আরসিবিতে গত বছর কাটানোর চেয়ে এই মরশুমে চেন্নায়ের হয়ে কাটানোকে এই কারণে বিশেষ বলে উল্লেখ করলেন ম্যান অফ দ্য ম্যাচ শেন ওয়াটসন 1
ছবি সৌজন্যে বিসিসিআই

রোমাঞ্চকর লড়াইয়ের সঙ্গে শুরু হওয়া আইপিএলের একাদশ সংস্করণ এখন শেষ। এই মরশুমের খেতাবি লড়াই খেলা হল চেন্নাই সুপার কিংস এবং সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের মধ্যে মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে। টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নামা সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ ৬ উইকেট হারিয়ে ১৭৮ রান তোলে। তারা চেন্নাই সুপার কিংসের সামনে ১৭৯ রানের লক্ষ্যমাত্রা রাখে। যা চেন্নাই মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে ৯ বল বাকি থাকতে তুলে নিয়ে এই ম্যাচ আট উইকেটে তাদের হারিয়ে দেয়। সানরাইজার্সের হয়ে অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন আরও একবার দুরন্ত ব্যাট করতে ৪৭ রানের ইনিংস খেলেন। অন্যদিকে এই বড় ম্যাচে ইউসুফ পাঠানের ব্যাটও ভালই চলে। তিনি ২৫ বলে চারটি চার এবং দুটি ছয়ের সাহায্যে ৪৫ রানের ইনিংস খেলেন।

চেন্নাইয়ের ব্যাটিংয়ের আগে ১৭৮ রান কম পড়ে যায়

আরসিবিতে গত বছর কাটানোর চেয়ে এই মরশুমে চেন্নায়ের হয়ে কাটানোকে এই কারণে বিশেষ বলে উল্লেখ করলেন ম্যান অফ দ্য ম্যাচ শেন ওয়াটসন 2
ছবি সৌজন্যে বিসিসিআই

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের দেওয়া ১৭৮ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে সিএসকে মাত্র ২ উইকেট হারিয়েই এই লক্ষ্য হাসিল করে নেয়। চেন্নাইয়ের তরফে শেন ওয়াটসন ধামাকেদার ব্যাটিং করে ১১৭ রানের ইনিংস খেলেন। অন্যদিকে সুরেশ রায়নাও ৩২ রান করেন।

ম্যান অফ দ্য ম্যাচ শেন ওয়াটসন

আইপিএলের একাদশ সংস্করণে দুর্দান্ত ব্যাটিং প্রদর্শন করা শেন ওয়াটসন এই ম্যাচে ৫৭ বলে ১১৭ রানের ইনিংস খেলেন। এই ইনিংস খেলাকালীন তিনি ১১টি চার এবং ৮টি বিশাল ছক্কাও হাঁকান। ম্যাচ শেষে ম্যান অফ দ্য ম্যাচের পুরস্কার নিতে আসা ওয়াটসন জানান, “সততার সঙ্গে বলতে খেলে এই মরশুমে স্পেশাল ছিল। বিশেষ করে গত মরশুমে আরসিবির হয়ে কাটানোর পর এটা আরও বেশ বিশেষ মরশুম। সিএসকের মত ফ্রেঞ্চাইজির সঙ্গে থাকার মানে প্রচুর। ওই প্রথম দশ বলের পর আমি চেষ্টা করে যাচ্ছিলাম বল প্রতি ১ রান করে নেওয়ার। নতুন বলে ভুবি সত্যিই দারুণ এবং আমি সৌভাগ্যবান যে এই সুযোগকে কাজে লাগাতে পেড়েছি। এটা ভাল যে আমি গোটা দুয়েক বাউন্ডারি মারতে পেরেছিলাম এবং এখান থেকে এগিয়ে যেতে সাহায্য করেছে”।

আরসিবিতে গত বছর কাটানোর চেয়ে এই মরশুমে চেন্নায়ের হয়ে কাটানোকে এই কারণে বিশেষ বলে উল্লেখ করলেন ম্যান অফ দ্য ম্যাচ শেন ওয়াটসন 3
ছবি সৌজন্যে বিসিসিআই

তিনি আরও জানান, “সবচেয়ে ভাল কথা হল যে আমি আগামি ৩ ৪ মাস আর খেলব না। দারুণ অনুভূতি। এটা আমাকে অনেক সময় দেবে রিকোভার করার। সমস্ত টুর্নামেন্টের শেষ আমি ভাল একটা জীবন কাটাব। স্টিফেন ফ্লেমিং এবং ধোনি আমার যথেষ্ট ভাল যত্ন নিয়েছে। এবং যেভাবে আমি আজরাতে যেভাবে যোগদান করতে পেরেছি তাতে আমি সত্যিই ভীষণ খুশি”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *