আইপিএল ২০১৮: সঞ্জু স্যামসন আগামি দিনে ভারতের ভবিষ্যত : অজিঙ্ক রাহানে

ঘরের মাঠেই রাজস্থান রয়্যালসের হাতে ১৯ রানে নাস্তানাবুদ হল বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। এই ম্যাচের নায়ক হলেন সঞ্জু স্যামসন। যিনি রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৪২ রানে বিস্ফোরক ৯২ রানের ইনিংস খেলেন। আরসিবির হয়ে অধিনায়ক বিরাট কোহলিও একটি দুরন্ত ইনিংস খেলেন কিন্তু তা তার দলের জেতার জন্য যথেষ্ট ছিল না। এর আগে প্রথমে টসে হেরে রাজস্থান রয়্যালস তাদের ইনিংসের শুরুয়াত দুরন্তভাবেই শুরু করে। সৌজন্যে অজিঙ্ক রাহানে যিনি পাওয়ার প্লে’তে দুরন্ত ব্যাট করেন রাজস্থান প্রয়োজনীয় গত দিয়ে দেন। তিনি আউট হওয়ার পরি ক্রিজ আসেন স্যামসন, এরপরই তিনি তার দলের হয়ে একটি স্পেশাল ইনিংস খেলেন। তাকে সহযোগিতা করেন বেন স্ট্রোক, জোস বাটলার এবং রাহুল ত্রিপাঠি। এই ম্যাচে আরসিবির বোলিং প্রায় ক্লাবস্তরে নেমে আসে যার পুর্ণ সদ্ব্যবহার করেন রাজস্থান ব্যাটসম্যানেরা এবং তাদের নির্ধারিত ২০ ওভারে মাত্র ৪ উইকেট হারিয়ে ২১৭ রানের বিশাল অঙ্ক স্কোর বোর্ডে দাঁড় করান।

আইপিএল ২০১৮: সঞ্জু স্যামসন আগামি দিনে ভারতের ভবিষ্যত : অজিঙ্ক রাহানে 1

অন্যদিকে রান তাড়া করতে নেমে কৃষ্ণাপ্পা গৌতম প্রথম ওভারেই ব্রেণ্ডল ম্যাকালামকে তুলে নিয়ে আরসিবিকে প্রাথমিক ধাক্কা দেন। কিন্তু তার পরেই এই ম্যাচের রাশ নিজের হাতে তুলে নেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তিনি একটি দুরন্ত ইনিংস খেলেন এবং যতক্ষণ তিনি ক্রিজে ছিলেন রাজস্থানের রানকে খুব বেশি অসম্ভব লাগছিল না তাড়া করার ক্ষেত্র। তার ৩০ বলে ৫৭ রানের ইনিংস প্রমান করে যে পরের ম্যাচেও তিনি বিপক্ষের উপর ঝাঁপিয়ে পড়তে তৈরি রয়েছেন। যদিও তার এই ইনিংস এই ম্যাচে তার দলের জন্য যথেষ্ট ছিল না, এবং তার আউট হওয়ার পর এবি ডেভিলিয়র্সও বেশিক্ষণ না টেকায় এই ম্যাচ আরসিবির পক্ষে কঠিন হয়ে পড়ে। যদিও শেষ দিকে মনদীপ সিং এবং ওয়াশিংটন সুন্দর কিছুটা চেষ্টা করেছিলেন, কিন্তু তা কখনোই রাজস্থানের রান কে টপকে যাওয়ার জন্য উপযুক্ত ছিল না। শেষ অব্ধি তাদের নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৯৮ রানই তুলতে পারে তারা এবং ১৯ রানে এই ম্যাচ তাদের খোয়াতে হয় রাজস্থানের কাছে।

আইপিএল ২০১৮: সঞ্জু স্যামসন আগামি দিনে ভারতের ভবিষ্যত : অজিঙ্ক রাহানে 2

ম্যাচ শেষে রাজস্থানের অধিনায়ক অজিঙ্ক রাহানে বলেন, “দারুণ অনুভূত হচ্ছে। আমরা সকলেই জানি আরসিবি কতটা ভয়ংকর। উইকেট ভীষণই স্লো ছিল, আমরা ১৬০-১৭০ রানের কথা চিন্তা করেছিলাম। কিন্তু যেভাবে সঞ্জু ব্যাট করেছে তা অভাবনীয়। এটা পুরোটাই ছিল একটা বড় পার্টনারশিপ পাওয়ার ব্যাপার। (নিজের চোট নিয়ে) হাঁটু ভালই আছে, সামান্য খোঁড়াচ্ছি কিন্তু ঠিক হয়ে যাবে। শ্রেয়স সত্যিই দারুণ বল করেছে। আমরা জানি যখন আপনি ২০০ প্লাস স্কোর করেন, তখন বিপক্ষ একটু কঠিনভাবেই আপনার উপর ঝাঁপিয়ে পড়বে। সঞ্জু দারুণ প্রতিভা, ওকে দলে পাওয়া খুব ভালো ব্যাপার। ও ভারতের জন্য ভবিষ্যত এবং আমরা ওকে ফিরে পেয়েছি”।

আইপিএল ২০১৮: সঞ্জু স্যামসন আগামি দিনে ভারতের ভবিষ্যত : অজিঙ্ক রাহানে 3

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *