রবি শাস্ত্রী কোচ হওয়ার পর থেকে একটাই কথা শোনা যাচ্ছে, বিরাটের টিম ইন্ডিয়াতে খেলতে হলে সে যে মাপের ক্রিকেটারই হোন না কেন, ইয়ো-ইয়ো টেস্টে পাশ করে আসতে হবে তাঁকে। শুধু মাত্র ব্য়াটিং বা বোলিংয়ে ভালো পারফর্ম করে ভারতীয় দলে জায়গা পাওয়ার দিন শেষ হয়ে গিয়েছে। কারণ, ক্রিকেটাররা সুপার ফিট থাকলে ফিল্ডিংয়ে সময়ের রান বাঁচাতে পারবেন, আর রান বাঁচালে ম্য়াচ জেতা সম্ভব হবে। ইদানিং ভারতীয় ক্রিকেটে এই চলই চলছে। এই ইয়ো-ইয়ো টেস্ট বিষয়টা হলো আধুনিক ক্রিকেটে ফিটনেস লেভেল যাচাই করার সর্বোচ্চ টেকনিক। একটা নির্দিষ্ট মাত্রার দূরত্ব থাকে। সেই দূরত্ব কে কত সেকেন্ডে অতিক্রম করছেন, তার বিচারে পয়েন্ট দেওয়া হয়। এই টেস্টে ফেল করাতেই ভারতের দুই সেরা ম্য়াচ ফিনিশার স্টার অলরাউন্ডার যুবরাজ সিং ও সুরেশ রায়নাকে দল থেকে বাইরে বের করে দেওয়া হয়েছে। ঘরোয়া ক্রিকেট বা আইপিএল খেলে যে যতই রান করে নির্বাচকদের প্রভাবিত করার চেষ্টা করুন না কেন, ইয়ো-ইয়ো টেস্টে পাশ করতে না পারলে ভারতীয় দলে ঢোকার কোনও রাস্তাই নেই। অর্থাৎ নেট প্র্য়াক্টিসে বোলিং বা ব্য়াটিং অনুশীলন করে ধার বাড়ানোর আগে গাঁটের টাকা খরচ করে নিয়মিত জিমে গিয়ে বিরাট কোহলির মতো ছিপছিপে চেহারা আর সিক্স প্য়াক্স অ্য়াবস চাই। এই সময় ভারতীয় দলে অস্ট্রেলিয়ার ডেভিড বুন বা পাকিস্তানের ইনজামাম-উল-হক বা শ্রীলঙ্কার অর্জুনা রনতুঙ্গা বা নিউজিল্য়ান্ডের জেসি রাইডারের মতো ভারী চেহারার ক্রিকেটাররা খেললে, তাঁদের সঙ্গে না জানি কি রকমের আচরণ করা হতো, এই ভেবেই অনেকেই ক্রিকেট বোদ্ধাই অবাক হচ্ছেন। ছিপছিপে চেহারা বানিয়ে ফিটনেসই যদি সব হতো, তাহলে ওপরের নাম নেওয়া প্রথম তিনজন ক্রিকেটার, লেজেন্ড হতেই পারতেন না কোনও দিন!
যুবরাজ বাদ পড়ার পর বেশি মাত্রায় হৈচৈ হওয়ার পর ব্য়াপারটা সামনে আসে। যুবি ও রায়না দু’জনেই নাকি দু’বার করে ফেল করেছেন ইয়ো-ইয়ো টেস্টে। বেঙ্গালুরু জাতীয় অ্য়াকাডেমিতে ওই সময় ভারতীয় দল থেকে বাদ পড়া লেগ-স্পিনার অমিত মিশ্রা’ও টেস্ট দিতে উপস্থিত ছিলেন। খবর পাওয়া যায়, যুবি-রায়নার মতো তিনিও ফেল করেছেন তরুণ বোলার ওয়াশিংটন সুন্দরের সঙ্গে। কিন্তু, মিশ্রা বলছেন, এসব গুজব। সংবাদসংস্থা পিটিআই’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে চৌঁত্রিশ বছরের মিশ্রা বলেন, ”আমি প্রথমে একটা ব্য়াপার পরিষ্কার করে দিতে চাই। আমি ইয়ো-ইয়ো টেস্ট দিতে একবারও যাইনি। আমি ওই টেস্টে ফেল করেছি বলে লোকের মুখে যে খবর রটছে, তা শোনার পর অবাক হয়ে গিয়েছি। আমি যদি টেস্টই না দিলাম, ফেল কি করে করব?”
তাহলে হঠাৎ এমন গুজব রটল কেন? তার উত্তরে মিশ্রা বলেন, ”বর্তমানে ভারতীয় দলে খেলা কয়েকজন ক্রিকেটার যেসময় টেস্ট দিতে উপস্থিত হয়, সে সময় আমি ব্য়ক্তিগতভাবে দৌড় প্র্য়াক্টিস করছিলাম। তাই হয়তো লোকে আমায় দেখে ভুল ভেবে নিয়েছিল যে আমিও টেস্ট দিতে গিয়েছিলাম।”
মিশ্রা জানিয়েছেন, এনসিএ ট্রেনার আশিস কৌশিকের সঙ্গে এব্য়াপারে তিনি কথা বলেছেন। কৌশিক তারপর জাতীয় নির্বাচকদের সঙ্গে কথা বলে সমস্ত ব্য়াপার পরিষ্কার করে দিয়েছেন। ভারতের হয়ে বাইশটি টেস্ট ম্য়াচে ছিয়াত্তরটি উইকেট নেওয়া এই লেগ-স্পিনার বলেন, ”কৌশিক আমাকে বলেছেন যে উনি জাতীয় নির্বাচকদের সঙ্গে কথা বলে সমস্ত বিষয় পরিষ্কার করে দিয়েছেন। ওনাদের জানিয়ে দিয়েছেন, আমি এখনও পর্যন্ত ইয়ো-ইয়ো টেস্ট দিইনি। এনসিএ’র ফিজিও এবং ট্রেনাররা কি রিপোর্ট দেন, তার জন্য আমি অপেক্ষা করছি। ওঁরা গ্রিন সিগন্য়াল দিলেই আমি হরিয়ানার হয়ে রঞ্জিতে খেলতে নামব।”

  • SHARE
    A sports enthusiast and a critic. Journalism is all about being unbiased to create positive influence from negative angle.

    আরও পড়ুন

    আইপিএলের প্রথম ম্যাচে খেলতে পারবেন না এই দুই অস্ট্রেলীয়

    আর মাত্র দেড় মাস বাকি আইপিএল শুরুর। এই মুহুর্তে স্ট্রাটেজি বানাতে শুরু করে দিয়েছে সমস্ত ফ্রেঞ্চাইজিই। কিন্তু...

    পিএনবি কান্ডে পরোক্ষে নাম জড়ালো বিরাটের, পিএনবির সঙ্গে গাঁটছড়া ছিন্ন করার কথা ভাবছেন তিনি

    পিএনবি কান্ডে পরোক্ষে নাম জড়ালো বিরাটের, পিএনবির সঙ্গে গাঁটছড়া ছিন্ন করার কথা ভাবছেন তিনি
    এই মুহুর্তে পাঞ্জাব ন্যাশানাল ব্যাঙ্কের দুর্নীতিতে গোটা দেশই নড়ে গিয়েছে। ১১ হাজার কোটি টাকার দুর্নীতি এই মুহুর্তে...

    বিরাটের নামে বাজারে আসতে চলেছে গাড়ি, সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোষণা এই শিল্পপতির

    বিরাটের নামে বাজারে আসতে চলেছে গাড়ি, সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোষণা এই শিল্পপতির
    একের পর এক রেকর্ড ধুলিস্যাত হচ্ছে তার ব্যাটের ঘায়ে। বর্তমান প্রজন্মের কথা ছেড়ে দিলেও ইতিমধ্যেই তার নাম...

    আইপিএল ২০১৮: আসন্ন আইপিএল কেকেআরকে নেতৃত্ব দিতে আগ্রহী এই অস্ট্রেলীয়

    আইপিএল ২০১৮: আসন্ন আইপিএল কেকেআরকে নেতৃত্ব দিতে আগ্রহী এই অস্ট্রেলীয়
    আইপিএলের একাদশতম সংস্করণের শুরুর ঘন্টা পড়তে আর মাত্র বাকি মাস দেড়েক। অন্যান্য অনেক ফ্রেঞ্চাইজি যেখানে তাদের অধিনায়ক...

    টুইটারে গিবসের ট্রোলে ক্ষুব্ধ অশ্বিন ম্যাচ ফিক্সিং নিয়ে কটাক্ষ করে সোশ্যাল মিডিয়ার তোপের মুখে

    টুইটারে গিবসের ট্রোলে ক্ষুব্ধ অশ্বিন ম্যাচ ফিক্সিং নিয়ে কটাক্ষ করে সোশ্যাল মিডিয়ার তোপের মুখে
    ক্রিকেটারদের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় হাসি মজা আদান প্রদান করা এখন আম বাত। বহু ক্রিকেটারই নিজেদের মধ্যে একে...