নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে চলতি টি২০ সিরিজের প্রথম ম্যাচে ব্যাট হাতে ব্যার্থ হলেও দুরন্ত ক্যাচ নিয়ে সকলকে চমকে দিলেন ভারতের নতুন তারকা হার্দিক পান্ডিয়া। হার্দিকের এই অবিশ্বাস্য ক্যাচই বুঝিয়ে দিল এই মুহুর্তে মডার্ন ক্রিকেটে ফিল্ডিংয়ের মান কোন পর্যায়ে পৌঁছেছে। এতদিন সীমিত ওভারের খেলায় ব্যাট বা বল হাতেই জ্বলে উঠতে দেখা গেছে ভারতের এই উঠতি তারকাকে। কিন্তু বুধবার নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে নেওয়া ওই অভাবনীয় ক্যাচের পর এবার ফিল্ডিং নিয়েও আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে তিনি। তার ওই ক্যাচ নিয়ে সোস্যাল মিডিয়াতে চলছে লাগাতার আলোচনা। কেউ কেউ বলছেন ‘ফ্লায়িং পাণ্ড্য’ কেউ বা লিখছেন, ‘কুংফু পাণ্ডা’।

স্বাভাবিক ভাবে তুলনা চলে আসছে আইপিলে তার টিম মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের ফিল্ডিং কোচ জন্টি রোডসে্র সঙ্গে। ঠিক কি হয়েছিল ওইদিনের ম্যাচে? বুধবার ফিরোজ শাহ কোটলায় নিউজিল্যান্ডে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে বোলারের মাথার উপর দিয়ে তুলে মেরেছিলেন নিউজিল্যান্ড ওপেনার মার্টিন গাপ্টিল। সেই বল ফলো করে লং অফে দাঁড়ানো হার্দিক ছুটতে শুরু করেন। বলের কাছে পৌঁছতে পারবেন না বুঝতে পেরে শেষ মুহুর্তে শূন্যে শরীর ছুঁড়ে দেন তিনি। শূন্যে থাকা অবস্থাতেই মাটির থেকে হাত খানেক উঁচুতে বলটিকে তালু বন্দি করেন তিনি। তার এই ক্যাচ নেওয়ায় হতবাক হয়ে যান নিউজিল্যান্ডের দুই ওপেনার সহ ভারতীয় দলের খেলোয়াড়রাও। হতভম্ব রেশ কাটিয়ে এরপর বিরাট সহ অন্যান্য ভারতীয় খেলোয়াড়রা ছুটে আসেন হার্দিককে অভিনন্দন জানাতে। কেউই বিশ্বাস করতে পারছিলেন না হার্দিক এমন একটা অবশ্বাস্য কাচ নিয়েছেন। ড্রেসিংরুম থেকে জল দিতে এসে অতিরিক্ত খেলোয়াড়ও হার্দিকের পিঠ চাপড়ে দেন।

এরপর স্বাভাবিকভাবেই সোসাল মিডিয়ায় রোডসের সঙ্গে তুলনার চলে আসে হার্দিকের নাম। শুধু বর্তুমান খেলোয়াড়রাই নন হার্দিকের এমন ক্যাচ দেখে মুগ্ধ কমেন্টেটর থেকে প্রাক্তণ ভারতীয় খেলোয়াড়রাও। ম্যাচ শেষে সঞ্জয় মঞ্জেরেকর টুইট করেন, ‘ জানি এটা নেহেরার ফেয়ারওয়েল ম্যাচ। জানি এই ম্যাচ ভারত বিশাল ব্যবধানে জিতেছে। কিন্তু আমার কাছে এই ম্যাচের সব থেকে বড়ো স্মৃতি হার্দিকের ক্যাচ’। ফিল্ডিংয়ের জন্য একসময় বিখ্যাত হওয়া প্রাক্তন ভারতীয় খেলোয়াড় মহম্মদ কাইফ টুইট করেন, ‘ অবিশ্বাস্য একটা ক্যাচ। ছুটতে ছুটতে শরীর ছুঁড়ে ক্যাচ নেওয়া। সেই সঙ্গে বলটাকে নিজের নিয়ন্ত্রণে রাখা। দুর্দান্ত প্রচেষ্টা। ওয়েল ডান হার্দিক”। হার্দিকের ক্যাচে মুগ্ধ তার অধিনায়ক বিরাট কোহলিও। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসে তিনি বলেন, ‘গাপ্টিলের যে ক্যাচটা হার্দিক নিয়েছে তা নিঃসন্দেহে আমার দেখা সেরা ক্যাচ’। এই ক্যাচ দেখে আইপিএলে হার্দিকের সতীর্থ কি বলবেন হার্দিককে? নিঃসন্দেহে তার পিঠ চাপড়ে দিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার ফিল্ডিং কিংবদন্তী বলবেন ‘ওয়েল ডান হার্দিক’।

SHARE
সাংবাদিক, আদ্যন্ত ক্রীড়াপ্রেমী। ব্রায়ান লারা সচিনের ভক্ত। ক্রিকেটের বাইরে ব্রাজিলের সমর্থক এবং নেইমার ও মেসির অন্ধ ভক্ত।

আরও পড়ুন

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বাধিক সেঞ্চুরির মালিক যে পাঁচ ক্রিকেটার

ক্রিকেটে একজন ব্যাটসম্যানের মানদণ্ড বিচার করার ক্ষেত্রে কোন ব্যাটসম্যান কত সংখ্যক সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন তাঁর ক্যারিয়ারে তা অতীব...

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে যে তিনটি মাইলফলক স্পর্শ করতে পারেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা

ঘরের মাটিতে জয়রথ যেন থামছেই না টিম ইন্ডিয়ার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সাদা পোশাকে সিরিজ জয়ের পর রঙিন...

স্ট্যাটস: ভারত বনাম ওয়েস্টইন্ডিজ: প্রথম ওয়ানডেতে হতে পারে সাতটি রেকর্ড, রোহিত আর ধবন ইতিহাস বইতে নথিভূক্ত করতে পারেন নিজের নাম

স্ট্যাটস: ভারত বনাম ওয়েস্টইন্ডিজ: প্রথম ওয়ানডেতে হতে পারে সাতটি রেকর্ড, রোহিত আর ধবন ইতিহাস বইতে নথিভূক্ত করতে পারেন নিজের নাম
ভারতীয় দল আর ওয়েস্টইন্ডিজ দলের মধ্যে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ আগামিকাল ২১ অক্টোবর গুয়াহাটির মাঠে...

হ্যাপি বার্থ ডে সেহবাগ: এই ৫টি জিনিস প্রমান করে যে এখনও পর্যন্ত হয়নি বীরেন্দ্র সেহবাগের মত ব্যাটসম্যান

হ্যাপি বার্থ ডে সেহবাগ: এই ৫টি জিনিস প্রমান করে যে এখনও পর্যন্ত হয়নি বীরেন্দ্র সেহবাগের মত ব্যাটসম্যান
বিশ্বের সবচেয়ে আক্রামণাত্মক ওপেনার্সদের একজন বীরেন্দ্র সেহবাগ ৪০তম জন্মদিন পালন করছেন। ক্রিকেট জগত আর ওপেনিংকে নতুন পরিভাষা...

প্রত্যেক উইকেট নেওয়ার পর মিলত ১০ টাকা, ভারতীয় দলে জায়গা পাওয়ার পর রাতভর কেঁদেছিলেন এই খেলোয়াড়

প্রত্যেক উইকেট নেওয়ার পর মিলত ১০ টাকা, ভারতীয় দলে জায়গা পাওয়ার পর রাতভর কেঁদেছিলেন এই খেলোয়াড়
নিজের দলের হয়ে উইকেট নিতে প্রত্যেক বোলারেরই ইচ্ছে থাকে। পাপু রায় এক এমন বোলার যার জন্য উইকেট...