কেরিয়ারের শুরুতেই সমর্থন পেয়েছি দাদার সমর্থন : যুবরাজ সিং

আন্তর্জাতিক কেরিয়ারের শুরুতেই প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলীর সমর্থন পাওয়ায় তার আকুন্ঠ প্রশংসা করেছেন এই মুহুর্তে ভারতীয় দলের বাইরে থাকা অলরাউন্ডার যুবরাজ সিং। এদিন রাজধানিতে একটি বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন যুবরাজসহ সৌরভ গাঙ্গুলী এবং বীরেন্দ্র সেহবাগও। সম্প্রতি নিজের আত্মজীবনী ‘আ সেঞ্চুরি ইজ নট এনাফ’ প্রকাশ করেছে। এখনও পর্যন্ত ৩০৪টি একদিনের ম্যাচে ভারতীয় দলের প্রতিনিধিত্ব করা যুবরাজ সিং ভারতের হয়ে তার শেষ ম্যাচ খেলেছিলেন গত বছর জুন মাসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে। তখন থেকেই কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে যুবরাজ চেষ্টা করে চলেছেন ভারতীয় দলে ফেরার জন্য।
কেরিয়ারের শুরুতেই সমর্থন পেয়েছি দাদার সমর্থন : যুবরাজ সিং 1
আইপিএলের একাদশ সংস্করণে যুবরাজ প্রতিনিধিত্ব করছেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের। গত কয়েকটি ম্যাচে খুব একটা ভাল পারফর্ম করতে না পারায় পাঞ্জাবের গত ম্যাচে তাকে প্রথম একাদশের বাইরে বসতে বাধ্য করে। তারপর থেকেই নিজের প্রয়োজনীয়তা বোঝাতে সেই সঙ্গে দলের জয়ে সহযোগিতা করতে যুবরাজ মরিয়া হয়ে রয়েছেন। অন্যদিকে শুরু থেকেই এই প্রতিযোগিতায় দারুণভাবে এগিয়েছে পাঞ্জাব, এমনকী বেশ কিছু ম্যাচ জেতায় তারা প্লে অফের দৌড়েও নিজেদের জায়গা তৈরি করে ফেলেছে। যদিও এখনও কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের অনেক ম্যাচই বাকি রয়েছে এই প্রতিযোগিতার এবং তাদের চেষ্টা থাকবে নিজেদের ফর্ম ধরে রাখার। রাজধানীর ওই বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে নিজের আন্তর্জাতিক কেরিয়ারের শুরুয়াতের অনেক অভিজ্ঞতাই এদিন যুবরাজ এদিন শেয়ার করেন একটি কথোপকথনে।
কেরিয়ারের শুরুতেই সমর্থন পেয়েছি দাদার সমর্থন : যুবরাজ সিং 2
প্রসঙ্গত যুবরাজ যে সময় ভারতীয় দলে অভিষেক ঘটান সেই সময় ভারতীয় দলের অধিনায়ক ছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলী। যুবরাজ শেয়ার করেছেন যে একসময় সৌরভ তাকে সেরা ফিল্ডারেরও তকমা দিয়েছিলেন। এ প্রসঙ্গে যুবরাজ জানান, “ আমি যখন ভারতীয় দলে আসি, দাদা অনেক পরে বলেছিলেন, ‘আমরা ভারতীয় দলে অন্যতম ভাল ফিল্ডার পেয়েছি’। তিনি আরও বলেন যে তার গোটা দুয়েক ব্যর্থতা সত্ত্বেও গাঙ্গুলী তাকে ম্যাচ উইনার বলে সমর্থন জানিয়েছিলেন। প্রসঙ্গত অধিনায়ক সৌরভ সবসময়ই জুনিয়র ক্রিকেটারদের সমর্থন করে এসেছেন। সেই সঙ্গে আন্তর্জাতিক মঞ্চে ভাল ফল প্রকাশ করার জন্য সবসময়ই জুনিয়রদের আত্মবিশ্বাস জুগিয়ে এসেছেন।
কেরিয়ারের শুরুতেই সমর্থন পেয়েছি দাদার সমর্থন : যুবরাজ সিং 3
যুবরাজ বলেন, “ গোটা দু’য়েক ইনিংস ভাল খেলার পর আমি সেই ইনিংসে ব্যর্থ হই এবং স্পিনের বিরুদ্ধেও সংঘর্ষ করছিলাম। কিন্তু সেই সময় দাদা আমাকে সমর্থন জানিয়েছিলেন, কারণ তিনি জানতেন যে আমি একজন ম্যাচ উইনার ছিলাম”। অন্যদিকে যুবরাজ এখন আগামি বছর ইংল্যান্ড এবং ওয়ালসে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাওয়াকেই পাখির চোখ করেছেন। যদিও তাকে জাতীয় নির্বাচকদের সামনে তাকে দলে নেওয়ার জন্য নিজের পারফর্মেন্সকে আরও উন্নত করতে হবে।
কেরিয়ারের শুরুতেই সমর্থন পেয়েছি দাদার সমর্থন : যুবরাজ সিং 4

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *