দৌড়তে সক্ষম হবে”। যা খুব একটা খোলা মনে নিতে পারেন নি অশ্বিন। গিবসের টুইটের প্রতিক্রিয়া বেশ কড়াভাবে দেন এই ভারতীয় অফস্পিনার। অশ্বিন জানান যে তিনি তার দৌড়নোর প্রতিভা নিয়ে জন্মাবার আশির্বাদ ধন্য নন। তিনি আরও লেখেন যে তার পেট চালাবার জন্য ম্যাচ ফিক্সিং করতে তিনি বাধ্য হন নি। যা সরাসরি গিবসের প্রতি অশ্বিনের কটাক্ষ ছিল। প্রসঙ্গত স্পট ফিক্সিং কান্ডে গিবসের জড়িত থাকার দাবী রয়েছে অতীতে। ঠিক কি লিখেছিলেন অশ্বিন গিবসের টুইটের জবাবে? অশ্বিন লেখেন, “আমি নিশ্চিতভাবেই তোমার মত দ্রুত নই বন্ধু এবং দুর্ভাগ্যবশত তোমার মত অতটাও ভাগ্যবান নই আমি। কিন্তু আমার উপর নৈতিক মানসিকতার একটি আশির্বাদ রয়েছে, তোমার মত আমার প্লেটে খাবার যোগার করার জন্য ম্যাচ ফিক্সিংয়ের মানসিকতা আমার নেই”। অশ্বিনের এই টুইটে স্বাভাবিকভাবেই খুব একটা স্বস্তি বা খুশি অনুভব করেন নি গিবস।

পরের টুইটেই তিনি উল্লেখ করেন যে তিনি স্রেফ মজা করেছিলেন। গিবস টুইট করেন, “বোঝা গেল তুমি মজা নিতে পার না। বাদ দাও, এগিয়ে চল…”। অশ্বিনও এই প্রতিক্রিয়ার জবাব দিতে দেরী করেন নি। গিবসের মত একই রকমভাবে তিনি জবাব দেন যে তিনিও মজাই করেছিলেন এবং কথাবার্তা চালিয়ে যেতে প্রস্তুত।গিবসকে সুক্ষ্ম ব্যাঙ্গ করে তিনি লেখেন, “ আমারও সম্পূর্ণ বিশ্বাস রয়েছে যে আমারও প্রতিক্রিয়াও একটা মজাই ছিল। এবং দেখা গেল মানুষেরা এবং তুমি কিভাবে এটাকে নিলে। বন্ধু মজা করতে এই খেলায় আমি পুরোপুরীভাবেই রয়েছি এবং আমরা আবারও কোনো সময়ে ডিনারে যাব”। অশ্বিনের এমন টুইটে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। অশ্বিনও বুঝে যান তার প্রতিক্রিয়া ভালভাবে নেয় নি মানুষ। সঙ্গে সঙ্গেই নিজের টুইট ডিলিট করে দেন এই ভারতীয় অফস্পিনার।

পরে একটি টুইটে তিনি লেখেন, “ যা আমার কাছে সংবেদনশীল তা হয় অন্য কারও কাছে নাও হতে পারে আবার অন্যের কাছে যা সংবেদনশীল তা আমার কাছেও না হতে পারে। আমি চাই আমার ফ্যানদের যে বিশাল পরিবার রয়েছে তাদের সম্মান করতে, তাই আমি টুইটি ডিলিট করে দিলাম। সেই সঙ্গে আমাকে অপছন্দকারীদের মনোরঞ্জন করা এখানেই শেষ। পরে আবার দেখা হবে”। এই টুইটিকেও ভালভাবে নেননি ক্রিকেট ভক্তরা। তারাও তীব্রভাবে পালটা জবাব দেন অশ্বিনকে। অশ্বিনের টুইটের নীচে একজন লেখেন, “ চিন্তার করার কিছু নেই ব্রো। আমার কাছে তোমার পোষ্টের স্ক্রিণশট রাখা আছে যার জন্য ভবিষ্যতে তোমাকে পস্তাতে হতে পারে। তবে ২০১৯ এর ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে চহেল এবং কুলদীপই খেলবে”।

এরপরই অশ্বিনের আগের টুইটের স্ক্রীনশট করে ওই ব্যক্তি আরও লেখেন যে, “ তোমাকে অপছন্দকারীদের মনোরঞ্জন শেষ হয় নি, মনোরঞ্জন কখনোই শেষ হয় না। দ্য শো মাস্ট গো অন”। আরও এক টুইটার ব্যবহারকারী লেখেন, “অপেক্ষা করে আছি দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে তোমাকে পরের ম্যাচে খেলতে দেখতে! ওহ দাঁড়াও… তুমি তো দলেই নেই। পরে আবার দেখা হবে। সাধারণ মানুষরা ছাড়াও সেলিব্রিটিরাও প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন অশ্বিনের টুইটে। বিখ্যাত ক্রিকেট সঞ্চালিকা ময়ান্তি ল্যাঙ্গার টুইট করেন, “ ফিক্সিংয়ের মত শব্দ ব্যবহার এবং সেই সঙ্গে কোনো প্রমান ছাড়া তাকে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের জন্য ব্লেম করা তোমার কাছে মজা। কখনও কল্পনা করে দেখেছো যদি কেউ এই একই জিনিস তোমার সঙ্গেও করে?” সোশ্যাল মিডিয়ার এই প্রতিক্রিয়ার আপাতত বেশ অস্বস্তিতেই দলের বাইরে থাকা অশ্বিন।

  • SHARE
    সাংবাদিক, আদ্যন্ত ক্রীড়াপ্রেমী। ব্রায়ান লারা সচিনের ভক্ত। ক্রিকেটের বাইরে ব্রাজিলের সমর্থক এবং নেইমার ও মেসির অন্ধ ভক্ত।

    আরও পড়ুন

    স্ট্যাট: ভারতীয় দলের খেলোয়াড়রা আয়ারল্যান্ড এবং ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি২০ সিরিজ চলাকালীন হাসিল করতে পারেন এই মাইলস্টোন

    স্ট্যাট: ভারতীয় দলের খেলোয়াড়রা আয়ারল্যান্ড এবং ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি২০ সিরিজ চলাকালীন হাসিল করতে পারেন এই মাইলস্টোন
    ভারতীয় দল ইউরোপ সফরের জন্য শনিবার রওনা হয়ে গিয়েছে। ভারতীয় দলকে প্রথমে আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ২৭ এবং ২৯...

    আজ বাংলা ক্রিকেট জগতে শোকের ছায়া, চলে গেলেন এই ক্রিকেটার

    ''জন্মিলে মরিতে হবে অমর কে কোথা রবে''। এই কথাটা মনে করলেই কেমন যেন ভয় হয়। আজ বাংলা ক্রিকেট...

    ধোনির কেরিয়ারের এমন কলঙ্কিত সত্যি, যাকে দ্বিতীয়বার মনে করতে চাইবেন না প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক

    ধোনির কেরিয়ারের এমন কলঙ্কিত সত্যি, যাকে দ্বিতীয়বার মনে করতে চাইবেন না প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক
    মহেন্দ্র সিং ধোনি যিনি ভারতীয় দলকে সেই সমস্ত কৃতিত্ব দিয়েছেন যা দল এবং ম্যানেজমেন্ট প্রত্যেক অধিনায়কের কাছ...

    ইংল্যান্ড সফরে রওনা হওয়ার আগে ফ্লাইটে ধোনি এবং বিরাট দ্বারা করা মজার ছবি ভাইরাল হয়ে গেল সোশ্যাল মিডিয়ায়, দেখে নিন

    ইংল্যান্ড সফরে রওনা হওয়ার আগে ফ্লাইটে ধোনি এবং বিরাট দ্বারা করা মজার ছবি ভাইরাল হয়ে গেল সোশ্যাল মিডিয়ায়, দেখে নিন
    ভারতীয় ক্রিকেট টিম গত মরশুমে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছিল। ভারতীয় ক্রিকেট দল এই সময়কালে বিশ্ব ক্রিকেটের প্রায় সমস্ত...

    ইএসপিএন বাছলো ১২ বছরের অলটাইম টি২০ দল, ৩ ভারতীয় ক্রিকেটার পেলেন দলে জায়গা, জেনে নিন অধিনায়ক কে?

    ক্রিকেটের প্রফেশনাল ওয়েবসাইট সম্প্রতি বিশ্ব ক্রিকেটের গত ২৫ বছরের আল টাইম বেস্ট বাছার দায়িত্ব পালন করেছিল। ইএসপিএনের...