আইপিএল ২০১৮: দিল্লি ডেয়ারডেভিলস বনাম কলকাতা নাইট রাইডার্স, দেখে নিন নথিভুক্ত হওয়া পরিসংখ্যানগত তথ্যাবলী

নতুন অধিনায়কের হাত ধরে ভাগ্য পরিবর্তন হল দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের। নতুন অধিনায়কের হাত ধরে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে ঘরের ৫৫ রানে হারিয়ে এই মরশুমে তাদের দ্বিতীয় জয় তুলে নিল তারা। মুম্বাইয়ের তরুণ তারকা পৃথ্বী শ’য়ের দুরন্ত ৬২ রান এবং এই ম্যাচে অধিনায়ক হিসেবে অভিষেক হওয়া শ্রেয়স আইয়ারের বিধ্বংস ৪০ বলে ৯৩ রানের ইনিংসের সৌজন্য কলকাতার বিরুদ্ধে ২১৯/৪ রানের বিশাল স্কোর দাঁড়া করায় দিল্লি। অধিনায়ক আইয়ার তার ইনিংসে ৩টি চার এবং রেকর্ড সংখ্যক দশটি ছয় মারে তার ইনিংসে। যার সুবাদে শেষ চার ওভারে তারা ৭৬ রান তোলে। অন্যদিকে ব্যাট করতে নেমে শুরুর ৬ ওভারেই চার উইকেট হারিয়ে ফেলে কলকাতা নাইট রাইডার্স। মূলত সেখানেই দিল্লির কাছে ম্যাচটি হেরে যায় তারা। যদিও শেষ দিকে অ্যান্দ্রে রাসেল খানিকটা চেষ্টা করলেও তা শুধু তাদের হারের ব্যবধানকে সামান্যই কম করতে পেরেছে মাত্র।

আইপিএল ২০১৮: দিল্লি ডেয়ারডেভিলস বনাম কলকাতা নাইট রাইডার্স, দেখে নিন নথিভুক্ত হওয়া পরিসংখ্যানগত তথ্যাবলী 1

পরিসংখ্যানগত রেকর্ড যা নথিভুক্ত হল এই ম্যাচে:

১০— অপরাজিত ৯৩ রানের ইনিংস খেলার পথে এই ম্যাচে যত গুলো ছয় মারলেন শ্রেয়স আইয়ার। অধিনায়ক হিসেবে এক ইনিংসে দশটি ছয় মারা ক্ষেত্রে আইপিএলের ইতিহাসে তিনিই প্রথম। এর আগে এই কৃতিত্বের অধিকারী ছিলেন অ্যাডাম গ্রিলক্রিস্ট। তিনি ২০১১ মরশুমে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে, আরসিবির বিরুদ্ধে ১০৬ রানের ইনিংস খেলার পথে ৯টি ছয় মেরেছিলেন। এছাড়াও দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের একমাত্র প্লেয়ার হিসেবে আইপিএলে দশটি ছয় মারার কৃতিত্ব অর্জন করলেন শ্রেয়স। এই একই মাঠে এর আগে কেভিন পিটারসন ২০১১ মরশুমে এবং ঋষভ পন্থ ২০১৭ মরশুমে ৯টি করে ছয় মেরেছিলেন এক ইনিংসে।

১০— মাত্র তৃতীয় ভারতীয় হিসেবে আইপিএলের এক ইনিংসে ১০ বা তার বেশি ছয় মারার কৃতিত্ব অর্জন করলেন শ্রেয়স আইয়ার। তার আগে দুই ভারতীয় হলে মুরলী বিজয় যিনি সিএসকের হয়ে ২০১০ মরশুমে ১১টি ছয় মেরেছিলেনে, এবং চলতি মরশুমের গোড়া সঞ্জু স্যামসন রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে আরসিবির বিরুদ্ধে ১০টি ছয় মারেন।

১১— শ্রেয়স আইয়ার আইপিএলে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের ১১ তম অধিনায়ক। এই ১১ জন অধিনায়কের মধ্যে তিনিই সবচেয়ে তরুণতম অধিনায়ক। এছাড়াও আইপিএলে তরুণতম অধিনায়ক হিসেবে তিনি চতুর্থ। তিনি এবং সেহবাগই একমাত্র ডেয়ারডেভিলস অধিনায়ক যারা তাদের অধিনায়ক হিসেবে প্রথম ম্যাচে জয় পেয়েছেন।
আইপিএল ২০১৮: দিল্লি ডেয়ারডেভিলস বনাম কলকাতা নাইট রাইডার্স, দেখে নিন নথিভুক্ত হওয়া পরিসংখ্যানগত তথ্যাবলী 2
১৮ বছর ১৬৯ দিন— যুগ্মভাবে আইপিএলের সবচেয়ে তরুণ প্লেয়ার হিসেবে এই ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি করলেন পৃথ্বী শ। তিনি সঞ্জু স্যামসনে ২০১৩ মরশুমে রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে আরসিবির বিরুদ্ধে ১৮ বছর ১৬৯ দিনে হাফ সেঞ্চুরি করার রেকর্ড স্পর্শ করলেন।

২২— কলকাতা এবং দিল্লির মধ্যে হওয়া এটি ২২ তম ম্যাচ এবং টি২০তে ২১ তম ম্যাচ যেখানে দুদলের প্রথম একাদশে ছিলেন না গৌতম গম্ভীর।

৯৩*– এই ম্যাচে দিল্লি অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ারের অপরাজিত ৯৩ রানের ইনিংসটি অধিনায়ক হিসেবে অভিষেকের প্রথম ম্যাচে আইপিএলে যে কোনও প্লেয়ারের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রান। এর আগে এই রেকর্ড ছিল অ্যারন ফিঞ্চের যিনি ২০১৩ মরশুমে পুণে ওয়ারিয়ার্সের হয়ে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে ৬৪ রান করেছিলেন অধিনায়ক হিসেবে প্রথম ম্যাচেই।
আইপিএল ২০১৮: দিল্লি ডেয়ারডেভিলস বনাম কলকাতা নাইট রাইডার্স, দেখে নিন নথিভুক্ত হওয়া পরিসংখ্যানগত তথ্যাবলী 3

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *