আইপিএল ২০১৮: কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব বনাম কেকেয়ার, ম্যাচ শেষে কার কি বক্তব্য জেনে নেওয়া যাক 1

এখনও পর্যন্ত কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে আইপিএলে অপ্রতিরোধ্য মনে হচ্ছে। তাদের দুই বিস্ফোরক ওপেনার ক্রিস গেইল এবং কে এল রাহুলের সৌজন্যে এদিন ইডেনে তারা কলকাতা নাইট রাইডার্সকে হারিয়ে দিল ৯ উইকেটে। বাস্তবে কলকাতার কোনও বোলারকেই ছেড়ে কথা বলেন নি কিংসের দুই ওপেনার, এবং বিপক্ষকে একপ্রকার হেনেস্থা করেই পাওয়ার প্লে’তেই ম্যাচ শেষ করে দেন তারা। যদিও নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৯১ রান করে এই ম্যচে কলকাতা তাদের সম্ভবনাও বাড়িয়ে তুলেছিল। এই ম্যাচে শেষ পর্যন্ত নিজের ফর্ম ফিরে পেলেন নাইট ওপেনার ক্রিস লিন। ইনিংসের শুরু থেকেই কিংসের হাত থেকে ম্যাচ ছিনিয়ে নেওয়ার লক্ষ্যে ছিলেন এই অজি ব্যাটসম্যান।

আইপিএল ২০১৮: কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব বনাম কেকেয়ার, ম্যাচ শেষে কার কি বক্তব্য জেনে নেওয়া যাক 2

এক সময় মনে হচ্ছিল নাইটরা সহজের ২০০ রানের বেশি তুলে দেবে স্কোরবোর্ডে। লিনকে যথোপযোগী সহযোগিতা করেন রবিন উথাপ্পা এবং অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক। তবে কিংসের বোলারদের প্রশংসাপ্রাপ্য যে তারা দারুণভাবে ডেথ ওভারে কিংসকে ম্যাচে ফিরিয়ে আনেন বিশেষ করে অ্যান্ড্রু টাই যিনি তার শেষ দু ওভারে মাত্র ৬ রান দিয়ে আটকে দেন কেকেআর ব্যাটসম্যানদের। অন্যদিকে ঘরের মাঠের দর্শকদের কাছে লিনের ইনিংসটি ছিল স্পেশাল, মাত্র ৪১ বলে ৭৪ রানের ইনিংস খেলেন এই অস্ট্রেলীয়। জবাবে ব্যাট করতে নেমে প্রয়োজনের তুলনায় একটু বেশিই বিধ্বংসী ছিলেন পাঞ্জাবের দুই ওপেনার। প্রথম ৬ ওভারেই তারা বিপক্ষকে ধরাশায়ী করে দেন। অন্যদিকে কেকেআর বোলাররা বুঝতেই পারছিলেন না তারা ঠিক কিভাবে বল করবেন মারমুখি মেজাজের দুই ব্যাটসম্যান কেএল রাহুল এবং ক্রিস গেইলকে। ইতিমধ্যেই এই দুই ওপেনার আইপিএলে ঝড় তুলে দিয়েছেন।

আইপিএল ২০১৮: কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব বনাম কেকেয়ার, ম্যাচ শেষে কার কি বক্তব্য জেনে নেওয়া যাক 3

দীনেশ কার্তিকের উদ্ধারকর্তা হিসেবে বৃষ্টি এগিয়ে এলেও পাঞ্জাব ৯ ওভার শেষে কেকেআরের থেকে ৩১ রানের বিশাল ব্যবধানে এগিয়ে যায়। ফলে বৃষ্টি থামার পর সময় কমিয়ে এনে ফের খেলা চালু হলে তা কেবল নিয়ম রক্ষার হয়ে দাঁড়ায়। শেষ পর্যন্ত এই ম্যাচ পাঞ্জাব জিতে নেয় ৯ উইকেটে। একবার দেখে নেওয়া যাক ম্যাচ শেষে কার কি বক্তব্য।

আইপিএল ২০১৮: কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব বনাম কেকেয়ার, ম্যাচ শেষে কার কি বক্তব্য জেনে নেওয়া যাক 4

ম্যান অফ দ্য ম্যাচ—কেএল রাহুল

“আমি যা করে চলেছি আমি থামাতে চাই না। বেশ ভাল গতিতেই রয়েছি এবং ম্যাচও জিততে চাই। আমি অ্যাগ্রেসিভ মানসিকতা নিয়েই এগিয়ে চলেছি এবং আমার প্রতিভার সাহায্যে আমার ক্ষমতার মধ্যে থেকে বোলারদের শাসন করার চেষ্টা করছি। এটা আমার জন্য কাজ করছে। আপনি খেলাটাকে যতটা সাধারণ রাখতে পারবেন ততই ব্যাটসম্যান হিসেবেও আপনি পরিস্কার থাকবেন। আমার ব্যাটিংকে আমি জটিল করতে চাই না শুধু বল দেখতে এবং মারতে চাই। আমার ভান্ডারে প্রচুর ক্রিকেটীয় শট রয়েছে। আমার পায়ের নড়াচড়া ভাল হচ্ছে এবং বল ভাল মারতে পারছি। আমি এটা নিশ্চিত করতে চাই যাতে আমি এটা বড় করতে পারি এবং শেষ পর্যন্ত টিকে থাকতে পারি। আমি এবং ক্রিস আমাদের ম্যাচ ফিরে পেতে চেয়েছিলাম। যদি ক্রিস আউট হয়ে যেতে তার মানে এটা হত না যে আমি ধীরে হয়ে যেতাম। যদি ও বোলারকে পছন্দ করতে আমি তাহলে ওকে স্ট্রাইক দিতাম। কিন্তু এটা ওভাবে হয় নি। আমরা বাইরে অন্যকিছু নিয়ে আলোচনা করছিলাম, কিন্তু যখন আমরা ক্রিজে নামি, আমরা যা করছিলাম তাই চালিয়ে যেতে থাকি এবং আর বেশি কিছুই ভাবি নি”।

আইপিএল ২০১৮: কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব বনাম কেকেয়ার, ম্যাচ শেষে কার কি বক্তব্য জেনে নেওয়া যাক 5

রবিচন্দ্রন অশ্বিন – কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব অধিনায়ক

“আগের ম্যাচের থেকেও অনেক বেশি খুশি। দ্বিতীয় টাইমআউটের সময়, আমি ছেলেদের জড়ো করে বলি যদি আমরা ওদের ১৯০ এর মধ্যে আটকে রাখতে পারি তাহলে ব্যাটসম্যানদের জন্য দারুণ সুযোগ হবে। আপনি সত্যিই ক্রিস গেইলের মত প্লেয়ারদের নিয়ে কোনও পরিকল্পনাই করতে পারেন না। আমরা একটা দল যারা ব্যাট হাতে পাওয়ার প্লেতেই জিতে নিতে চাই”

আইপিএল ২০১৮: কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব বনাম কেকেয়ার, ম্যাচ শেষে কার কি বক্তব্য জেনে নেওয়া যাক 6

দীনেশ কার্ত্তিক–কলকাতা নাইট রাইডার্স অধিনায়ক

“আমার মনে হয় ওরা আমাদের পাওয়ার প্লে’তেই ম্যাচ নিয়ে যায় এবং সত্যিই দারুণ শট খেলেছে। সম্ভবত একটা ট্রেন্ডই হয়ে গেছে যেখানে ব্যাট হাতে আমরা শেষ কয়েক ওভারে রান করতে পারি নি। আমাদের ভালভাবে ইনিংস শেষ করাটাই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা আমদের পরিকল্পনা ভালভাবে বাস্তবায়িত করতে পারি নি এবং আপনি যদি লেংথ মিস করেন তাহলে গেইলের মত প্লেয়ার সবসময়েই মেরে দেবে। এখানে দর্শকরা দারুণ ছিল, এবং তাদের সামনে খেলতে পেরে গর্বিত বোধ করছি এবং তারা কেকেআরের সব থেকে বড় সমর্থক”

আইপিএল ২০১৮: কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব বনাম কেকেয়ার, ম্যাচ শেষে কার কি বক্তব্য জেনে নেওয়া যাক 7

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *