জেনে নিন শচীন পুত্র অর্জুনের ব্যাক্তিগত কোচ কোন প্রাক্তণ তারকা পেসার? 1

জেনে নিন শচীন পুত্র অর্জুনের ব্যাক্তিগত কোচ কোন প্রাক্তণ তারকা পেসার? 2

মনোযোগী ছাত্র নেটে নিজের বোলিং প্র্যাকটিস করে যাচ্ছে মন দিয়ে, তারপর সেই বোলিংয়ের ভিডিও তুলে পাঠিয়ে দিচ্ছে ব্যক্তিগত কোচকে। ল্যাপটপে ছাত্রের সেই ভিডিও পরম যত্নে দেখে তারপর ফোনে বা ভিডিও চ্যাটে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিচ্ছেন কোচ। আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার এভাবেই খুলে দিয়েছে এক নতুন দিগন্ত। আর তা এক নতুন মাত্রা যোগ করে ক্রিকেট কোচিংয়ের ক্ষেত্রেও। আর এই অনলাইন কোচিং আরও বেশি করে বাড়তি মাত্রা পেয়ে যাচ্ছে কারণ ছাত্রের নাম অর্জুন শচীন তেন্ডুলকর আর গুরুর নাম সুব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়। জীবন্ত কিংবদন্তী সচিন তেন্ডুলকরের প্রতিবাভান ছেলেকে এভাবেই কোচিং করাচ্ছেন প্রাক্তন ভারতীয় পেসার সুব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়, যিনি ক্রিকেট সার্কিটে দীর্ঘদিন ধরেই শচীনের ঘনিষ্ঠ বন্ধু বলেও পরিচিত। একসময় সচিনের অনুরোধেই ঝাড়খণ্ড রাজ্য দলের দায়িত্ব ছেড়ে সুব্রত বাবু মুম্বইয়ের বান্দ্রা কুর্লা কমপ্লেক্সে অর্জুনকে প্রশিক্ষণ দিতে রাজি হয়েছিলেন। যদিও সচিন নিজে ভারতীয় তথা বিশ্বের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান হিসেবে পরিচিত হলেও অর্জুন বাঁহাতি পেসার। বল করার পাশাপাশি ব্যাট হাতেও যথেষ্ট দক্ষতা রয়েছে তার। অর্জুনের ব্যক্তিগত কোচ হিসাবে প্রায় চার বছর তাকে কোচিং করিয়েছিলেন সুব্রত। তিনিই অর্জুনের বোলিংকে আরও ঘষামাজা করে ধারাল করে তোলেন। তবে সম্প্রতি বিদর্ভ ক্রিকেট সংস্থা তাঁকে উমেশ যাদবদের বোলিং কোচ এবং টিম ডিরেক্টর হিসাবে নিয়োগ করেছে। তবে অর্জুনের কোচিং করানোয় ছেদ পড়েনি তাতে। এই মুহুর্তে বিদর্ভ দল কল্যাণীতে বাংলার বিরুদ্ধে রঞ্জি ম্যাচ খেলতে ব্যস্ত। সেই ম্যাচের ফাঁকেই শচীন পুত্রকে অনলাইনে কোচিং করানোর ব্যাপারে জানালেন সুব্রত নিজেই। একটি বাংলা দৈনিককে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বললেন, ‘‘অর্জুন এখন মুম্বইয়ের অনূর্ধ্ব ১৯ দলে খেলছে। প্রায় গোটা মরসুম মুম্বাই রাজ্য দলের শিবিরে প্র্যাক্টিস করছে। অন্যদিকে, আমি এরআগে দীর্ঘদিন নাগপুরে বিদর্ভ ক্রিকেট সংস্থার অ্যাকাডেমির দায়িত্বে ছিলাম। ফলে এবার যখন ওরা ডাকল, তখন আর নাকচ করা সম্ভব ছিল না। তবে শচীনের সঙ্গে কথা বলে তবেই নতুন দায়িত্ব নিয়েছি।’’

জেনে নিন শচীন পুত্র অর্জুনের ব্যাক্তিগত কোচ কোন প্রাক্তণ তারকা পেসার? 3

বিদর্ভের দায়িত্ব নিলেও সুব্রত কিন্তু অর্জুনকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার দায়িত্ব থেকে পুরোপুরি সরে আসেননি। ওই দৈনিককে দেওয়া সাক্ষাৎকারে একসময় বাংলার হয়ে খেলা সুব্রত বলেন, ‘‘আমার কাছে দীর্ঘদিন ধরেই প্রশিক্ষণ নিয়েছে অর্জুন। তাই আমার কোচিং পদ্ধতির সঙ্গে ও এতটাই একাত্ম হয়ে পড়েছে যে, এখনও ওর বোলিং নিয়ে আমার পরামর্শই মেনে চলে। মাঝে-মধ্যেই বিভিন্ন খুঁটিনাটি বিষয়ে টিপ্স চায়। তাই ওকে কোচিং করানোর জন্য আমি আপাতত প্রযুক্তির সাহায্য নিচ্ছি।’’ কিভাবে প্রযুক্তির সাহায্যে অর্জুনকে কোচিং দিচ্ছেন তিনি সে ব্যাপারে জানাতে গিয়ে সুব্রত বলেন, ‘‘নেটে বোলিং করার সময় অর্জুনের ভিডিও তুলে রাখা হয়। এ ব্যাপারে মুম্বইয়ের অনূর্ধ্ব ১৯ দলের ভিডিও অ্যানালিস্ট সাহায্য করেন। পাশাপাশি একজন পেশাদারও নিয়োগ করা হয়েছে এর জন্য। সেই ভিডিও আমাকে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। রঞ্জি ট্রফির ম্যাচ থাকায় এই মুহুর্তে আমি বিদর্ভ দলের সঙ্গে এখন দেশের সর্বত্র ঘুরে বেড়াচ্ছি। কিন্তু আমি যেখানেই থাকি না কেন, ল্যাপটপে অর্জুনের বোলিংয়ের ভিডিও খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখি। তারপর কী করা উচিত বা কোনও ভুল হচ্ছে কি না তা ফোন করে কিংবা ভিডিও চ্যাটের মাধ্যমে বুঝিয়ে দিই । অর্জুন বাধ্য ছাত্রের মতোই আমার সব কথা মন দিয়ে শোনে।’’ ছাত্র হিসেবে কেমন অর্জুন? সুব্রতকে এই প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন,
‘‘যতক্ষণ না আমি অর্জুনকে বলছি, ঠিক হ্যায় বেটা, অব আচ্ছা কিয়া হ্যায়, ততক্ষণ পর্যন্ত ও সন্তুষ্ট হয় না। ওর এই খুঁতখুঁতানির ব্যাপারটা কিন্তু বেশ প্রশংসনীয়। সম্প্রতি কাঙ্গা লিগে প্যারেল ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে অর্জুন ভাল পারফর্ম করেছে । ওকে নিয়ে মুম্বইয়ের অনূর্ধ্ব ১৯ দলের কোচ সতীশ সামন্তও ভীষণ আশাবাদী। সামন্তর সঙ্গে যখনই আমার কথা হয়, ও অর্জুনের খুব প্রশংসা করে। তবে অর্জুন কিন্তু বিখ্যাত বাবার ছেলে হিসাবে নয়, নিজের পারফরম্যান্স দিয়েই পরিচিতি পেতে চায়।’’

জেনে নিন শচীন পুত্র অর্জুনের ব্যাক্তিগত কোচ কোন প্রাক্তণ তারকা পেসার? 4

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *