অস্ট্রেলিয়া বনাম ভারত ২০১৭ : অস্ট্রেলিয়ার বাসে ঢিল ছুড়ার সমালোচনা করে যা বললেন আশ্বিন 1

অস্ট্রেলিয়া বনাম ভারত ২০১৭ : অস্ট্রেলিয়ার বাসে ঢিল ছুড়ার সমালোচনা করে যা বললেন আশ্বিন 2

দ্বিতীয় টি টুয়েন্টি ম্যাচে ভারত সফরে প্রথম বারের মত সিরিজে ফিরেছিল অস্ট্রেলিয়া। তিন ম্যাচের টি টুয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচ হারায় যদি দ্বিতীয় ম্যাচেও হারত তবে তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ হত নিয়ম রক্ষার ম্যাচ, কিন্তু দ্বিতীয় ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার জয়ে সিরিজ কেবল ১-১ এ সমতা ই আসে নি পাশাপাশি শেষ ম্যাচ পরিনত হল অঘোষিত ফাইনালে। প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া করেছিল ১১৮ রান। এবার সেই ১১৮ রানেই গুটিয়ে গেল ভারত নিজেরাই। নিজেদের মাটিতে অজিদের বিপক্ষে ১ ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জয়ের স্বপ্ন ছিল তাদের। কিন্তু এখন সিরিজ হারের শঙ্কাও পেয়ে বসেছে তাদের। কিন্তু অজি দল যখন হোটেলে ফিরছিল তখন তাদের বাস লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়া হয়। এতে ওই বাসের একটি জানলার কাচ ভেঙে যায়। ওই জানলা-সংলগ্ন আসনে কোনো ক্রিকেটার বা স্টাফ ছিলেন না। আসনটি ফাঁকা থাকায় কোনো ক্ষতি হয়নি। ঘটনায় আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা চাওয়া পাশাপাশি ঘটনার জন্য তীব্রও নিন্দাও জানান। এক টুইটে তিনি বলেন, ভীষণই দু্র্ভাগ্যজনক ঘটনা। একটা দুর্দান্ত ম্যাচের পর গুয়াহাটির ভাবমূর্তি কালিমালিপ্ত করতেই এই হামলা

করা হয়েছে। আসামের মানুষ এ ধরনের ব্যবহার সমর্থন করেন না। আমরা দোষীদের শাস্তি দেব। এবার এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভারতীয় জাতীয় দলের ক্রিকেটার রবীচন্দ্র আশ্বিনও। এক টুইট বার্তায় তিনি লিখেন, ” টিম বাস হোটেলে ফিরার পথে বাসের জানালায় ঠিল মারা ভীতিকর ঘটনা।” এ ধরনের ঘটনা যেমন ক্রিকেটীয় চেতনার পরিপন্থী তেমনি ভারতের সংস্কৃতির সাথেও সাঘর্ষিক। বর্তমানে জাতীয় দলের বাহিরে থাকা ত্রিশ বছর বয়স্ক এই স্পিনার আরো লিখেন, ” ভারত এমন একটা দেশ যা আমাদের শিক্ষায় অতিথিদের আন্তরিক ভাবে আতিথেয়তা দেওয়ার।”

তিনি আরো লিখেন, “এভাবে পাথর ছুড়া আমাদের সম্পর্কে ভুল বার্তা দিবে, আমাদের আরো দায়িত্ব নিয়ে কাজ করা উচিত।”

এদিকে ম্যাচ শেষে ভারত অধিনায়কস্বীকার করেছেন যে তারা প্রত্যাশা অনুযায়ী খেলতে পারে নি, বিশেষ করে ব্যাটসম্যানরা ব্যর্থ হয়েছে এবং শিশিরের কারনে বোলাররা ঠিক ভাবে বল করে চাপে রাখতে পারে নি। তিনি বলেন, ‘ আমরা আমাদের ইচ্ছা মত খেলতে পারি নি। ব্যাট হাতে আমরা যথেষ্ট ভাল ছিলাম না। আর এরপরে শিশিরের কারনে আমরা খেলার নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারি নায়। “বেহরেনডর্ফের প্রশংসা করে তিনি আরো বলেছেন, “রোহিত শর্মা যে বলে আউট হয়েছে সেটি খুব ভাল বল ছিল। সে কঠিন ভাবে লাইন। ও লেন্থ বজায় রেখে বল করেছে।”

Nazmus Sajid

Sports Fanatic!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *