আইপিএল ২০১৮: ম্যাচ ৩, আরবিসি বনাম কেকেআর, স্ট্যাটিস্টিক্যাল হাইলাইট

আইপিএল ২০১৮: ম্যাচ ৩, আরবিসি বনাম কেকেআর, স্ট্যাটিস্টিক্যাল হাইলাইট 1

দীনেশ কার্তিকের নেতৃত্বে প্রথম ম্যাচেই জয়ের মুখ দেখ কলকাতা নাইট রাইডার্স। রোমাঞ্চকর ম্যাচে ৪উইকেটে তারা হারিয়ে দিয়েছে বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন আরসিবিকে। আরসিবির হয়ে ব্রেন্ডন ম্যাকালাম (৪৩), এবি ডেভিলিয়র্স (৪৪), বিরাট কোহলি (৩১) এবং মনদীপ সিং (৩৭) ভালো শুরু করলেও, শেষ পর্যন্ত নিজেদের ইনিংসকে বড় রানে পরিবর্তন করতে পারেন নি। অন্যদিকে কেকেআরের হয়ে ওপেনার সুনীল নারিন ১৯ বলে দ্রুত পঞ্চাশ রান করার পরে, মিডল অর্ডারে অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক (৩৫) এবং নীতিশ রানা (৩৪) দলকে নির্ভরতা দিয়ে আরসিবির ১৭৭ রান তাড়া করতে নেমে দলকে জয়ের পথে নিয়ে যান। এই ম্যাচের কিছু স্ট্যাটিস্টিক্যাল রিপোর্ট তুলে ধরা হল।

আইপিএল ২০১৮: ম্যাচ ৩, আরবিসি বনাম কেকেআর, স্ট্যাটিস্টিক্যাল হাইলাইট 2

কেকেআর বনাম আরবিসি ম্যাচের সমস্ত স্ট্যাটিস্টিক্যাল রেকর্ড:

১— সুনীল নারিন আইপিএলের প্রথম প্লেয়ার হিসেবে মাত্র ১৭ বা তার কিছু বেশি বলে একাধিক হাফ সেঞ্চুরি করেন। ২০১৭য় ১৫ বলে ৫০ রান করে তিনি আইপিএলের দ্রুততম হাফ সেঞ্চুরি করেছিলেন আরসিবির বিরুদ্ধেই। ১৭ বা তার সামান্য বেশি বলে টি২০ ফর্ম্যাটে একাধিক হাফ সেঞ্চুরি করার তালিকায় তিনি চতুর্থ স্থানে রয়েছেন। তার আগে রয়েছেন যথাক্রমে ক্রিস গেইল (৩), কায়রন পোলার্ড (২) এবং ইমরান নাজির (২)।

৩— আইপিএলের তৃতীয় বোলার হিসেবে একই ওভারের পরপর দু বলে ডেভিলিয়র্স এবং কোহলির উইকেট নেন নীতিশ রানা। তার আগে একই ওভারের পরপর দু বলে আরসিবির এই দুই সেরা ব্যাটসম্যানের উইকেট নেন জ্যাক কালিস (২০১৩, কেকেআরের হয়ে) এবং থিসেরা পেরেরা (২০১৬, রাইজিং পুণে সুপারস্টারের হয়ে)।
কেকেআর বনাম আরবিসি ম্যাচের সমস্ত স্ট্যাটিস্টিক্যাল রেকর্ড:

১— সুনীল নারিন আইপিএলের প্রথম প্লেয়ার হিসেবে মাত্র ১৭ বা তার কিছু বেশি বলে একাধিক হাফ সেঞ্চুরি করেন। ২০১৭য় ১৫ বলে ৫০ রান করে তিনি আইপিএলের দ্রুততম হাফ সেঞ্চুরি করেছিলেন আরসিবির বিরুদ্ধেই। ১৭ বা তার সামান্য বেশি বলে টি২০ ফর্ম্যাটে একাধিক হাফ সেঞ্চুরি করার তালিকায় তিনি চতুর্থ স্থানে রয়েছেন। তার আগে রয়েছেন যথাক্রমে ক্রিস গেইল (৩), কায়রন পোলার্ড (২) এবং ইমরান নাজির (২)।

৩— আইপিএলের তৃতীয় বোলার হিসেবে একই ওভারের পরপর দু বলে ডেভিলিয়র্স এবং কোহলির উইকেট নেন নীতিশ রানা। তার আগে একই ওভারের পরপর দু বলে আরসিবির এই দুই সেরা ব্যাটসম্যানের উইকেট নেন জ্যাক কালিস (২০১৩, কেকেআরের হয়ে) এবং থিসেরা পেরেরা (২০১৬, রাইজিং পুণে সুপারস্টারের হয়ে)।

আইপিএল ২০১৮: ম্যাচ ৩, আরবিসি বনাম কেকেআর, স্ট্যাটিস্টিক্যাল হাইলাইট 3

২৫.5 — মিচেল জনসন টি২০ ফর্ম্যাটে এই সংখ্য ওভার উইকেটবিহীন থাকেন। সম্প্রতি শেষ হওয়া বিপিএলের শেষ পাঁচটি ম্যাচে উইকেট নিতে ব্যর্থ হয়েছেন তিনি। এই ম্যাচের শেষতম ওভারে তিনি সরফরাজ খানকে আউট করেন।

৪৮ – এই ম্যাচের চার ওভারে ওয়াশিংটন সুন্দরের দেওয়া রানের সংখ্যা। নিজের টি২০ কেরিয়ারের ২৭টি ম্যাচের মধ্যে এই প্রথম তিনি ৪০ এর বেশি রান দিলেন।

১৫০— এই ম্যাচটি বিরাট কোহলি এবং রবিন উথাপ্পার ১৫০ তম আইপিএল ম্যাচ। আইপিএলে কোহলিই প্রথম খেলোয়াড় যিনি একটি কেবল মাত্র দলের হয়েই ১৫০টি আইপিএল ম্যাচ খেলেছেন। এখনও পর্যন্ত তার খেলা সবকটা আইপিএল ম্যাচই আরসিবির হয়ে।

আইপিএল ২০১৮: ম্যাচ ৩, আরবিসি বনাম কেকেআর, স্ট্যাটিস্টিক্যাল হাইলাইট 4

১৬২— এবি ডেভিলিয়র্সের আইপিএলে মারা ছয়ের সংখ্যা। এখনও পর্যন্ত এই সংখ্যাটি আইপিএলে যে কোন ব্যাটসম্যানের মারা চতুর্থ সর্বোচ্চ এবং যে কোনও বিদেশি ব্যাটসম্যানের হিসেবে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। আইপিএলে সবচেয়ে বেশি ছয় মারার সংখ্যায় ডেভিলিয়র্সের আগে রয়েছেন ক্রিস গেইল (২৬৫), রোহিত শর্মা ((১৭৩) এবং সুরেশ রায়না (১৭৩)।

৯০৩৫ – এই ম্যাচে টি২০ ক্রিকেটে ৯০০০ রান পূর্ণ করলেন ব্রেন্ডন ম্যাকালাম। ক্রিস গেলের পর তিনিই দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে ৯০০০ রান পূর্ণ করলেন টি২০ ফর্ম্যাটে। আরসিবির ইনিংসের প্রথম ওভারেই বিনয় কুমারকে ছক্কা মেরে এই রেকর্ড স্পর্শ করেন তিনি।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *