বৃহস্পতিবার দিল্লীর ফিরোজ শাহ কোটলায় দ্বিতীয় এক দিনের আর্ন্তজাতিক ম্যাচে নিউজিল্যান্ড রুদ্ধশ্বাসভাবে ৬ রানে জয়লাভ করলো ভারতের বিরুদ্ধে।

টসে জিতে ভারত নিউজিলান্ডকে প্রথমে ব্যাট করতে পাঠায়। অধিনায়ক কেন উইলিয়মসনের (১১৮ রান) অনবদ্য শতরানের দৌলতে নিউজিল্যান্ড নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৪২ রান তোলে। জবাবে ধারাবাহিক ভাবে উইকেট হারিয়ে ভারত ক্রমাগত নিজেদেরকে চাপের মুখে ফেলে দিতে থাকে। ম্যাচের একসময় ভারত (৪১ তম ওভারে) ৮ উইকেট হারিয়ে ফেলে ১৮৩ রানে। তারপর নবম উইকেটে নবাগত অলরাউন্ডার হার্দিক পাণ্ডে এবং উমেশ যাদব এক দুর্দান্ত ও অনবদ্য ৪৯-রানের জুটি গড়ে ভারতকে প্রায় জয়ের দোরগোড়ায় নিয়ে চলে আসে।

শেষ ওভারে ভারতের দরকার ছিল ১০ রান, তবে হাতে মাত্র ১ টি উইকেটই পড়েছিল। আগের ওভারে হার্দিক পাণ্ডে (৩৬ রান) আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যাওয়ায়, ক্রিজে দাড়িয়ে ছিল শেষ উইকেট জুটি উমেশ যাদব ও যশপ্রীত বুমরাহ। ম্যাচের শেষ ওভারের তৃতীয় বলে, দুর্দান্ত ইয়র্কারের মাধ্যমে নিউজিল্যান্ড পেসার টিম সাউদি বুমরাহকে বোল্ড করে নিউজিল্যান্ডের এই ৬ রানের অনবদ্য রুদ্ধশ্বাস জয়কে নিশ্চিত করে।

এ দিনের প্রথম ইনিংসে, নিউজিল্যান্ড ওপেনার মার্টিন গাপ্টিল ম্যাচের মাত্র দ্বিতীয় বলে শূন্য রানে আউট হলেও, দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে অন্য ওপেনার টম লাথাম এবং কেন উইলিয়মসন ১২০ রান তুলে নিউজিল্যান্ডকে দ্রুত ম্যাচে ফেরত আনে। তবে লাথাম ৪৬ রানে আউট হওয়ার পরে, একমাত্র উইলিয়মসনই ভারতীয় বোলারদের সামনে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সক্ষম হয়। রস টেলর এবং কোরি অ্যান্ডারসন উভয়েই ২১ রানে আউট হয়, যেখানে তাদের পরর্বতী ব্যাটসম্যানরা কেউই দু’অঙ্কের রানে পৌছতে পারে নি। নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক উইলিয়মসন অনবদ্য শতরান করে ১১৮ রানে আউট হওয়ার পর, নিউজিল্যান্ড ব্যাটসম্যানরা সেভাবে আর ভারতীয় বোলারদের সামনে দাঁড়াতে পারেনি। অবশেষে নির্ধারিত ৫০ ওভারে নিউজিল্যান্ড ৯ উইকেট হারিয়ে ২৪২ রান তোলে।

ভারতীয় বোলারদের মধ্যে বুমরাহ ও অমিত মিশ্র ৩ টি করে উইকেট দখল করে, যেখানে একটি করে উইকেট পায় উমেশ যাদব, অক্ষর পটেল ও কেদার যাদব।

জবাবে ভারত শুরু থেকেই ক্রমাগত নিয়মিত উইকেট হারাতে থাকে। ভাল শুরু করেও শীর্ষক্রম ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা কেউই বড় রানের ইনিংস গড়তে পারেনি। ভারতীয় দুই ওপেনার রোহিত শর্মা ও অজিঙ্ক রাহানে যথাক্রমে ১৫ ও ২৮ রানে আউট হয়, আবার পরবর্তী দুই ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি ও মনীশ পাণ্ডে যথাক্রমে ৯ ও ১৯ রানে আউট হয়।

এরপর ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি এবং কেদার যাদব ভারতীয় ইনিংসের হাল ধরে। পঞ্চম উইকেটে গুরুত্বপূর্ণ ৬৬ রান যোগ করে এই দুই ব্যাটসম্যান জুটি। এই ম্যাচে ভারতীয় দলের হয়ে সর্বোচ্চ রানকারি কেদার যাদব ৪১ রানে আউট হয়ে গেলে, ভারতীয় ব্যাটিং পুনরায় ধসে পড়ে। ধোনি ৩৯ রানে প্যাভিলিয়নে ফিরলে ভারতীয় ইনিংসে আশার আলো ধীরে ধীরে কমতে থাকে। একসময়ে ভারতের স্কোর দাঁড়ায় ৮ উইকেটে ১৮৩ রান।

গত এক দিনের আর্ন্তজাতিকে অভিষেক করা হার্দিক পাণ্ডে এবং উমেশ যাদব দুর্দান্ত ৪৯- রানের জুটি গড়ে ভারতকে আবার ম্যাচে ফেরত আনে। তবে শেষরক্ষা আর হল না। ভারত শেষ পর্যন্ত এই ম্যাচে ৬ রানে হারল।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে সাউদি ৩ টি, ট্রেন্ট বোল্ট ও গাপ্টিল ২ টি করে এবং ম্যাট হেনরি ও মিচেল স্যান্টনার ১ টি করে উইকেট দখল করে। নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক উইলিয়মসন তার দুর্দান্ত ও অনবদ্য ইনিংসের জন্য ম্যাচের সেরা ঘোষিত হয়। এই জয়ের ফলে ৫-ম্যাচের এক দিনের আর্ন্তজাতিক সিরিজ এখন ১-১-এ সমান।

২৩ শে অক্টোবর রবিবার, পরবর্তী তৃতীয় দিন-রাতের এক দিনের আর্ন্তজাতিক ম্যাচ আয়োজিত হবে মোহালীতে।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ নিউজিল্যান্ড – ২৪২/৯ (৫০ ওভারে) [কেন উইলিয়মসন – ১১৮; টম লাথাম – ৪৬; যশপ্রীত বুমরাহ – ৩/৩৫]

ভারত – ২৩৬ (৪৯.৩ ওভারে) [কেদার যাদব – ৪১; মহেন্দ্র সিং ধোনি – ৩৯; টিম সাউদি – ৩/৫২]

ফল – নিউজিল্যান্ড জয়ী ৬ রানে।

ম্যাচের সেরা – কেন  উইলিয়মসন