আইপিএলে এই বোলারের সঙ্গে জুটি বাঁধা নিয়ে আশাবাদী যজুবেন্দ্র চহেল

শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত নিদাহাস ত্রিদেশীয় সিরিজে ভারতকে জেতানোর ব্যাপারে বলারদের মধ্যে তিনি প্রধান ভুমিকায় ছিলেন। বিপক্ষে শ্রীলঙ্কা হোক বা বাংলাদেশ পাওয়ার প্লেতে বিপক্ষকে সবসময় চাপে রেখেছিল তার অফস্পিন। তিনি ভারতীয় দলের নতুন স্পিনার ওয়াশিংটন সুন্দর। এ ব্যাপারের আইপিএলে তিনি জায়গা পেয়েছেন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু দলে। জাতীয় দলে তার অধিনায়কেই এবার আইপিএলেও পাবে তিনি অধিনায়ক হিসেবে। আরবিসির আরেক বোলার তথা ভারতীয় দলের এই মুহুর্তের সফলতম স্পিনার যজুবেন্দ্র চহেল আগেই বলেছিলেন যে ওয়াশিংটনের মত স্পিনারকে পেয়ে পাওয়ার প্লে তে বিরাটের হাতে অনেক বেশি বিকল্প বাড়বে। আইপিএলের প্রথম ম্যাচেই কলকাতায় নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে খেলবে ব্যাঙ্গালুরু। এই মুহুর্তে প্রস্তুতিও ভালোমতই শুরু করে দিয়েছে তারা। আরবিসির অনুশীলন চলাকালীনই মঙ্গলবার সাংবাদিকদের মুখোমুখী হয়েছিলেন চহেল।

সুন্দরকে নিয়ে বলতে গিয়ে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, “আমাদের হাতে বিকল্প বেড়ে গিয়েছে ওয়াশিংটন সুন্দরের মত বোলারকে হাতে পাওয়ায়। শ্রীলঙ্কায় নিদাহাস ট্রফিতে সুন্দর পাওয়ার প্লেতে বল করেছিল আর আমি মাঝের ওভারগুলোয়। ফলে আমাদের মধ্যে কোনও সমস্যা হয় নি”। প্রসঙ্গত ব্যাঙ্গালুরুর ব্যাটিং শক্তি চিরকালই শক্তিশালী হলেও বোলারের সমস্যা তাদের সবসময়ই ভুগিয়েছে। আগের বারের আইপিএলেও ব্যাঙ্গালুরুর সমস্যা দেখা দিয়েছিল। তবে এবার চহেলের মতে সেই সমস্যা দেখা যাবে না। নিজেদের বোলিংয়ের সমস্যা নিয়ে বলতে চহেল সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, “ গতবারের আইপিএলে যেহেতু আমাকে পাওয়ার প্লে-তে দু’ওভার বল করতে হচ্ছি ফলে পরের দিকে আমার হাতে থাকত মাত্র দু ওভার। তবে এবার যেহেতু সুন্দর রয়েছে ফলে আমাদের বিকল্প বেড়েছে। দুজনের মধ্যে কোনও একজন পাওয়ার প্লে-তে দু ওভার বল করলেও পরের দিকে স্পিনারদের হাতে আরও বেশ কয়েকটা ওভার থেকে যাবে”। সীমিত ওভারের ক্রিকেটে দেখা যায় রিস্ট স্পিনাররা ভালো বল করলেও অনেক সময় মার খেয়ে যান।

আর টি২০তে মার খাওয়ার আশঙ্কা আরও বেশ করেই থাকে। কিন্তু চহেলের মতে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে প্রথম দিকে মার খেলেও পরের দিকে ফিরে আসার রাস্তা খোলা থাকে। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, “ টি২০ মত ক্রিকেটে ব্যাটসম্যানরা যে কোনও সময় যে কোনও বল মেরে দিতে পার। যেমন শ্রীলঙ্কায় নিদাহাস ট্রফিতে শ্রীলঙ্কান ব্যাটসম্যানরা আমার দু’ওভারে ২৭ রান নিয়েছিল। সেই সময় আমি নিজেকেই বলেছিলাম ওটা ভুলে গিয়ে উইকেট তোলার দিকে জোর দাও”। যদিও চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে বিশেষ করে স্পিনারদের বল করা ভীষণই কঠিন। ফলে স্পিনারদের কাছে ওখানকার পিচে বল করা সবসময়ই বড় পরীক্ষা। যা নিয়ে চহেল বলেন, “চিন্নাস্বামীতে একবার বল করে এলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলতে নামলে অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী থাকা যায়। এখানকার বাউন্ডারি ছোট হওয়ায় সবসময় স্পিনারদের চিন্তা থাকে। কিন্তু আমি প্রথম থেকেই চিন্নাস্বামীতে বল করে এসেছি বলে বিশ্বের যে কোনও মাঠেই বল করতে তৈরি থাকি, ভয় থাকে না”। তবে চহেলে পরের কথায় আইপিএল দলগুলির স্পিনাররা চিন্তায় পড়তে পারেন। এই স্পিন তারকা পরিস্কারই বলে দিচ্ছেন যে এবারের চিন্নাস্বামীর পিচ আগের চেয়েও অনেক বেশি পাটা। ফলে তা ব্যাটসম্যানের কাছে স্বর্গরাজ্যে পরিনত হয়েছে। তাই এবারে এই মাঠের পিচ বোলারদের ভালো মতই পরীক্ষা নেবে।

SHARE
সাংবাদিক, আদ্যন্ত ক্রীড়াপ্রেমী। ব্রায়ান লারা সচিনের ভক্ত। ক্রিকেটের বাইরে ব্রাজিলের সমর্থক এবং নেইমার ও মেসির অন্ধ ভক্ত।

আরও পড়ুন

ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া: ইশান্ত শর্মা করলেন লাগাতার নো বল,অ্যাম্পায়ার ধ্যান না দেওয়ায় ক্ষুব্ধ হলেন অস্ট্রেলিয়ান তারকা

অস্ট্রেলিয়ার আর ভারতের মধ্যে চলতি বর্ডার-গাভাস্কার ট্রফির সবে প্রথম ম্যাচেই হয়েছে আর বিতর্ক নিজের রূপ দেখাতে শুরু...

ভুবনেশ্বর কুমারকে দলে জায়গা না দেওয়ার কারণে কোহোলি-শাস্ত্রীর উপর ক্ষুব্ধ সমর্থকরা

ভুবনেশ্বর কুমারকে দলে জায়গা না দেওয়ার কারণে কোহোলি-শাস্ত্রীর উপর ক্ষুব্ধ সমর্থকরা
অস্ট্রেলিয়ার আর ভারতের মধ্যে পার্থে দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচ শুরু হয়ে গিয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক টিম পেন টসে জিতে...

মাজানসি সুপার লিগ ২০১৮: মহেন্দ্র সিং ধোনির হেলিকপ্টার শট খেললেন রশিদ খান

কিছুদিন আগে টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়া আফগানিস্তানের বর্তমান তারকা ক্রিকেটারের তালিকায় সবার উপরে রয়েছেন রশিদ খান। সাদা বলের...

INDvsAUS: একুশ শতকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভারতের সেরা ৫টি জয়

সারা বিশ্বে ক্রিকেট ব্যাট-বলের খেলা হিসেবে পরিচিত থাকলেও আধুনিক যুগে এসে এর চেয়ে বেশি কিছু দেখা যায়...

INDvsASU: দ্বিতীয় টেস্টে জয়ের ধারা বজায় রাখতে হলে একটু ভিন্নভাবে ভাবতে হবে টিম ইন্ডিয়াকে

অ্যাডিলেইডে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে ভারত জয় পেলেও ম্যাচটি ছিল বেশ উত্তেজনাপূর্ণ। মাত্র ৩১ রানের জয়...